Advertisement
২২ মার্চ ২০২৩
Mohun Bagan

বাগানের নামবদলের কৃতিত্ব কার? ‘উদ্যোগ আমার’, দাবি কুণালের, সৃঞ্জয়ের মুখে দলের কথা

মোহনবাগানের নামের শুরু থেকে ‘এটিকে’ সরানোর কৃতিত্ব কার? কুণাল ঘোষের দাবি, তিনিই প্রথম উদ্যোগ নিয়েছিলেন। প্রাক্তনী সৃঞ্জয় বসু বলছেন দলগত সাফল্যের কথা।

Picture of Kunal Ghosh and Srinjoy Bose with Mohun Bagan footballers in back ground

মোহনবাগান আইএসএল জেতার পরেই নামবদল হয়েছে ক্লাবের। নামবদলের কৃতিত্ব নিয়ে দাবি, পাল্টা দাবি কুণাল, সৃঞ্জয়ের। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৯ মার্চ ২০২৩ ১৬:২৩
Share: Save:

আইএসএল জেতার পরেই মোহনবাগানের নামের সামনে থেকে সরে গিয়েছে ‘এটিকে’। পরের মরসুম থেকে ‘মোহনবাগান সুপার জায়ান্টস’ নামে খেলবে দল। চ্যাম্পিয়ন হয়ে দলের মালিক সঞ্জীব গোয়েঙ্কা এ কথা ঘোষণা করার পরে ‘এটিকে’ সরানোর কৃতিত্ব দাবি করলেন কুণাল ঘোষ। মোহনবাগানের সহ-সভাপতি দাবি করেছেন, তিনিই প্রথম আনুষ্ঠানিক ভাবে এটিকে সরানোর আলোচনার কথা বলেছিলেন। বাগানের প্রাক্তন সচিব সৃঞ্জয় বসুও নাম বদলের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন গোয়েঙ্কাকে।তাঁদের পদক্ষেপের কথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন তিনি।

Advertisement

মোহনবাগানের সামনে থেকে এটিকে সরে যাওয়ার পরে ফেসবুকে কুণাল লিখেছেন, ‘‘কারা বলছিল এটিকে সরাতে কর্মসমিতি কিছু করছে না? কারা বলছিল শুধু পদে বসে আছি? আজ সঞ্জীব গোয়েঙ্কাকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি বলব, মনে রাখবেন, সহ-সভাপতি হিসেবে প্রথম বৈঠকে আমিই আনুষ্ঠানিক ভাবে এটিকে সরানোর আলোচনার দরজা খোলার কথা বলি। কর্মসমিতি সম্মত হয়। তার পর থেকেই প্রক্রিয়া চলছিল।’’

কুণালের দাবি, তাঁরা জানতেন নাম বদল হবে। কিন্তু সঠিক সময়ের অপেক্ষা করছিলেন। একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে সবটা করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তার পরেও তাঁদের অপমান সহ্য করতে হয়েছে। মোহনবাগানি পরিচয় দিয়ে কয়েক জন অসভ্যতা করেছেন। কুণাল লিখেছেন, ‘‘আমরা ঘোষণার অপেক্ষায় আছি। তার পরেও মোহনবাগানি পরিচয় দিয়ে কয়েক জন অসভ্যতা করেছে। কুৎসিত আক্রমণ করেছে। মাঠ বয়কটের কথা বলে অকারণ ৯৯.৯৯% মোহনবাগান সমর্থককে অপমান করেছে কেউ কেউ।’’

২০২০ সালের ১০ জুলাই এটিকের সঙ্গে সংযুক্তি হয়েছিল মোহনবাগানের। তার পরে তাঁরা দলের পদ পেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন কুণাল। তাঁর কথায়, ‘‘এটিকে নাম এসেছিল আমি বা কয়েক জন পদে আসার আগে। আমরা স্পনসরকে ঠিক রেখে এটিকের বদলে বিকল্প শব্দের চেষ্টা করছিলাম। আজ নতুন কমিটির সেই চেষ্টা সফল হল। এটিকে সরে গেল। মোহনবাগান পরিবার খুশি। সঞ্জীববাবুকে আবার ধন্যবাদ।’’

Advertisement

অন্য দিকে টুটু-পুত্র সৃঞ্জয় মোহনবাগান সমর্থকদের আবেগের কথা বলেছেন। তিনি ব্যক্তির বদলে সমষ্টির কথা বলেছেন। ধন্যবাদ দিয়েছেন সঞ্জীবকে। ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘‘আজ প্রমাণ হল আমরা যে পদক্ষেপটা করেছিলাম সেটা ঠিক। এত দিন কম লাঞ্ছনা, অপমান, কটূক্তি সহ্য করতে হয়নি। মা, বাবা, পরিবারের সকলকে টেনে অকথ্য ভাষায় কথা শুনতে হয়েছে। কর্পোরেট সংস্থা দরকার, আবেগকে সঙ্গে নিয়ে। আজ মোহনবাগান জিতল। এটিকে সরে গেল। আমি সঞ্জীব আঙ্কেলকে ধন্যবাদ জানাই। ভালবাসা জানাই যারা এত দিন কটূক্তি আক্রান্ত হয়েও মাঠ ভরিয়েছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.