Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Cristiano Ronaldo: ফুটবলে ফিনিশারের জয়ধ্বনি

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৪ নভেম্বর ২০২১ ০৭:৫৯
কিংবদন্তি: শেষ মুহূর্তে ম্যাচের রং বদলে দেওয়া তিন মহাতারকা রোনাল্ডো, জর্ডান ও ধোনি।

কিংবদন্তি: শেষ মুহূর্তে ম্যাচের রং বদলে দেওয়া তিন মহাতারকা রোনাল্ডো, জর্ডান ও ধোনি।
ছবি টুইটার, ফাইল চিত্র।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, মাইকেল জর্ডান ও মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। নাটকীয় ভাবে শেষ মুহূর্তে ম্যাচের রং বদলে দেওয়া তিন কিংবদন্তি।

বাস্কেটবল কোর্টে শিকাগো বুলসের হয়ে শেষ মুহূর্তে বাস্কেট করে অসংখ্য ম্যাচ জিতেয়েছেন জর্ডান। এতটাই লাফিয়ে বাস্কেট করতেন তিনি, মনে হত যেন হাওয়ায় ভাসছেন। তাঁকে সম্মান জানাতে ‘এয়ার জর্ডান’ নামে বিশেষ জুতোই তৈরি করে ফেলে একটি আন্তর্জাতিক ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক সংস্থা।

সি আর সেভেন একের পর এক ম্যাচে সংযুক্ত সময়ে গোল করে কখনও ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডকে জেতাচ্ছেন। কখনও আবার নিশ্চিত হার বাঁচাচ্ছেন। মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আটলান্টার বিরুদ্ধেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ১২ মিনিটে ইয়োসিপ ইলিচের গোলে পিছিয়ে পড়া ম্যান ইউকে প্রথমার্ধের সংযুক্ত সময়ে (৪৫+১ মিনিট) ম্যাচে ফেরান সি আর সেভেন। ৫৬ মিনিটে আটলান্টা ফের এগিয়ে যায় দুভান সাপাতার গোলে। দ্বিতীয়ার্ধের সংযুক্ত সময়ে (৯০+১ মিনিটে) ফের গোল করে ২-২ করেন রোনাল্ডো। আর তাই সি আর সেভেনের মধ্যে মাইকেল জর্ডানের ছায়া দেখছেন ম্যান ইউ ম্যান ম্যানেজার ওয়ে গুন্নার সোলসার! ম্যাচের পরে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেছেন, ‘‘আমি নিশ্চিত, শিকাগো বুলসের কেউ কিছু মনে করবেন না রোনাল্ডোকে আমি ম্যান ইউয়ের মাইকেল জর্ডান বলছি বলে। ক্রিশ্চিয়ানো আরও উন্নতি করেছে। যা আমাদের জন্য খুবই ইতিবাচক।’’

Advertisement

চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ভিয়ারিয়ালের বিরুদ্ধে ম্যাচও কখনও ভুলতে পারবেন না ফুটবলপ্রেমীরা। নির্ধারিত সময় শেষ। ম্যাচের ফল ১-১। ম্যান ইউ সমর্থকেরা ধরেই নিয়েছিলেন, জয়ের আশা শেষ। কিন্তু সংযুক্ত সময়ে (৯০+৫ মিনিট) ফের ঝলসে উঠলেন তিনি। গোল করে ম্যান ইউকে জয় উপহার দিলেন সেই রোনাল্ডোই। মঙ্গলবার আটলান্টার বিরুদ্ধে জয় না এলেও সি আর সেভেনের সৌজন্যেই চার ম্যাচে সাত পয়েন্ট নিয়ে ‘এফ’ গ্রুপের শীর্ষ স্থান শুধু ধরে রাখল না ম্যান ইউ, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আশাও বাঁচিয়ে রাখল। কারণ, এই ম্যাচে হারলেই টেবলের তৃতীয় স্থানে নেমে যাওয়ার আশঙ্কা ছিল।

রোনাল্ডোকে কিংবদন্তি জর্ডানের সঙ্গে সোলসার তুলনা করলেও ভারতের ক্রীড়াপ্রেমীরা আরও এক জনের মিল খুঁজে পাচ্ছেন তাঁদের সঙ্গে। তিনি, মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। ২০১১ সালে পঞ্চাশ ওভারের বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ছয় মেরে ম্যাচ জেতানোর স্মরণীয় মুহূর্ত চিরকালীন। ভুলতে পারবেন না ২০০৫ সালে বিশাখাপত্তনমে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তাঁর ১৪৮ রান করে ম্যাচ জেতানো সেই ইনিংস। অথবা সেই বছরই জয়পুরে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে অপরাজিত ১৮৩ রান। আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে অসংখ্য রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ জয়ের মূল কারিগর তিনি। জাতীয় দল থেকে অবসর নিলেও সদ্য সমাপ্ত আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফের জাদু দেখিয়েছেন ধোনি।

জাদু দেখাচ্ছেন রোনাল্ডোও। মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তিনি প্রথম গোলটি করেন ব্রুনো ফের্নান্দেসের পাস থেকে ব্যাকহিলে। দ্বিতীয় গোল তিনি করেন অনবদ্য ভলিতে। চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে সব ম্যাচেই গোল করলেন সি আর সেভেন। ২০০৩ সালে রুদ ফান নিস্তেলরুই ছাড়া ম্যান ইউয়ে আর কারও এই নজির নেই। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে চলতি মরসুমে ১১ ম্যাচে ন’টি গোল করা রোনাল্ডোকেও সমালোচনার তিরে বিদ্ধ হতে হয়েছিল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে লিভারপুলের কাছে ০-৫ বিপর্যয়ের পরে। কেউ কেউ মনে করেছিলেন, রোনাল্ডোর যোগদানে ম্যান ইউয়ের ক্ষতিই হয়েছে।

সি আর সেভেনের হয়ে সমালোচনার জবাবটা দিয়েছেন তাঁর প্রাক্তন সতীর্থ রিয়ো ফার্ডিনান্ড। বলেছেন, ‘‘রোনাল্ডো দলের জন্য খেলে না বলে কেউ কেউ অভিযোগ করেন। ও কিন্তু আসল কাজটাই করে। সেটা হল গোল করা। বিশ্বের যে কোন প্রান্তে রোনাল্ডো ঠিক সময়ে জেগে উঠে গোল করে দলকে রক্ষা করে যায়।’’

আরও পড়ুন

Advertisement