Advertisement
২৫ জুন ২০২৪
Lionel Messi

চক্রান্ত, টাকার অভাব না কি আইনি জটিলতা! কেন বার্সেলোনায় যোগ দিলেন না মেসি?

অনেকেই ভেবেছিলেন, বার্সার ডাক ফেরাতে পারবেন না লিয়ো মেসি। কিন্তু সেই ডাক এড়িয়ে আমেরিকায় পাড়ি দিলেন। তবে কেন বার্সায় গেলেন না, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন সাক্ষাৎকারে।

lionel messi

লিয়োনেল মেসি। — ফাইল চিত্র

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
শেষ আপডেট: ০৮ জুন ২০২৩ ১২:২৭
Share: Save:

বিরাট অর্থের প্রস্তাব নিয়ে দুয়ারে ছিল সৌদি আরবের ক্লাব আল-হিলাল। ছিল প্রাক্তন ক্লাব বার্সেলোনার প্রস্তাবও। কোনও কিছুতেই রাজি হলেন না লিয়োনেল মেসি। সব ছেড়ে আমেরিকার ইন্টার মায়ামি ক্লাবে খেলতে চলেছেন তিনি। অনেকেই ভেবেছিলেন, বার্সার ডাক ফেরাতে পারবেন না মেসি। গত দু’দিনে বৈঠকের পর সেই জল্পনা জোরালো হয়েছিল। কিন্তু নিজের প্রিয় ক্লাবকে আবার অস্বস্তির মধ্যে দেখতে চাননি বলেই মেসি গেলেন না।

এক সাক্ষাৎকারে মেসি বলেছেন, “আমি প্রচণ্ড ভাবে বার্সায় ফিরতে চেয়েছিলাম। আমার কাছে একটা স্বপ্ন ছিল। কিন্তু দু’বছর আগে যা হয়েছিল সেই পরিস্থিতিতে আর পড়তে চাইনি। অন্য কারও হাতে আমার ভবিষ্যৎ নির্ধারিত হোক, সেটা চাইনি। নিজের এবং পরিবারের কথা ভেবে সব সিদ্ধান্ত নিজেই নিয়েছি।”

দু’বছর আগে বার্সার সঙ্গে আইনি লড়াই এবং আর্থিক প্রস্তাব নিয়ে ঝামেলার জেরে প্যারিস সঁ জরমেঁ যোগ দিয়েছিলেন মেসি। তার আগের বছরই ছাড়তে চেয়েছিলেন তৎকালীন সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমিউয়ের সঙ্গে ঝামেলার জেরে। কিন্তু আইনি ফাঁস দেখিয়ে তাঁকে আটকে রাখা হয়।

বার্সেলোনায় যোগ না দেওয়া নিয়ে মেসির ব্যাখ্যা, “আমি শুনেছিলাম স্প্যানিশ লিগ আমাকে সই করানোর ব্যাপারে সবুজ সঙ্কেত দিয়েছিল। কিন্তু বার্সায় আমার ফেরার পথে অনেক অনেক সমস্যা ছিল। কখনও চাইনি আমাকে সই করানোর জন্য ওরা ফুটবলারদের বিক্রি করে দিক বা বেতন কমিয়ে দিক। আমি ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলাম।”

মেসি আরও বলেছেন, “অর্থ কোনও দিন আমার কাছে সমস্যা হয়নি। এমনকি চুক্তি নিয়ে বার্সার সঙ্গে কোনও আলোচনাই হয়নি। ওরা আমাকে একটা প্রস্তাব পাঠিয়েছিল। সেটা কখনও আনুষ্ঠানিক, লিখিত এবং সই করা প্রস্তাব ছিল না। বেতন নিয়ে কোনও কথাই হয়নি। অর্থ রোজগার করতে চাইলে তো সৌদিতে চলে যেতাম।”

বার্সেলোনায় তাঁকে নিয়ে যে এখনও কিছু কিছু লোক চক্রান্ত করছেন, সেটাও উঠে এসেছে মেসির কথায়। বলেছেন, “আমি জানি বার্সায় এখনও এমন কিছু মানুষ রয়েছেন যাঁরা চান না আমি ক্লাবে ফিরি। তাতে নাকি ক্লাবে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। ইউরোপের বিভিন্ন ক্লাব থেকে প্রস্তাব পেয়েছিলাম। কিন্তু সেগুলো পাত্তাও দিইনি। আমার একটাই ভাবনা ছিল, ইউরোপে খেললে বার্সেলোনাতেই খেলব।”

ইউরোপ ছেড়ে অনেক দূরে চলে যেতে হলেও মেসির ভাবনাচিন্তায় যে আগামী দিনেও বার্সেলোনা থাকবে, সেটা বুঝিয়ে দিয়েছেন। বলেছেন, “বার্সেলোনার কাছাকাছি থাকার চেষ্টা করব। আবার গিয়ে বার্সেলোনায় থাকব, এই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছি। আশা করি কোনও এক দিন ক্লাবকে সাহায্য করতে পারব। কারণ ক্লাবটাকে আমি ভালবাসি।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE