Advertisement
০২ মার্চ ২০২৪
Tennis

French Open 2022: কাঁদলেন, কান্না ঢাকতে হাসলেন, ফরাসি ওপেনে হেরে কী করবেন বুঝতেই পারলেন না গফ

পড়াশোনায় মন দিতে চেয়েছিলেন। ফরাসি ওপেনের ফাইনালে হেরে এ বার হয়তো সেই দিকেই মন দেবেন গফ।

ছবি: রয়টার্স

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৪ জুন ২০২২ ২১:৩৭
Share: Save:

হেরে গিয়েছেন। ফরাসি ওপেনের ফাইনালে হেরে গিয়েছেন। ইগা শিয়নটেকের বিরুদ্ধে স্ট্রেট সেটে উড়ে গিয়ে পুরস্কার মঞ্চ কেঁদে ভাসালেন কোকো গফ। সেই কান্না ঢাকতে হাসলেন। ফাইনালের আগে সেই ম্যাচকে সে ভাবে গুরুত্ব না দেওয়া গফ বুঝতেই পারলেন না কী করবেন।

ফরাসি ওপেনের ফাইনালে নামার আগে গফ বলেছিলেন পড়াশোনায় মন দিতে চান, আমেরিকায় শান্তি চান। এর মাঝে ফরাসি ওপেনের ফাইনাল তাঁর কাছে ছিল যে কোনও একটি সাধারণ ম্যাচের মতোই। সেই ‘সাধারণ’ ম্যাচ হেরে গফ চোখের জল ধরে রাখতে পারলেন না। তাঁর চোখে জল। ডান গালের উপর দিয়ে সেই জল গড়িয়ে পড়ছে। কিন্তু মুখে হাসি।

বোকা বোকা একটা হাসি। স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে দুঃখ লুকোতে চাইছেন। সেই হাসি নিয়েই গফ বললেন, “এটাই আমার প্রথম বার। শিয়নটেককে শুভেচ্ছা। তুমি যে ভাবে গত কয়েক মাস ধরে পরিশ্রম করছ তাতে এই জয় তোমার প্রাপ্য। আশা করব আমরা আরও অনেক ফাইনালে মুখোমুখি হব এবং কোনও এক দিন জিতব।” এর পর কী বলবেন বুঝতে পারলেন না। কথা খুঁজতে শুরু করলেন গফ। ফের বললেন, “আমার দলকে ধন্যবাদ। দুঃখিত আমি পারলাম না।” ফোঁপাতে শুরু করলেন। আর পারছিলেন না। একটি ‘সাধারণ’ ম্যাচ হারার পর যে এত কষ্ট হতে পারে তা আগে বুঝতে পারেননি ১৮ বছরের গফ।

এ বার পারলেন। সেই সঙ্গে আবার আসতে চাইলেন এমন ম্যাচ খেলতে। গফ বলেন, “আশা করি এটা আমার প্রথম ফাইনাল। আরও অনেকগুলো খেলব।”

সেরিনা উইলিয়ামসকে দেখে টেনিস শুরু করা গফ মাত্র ১৫ বছর বয়সে প্রথম কোনও গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেলেছিলেন। প্রতিভার ঝলক দেখা গিয়েছিল ওই বয়সেই। ১৫ বছরে উইম্বলডনে খেলা গফ এবং ১৮ বছরে ফরাসি ওপেনের সেমিফাইনালে ওঠা গফের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। সবচেয়ে বড় বদল এসেছে মানসিকতায়। গফ এখন অনেক বেশি পরিণত।

এ বারের ফরাসি ওপেনে এক দিনে দুটো ম্যাচও খেলেছেন গফ। সকালে সিঙ্গলসে স্লোয়েন স্টিফেন্সকে হারানোর পর বিকেলে সানিয়া মির্জাদের হারিয়ে ডাবলস ম্যাচেও জিতেছেন। সেই ম্যাচের পর বলেছিলেন, “গ্র্যাজুয়েশন কি আমার কাছে কঠিন ছিল? অবশ্যই। কারণ স্কুলে গিয়ে ক্লাস করা এবং স্কুল শেষ হলে রাস্তায় টেনিস খেলা কতটা কঠিন, সেটা আমিই জানি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অনেক খেলোয়াড়ই হারিয়ে যায়। আমরা যারা খেলি, তারা অনেকেই ভাবি খেলাই হয়ত জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। তা নয়। আমার কাছে অন্তত হাই স্কুলের ডিপ্লোমার গুরুত্ব অনেক বেশি।”

ফরাসি ওপেনের ফাইনালে হেরে এ বার হয়তো পড়াশোনাতেই মন দেবেন গফ।

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ।

Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE