Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

এ ছেলে অনেক দূর যাবে, সুমিতকে সার্টিফিকেট ফেডেরারের

সুমিত নাগালের খেলা দেখে বিস্মিত টেনিস বিশ্ব। ফেডেরারও কি বিস্মিত হননি! খেলার শেষে সুমিতের প্রশংসা করলেন কিংবদন্তি টেনিস তারকা।

নিজস্ব প্রতিবেদন
নিউ ইয়র্ক ২৭ অগস্ট ২০১৯ ১৩:৫১
কিংবদন্তি ফেডেরারকে চমকে দিয়েছেন সুমিত। ছবি: এএফপি।

কিংবদন্তি ফেডেরারকে চমকে দিয়েছেন সুমিত। ছবি: এএফপি।

স্বপ্নের ম্যাচে স্বপ্নপূরণ সুমিত নাগালের! রজার ফেডেরারকে বেগ দিয়ে প্রথম সেট জিতে নেওয়া এবং পরে টেনিস-ঈশ্বরের প্রশংসা আদায় করে নেওয়া— এ তো স্বপ্নপূরণই।

ইউএস ওপেনের প্রথম রাউন্ডে আড়াই ঘন্টার লড়াইয়ের শেষে ফেডেরার ৪-৬, ৬-১, ৬-২, ৬-৪ ম্যাচ জিতে নিলেও, প্রথম সেটেই চমক দেন সুমিত। তাঁর খেলা দেখে বিস্মিত টেনিস বিশ্ব। ফেডেরারও কি বিস্মিত হননি! সুমিতের খেলা দেখে ফেডেরার বলেন, ‘‘অনেক দূর যাবে সুমিত। খেলা দেখে আমার মনে হয়েছে, ও নিজের ক্ষমতা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। সেই কারণেই বলছি, ওর বহুদূর যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’’

ম্যাচে সুমিতের পারফরম্যান্সকে ধারাবাহিক বলে বর্ণনা করেছেন ফেডেরার। সারা ম্যাচে ফেডেরারকে একাধিক বার বেগ দিয়েছেন সুমিত। ‘আনফোর্সড এরর’ ফেডেরারকে সমস্যায় ফেলে দিচ্ছিল। যদিও দ্বিতীয় সেট থেকে নিজেকে সামলে নেন ফেডেরার।

Advertisement

আরও পড়ুন: প্রথম সেটে ফেডেরারকে হারিয়ে চমকে দিলেন হরিয়ানার সুমিত নাগাল

যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের মতো বড় মঞ্চে ভাল খেলার সুবিধা রয়েছে। নিজেকে মেলে ধরতে পারলে খুব দ্রুতই পরিচিতি পাওয়া যায়। নাগালের ক্ষেত্রে যেমন ঘটল। ভারতীয় টেনিস খেলোয়াড়ের খেলা দেখে ফেডেরার বলছেন, ‘‘বড় মঞ্চে খেলার স্বপ্ন সবাই দেখে। কিন্তু বড় মঞ্চে নেমে নিজের সেরাটা তুলে ধরা রীতিমতো কঠিন ব্যাপার। নাগাল যে ভাবে পরিস্থিতি সামলেছে, তা সত্যিই প্রশংসনীয়।’’ নাগালের খেলার ধরন বিশ্লেষণ করে ৩৮ বছরের ফেডেরার বলছেন, ‘‘নাগালকে দেখে মনে হয়েছে ও ক্লে কোর্টের খেলোয়াড়। বছরের বেশির ভাগ সময়ে ও ক্লে কোর্টেই যে খেলে, সেটাই বোঝা গিয়েছে।’’

কিংবদন্তি ফেডেরারের বিরুদ্ধে নামার আগে নাগাল বলেছিলেন,‘‘রজার ফেডেরারকে বলা হয় টেনিসের ঈশ্বর। আমি স্বপ্ন দেখতাম, কোনও এক দিন হয়ত ওর বিরুদ্ধে কোর্টে নামার সুযোগ পাব।’’

আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে ফেডেরারের কাছ থেকে প্রথম সেট ছিনিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি কিংবদন্তির প্রশংসা পেলেন সুমিত। এ ভাবেও যে স্বপ্নপূরণ হয়, তা নাগালকে না দেখলে বোঝাই যেত না।

আরও পড়ুন

Advertisement