Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৩ অক্টোবর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

কর্ণজিতের হাতে স্বপ্নভঙ্গ কেরলের

কোচিতে ঘরের মাঠে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে মরণ-বাঁচন ম্যাচ ছিল কেরলের। প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য ভাবে। ৫৩ মিনিটে পেনাল্টি পায় সচিন তেন্ডুলকরের দল।

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ০৪:৫২
Save
Something isn't right! Please refresh.
ছবি: সংগৃহীত।

ছবি: সংগৃহীত।

Popup Close

দুর্ভেদ্য কর্ণজিৎ সিংহ। ইন্ডিয়ান সুপার লিগ (আইএসএল)-এ ঘরের মাঠে চেন্নাইয়িন এফসি-র বিরুদ্ধে ০-০ ড্র করায় শেষ চারে খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে গেল কেরল ব্লাস্টার্স এফসি-র।

কোচিতে ঘরের মাঠে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে মরণ-বাঁচন ম্যাচ ছিল কেরলের। প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য ভাবে। ৫৩ মিনিটে পেনাল্টি পায় সচিন তেন্ডুলকরের দল। কিন্তু কারেজ পেকুসনের পেনাল্টি বাঁচিয়ে দেন চেন্নাই গোলরক্ষক কর্ণজিৎ। এ দিনের ড্রয়ের ফলে ১৭ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবলে পাঁচ নম্বরেই থাকল কেরল। তৃতীয় স্থানে থাকা চেন্নাইয়ের পয়েন্ট ১৭ ম্যাচে ২৯। কেরলের বিরুদ্ধে ড্রয়ের ফলে শেষ চারে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখলেন জেজে লালপেখলুয়া-রা। প্রথম পর্বের দাক্ষিণাত্য ডার্বিও নিষ্ফলা ছিল। ঘরের মাঠে কেরলের বিরুদ্ধে জয়ের স্বপ্ন অধরা ছিল চেন্নাইয়ের। শুক্রবারও ম্যাচ শেষ হল গোলশূন্য ভাবে।

এ দিকে, শনিবার দিল্লির জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়ামে দিল্লি ডায়নামোজ এফসি-র বিরুদ্ধে নামছে এটিকে। দু’দলই অবশ্য খেতাবের দৌড় থেকে ছিটকে গিয়েছে। দশ দলের লিগে আট নম্বরে দু’বারের চ্যাম্পিয়ন কলকাতা। নবম স্থানে দিল্লি। তবে শেষ তিনটি ম্যাচে একটিতেও হারেনি দিল্লি। চেন্নাইয়িন এফসি ও এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে ড্র করেছে। হারিয়েছে নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসি-কে। কলকাতার বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে দিল্লি কোচ মিগেল আঙ্খেল বলছেন, ‘‘ফুটবলাররা বুঝতে পেরেছে, লিগ টেবলের এত নীচে থাকাটা একেবারেই ভাল না।’’

Advertisement

এটিকে আবার শেষ তিনটি ম্যাচের দু’টিতেই হেরেছে। টেডি শেরিংহ্যামের পরিবর্তে অ্যাশলে ওয়েস্টউড দায়িত্ব নেওয়ার পরে কোনও ম্যাচই জেতেনি কলকাতা। বেঙ্গালুরু এফসি-র প্রাক্তন কোচের কোচিংয়ে পাঁচটির মধ্যে চারটিতেই হেরেছে এটিকে। দিল্লির বিরুদ্ধে কী ঘুরে দাঁড়াতে পারবে কলকাতা? মুম্বই সিটি এফসি-র বিরুদ্ধে আগের ম্যাচে হারের পরে সাংবাদিক বৈঠকে ওয়েস্টউড বলেছিলেন, ‘‘আমাদের প্রধান লক্ষ্য গোল খাওয়া আটকানো। আমাদের হারানোর কিছু নেই। তাই গোলের জন্য ঝাঁপাতে হবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Tags:
Something isn't right! Please refresh.

Advertisement