Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

শঙ্করের কোচিংয়ে আইজল থেকে প্রথম পয়েন্ট বাগানে

নিজস্ব সংবাদদাতা
২৫ জানুয়ারি ২০১৮ ১৯:০৬
শিল্টনের দুরন্ত সেভ। ছবি: এআইএফএফ।

শিল্টনের দুরন্ত সেভ। ছবি: এআইএফএফ।

আইজল ১ (লালথাথাঙ্গা)

মোহনবাগান ১ (মননদীপ সিংহ)

শঙ্করলালের কোচিংয়ে আইজল থেকে প্রথম পয়েন্ট নিয়ে ফিরছে মোহনবাগান। ডার্বি জয়ের পরে যে দলের উপর একই রকম ভাবে নিয়ন্ত্রণ রেখেছেন নবাগত কোচ, বৃহস্পতিবার তা আবারও পরিষ্কার হয়ে গেল।

Advertisement

জয় না এলেও, গত বারের চ্যাম্পিয়নদের ঘরের মাঠ থেকে পয়েন্ট নিয়ে ফেরাটা সহজ ছিল না। যেটা এ বার করে দেখাল বাগান ব্রিগেড। তাও আবার পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে ফিরল ডার্বি জয়ী বাগান।

এ দিনের মোহনবাগান-আইজল এফসি ম্যাচ ছিল ঘটনাবহুল । গোল, পাল্টা গোল, পেনাল্টি, পেনাল্টির দাবি, লাল কার্ড, দুরন্ত সেভ আর ম্যাচ শেষে গ্যালারির তেতে ওঠা— সবই ছিল এ দিনের ম্যাচে।

ডার্বি জিতেই আই লিগ চ্যাম্পিয়নদের ঘরের মাঠে খেলতে নেমেছিল মোহনবাগান। শুরুটা অবশ্য করে দিয়েছিল হোম টিমই। কিন্তু, এক গোলের ব্যবধান ধরে রাখতে পারেনি আইজলের রক্ষণ। মোহনবাগান কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী বললেন, ‘‘আমরা পিছিয়ে পড়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছিলাম আইজলের মাটিতে। আপাতত ম্যাচ বাই ম্যাচ ভাবছি। তা হলেই লক্ষ্যে পৌঁছতে পারব।’’

আরও পড়ুন
দু’সপ্তাহ বাইরে আমনা

আইজল কোচ তাঁর প্রথম এগারোয় জোড়া পরিবর্তন করেছিলেন। চোট পাওয়া করিম ওমোলোজার নামের পোস্টার নিয়ে মাঠে লাইন আপ করেছিল আইজল দল। ম্যাচের ৩২ মিনিটে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়া দীপান্দা ডিকার জায়গায় নিয়ে আসা হয় মননদীপ সিংহকে। আর তাঁর পায়েই সমতায় ফেরা মোহনবাগানের। যদিও প্রথমার্ধে কোনও দলই গোলের মুখ খুলতে পারেনি। কিন্তু, গোলের সুযোগ তৈরি হয়। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে হলুদ কার্ডও দেখেন মননদীপ। আইজলের গোলদাতা লালথাথাঙ্গাও নামেন পরিবর্তে।



ম্যাচ শেষে এ ভাবেই উত্তাল হল আইজলের গ্যালারি।

৬৮ মিনিটে নেমে ডোডোজের বাঁ প্রান্ত থেকে উড়ে আসা ক্রস গোলে ঠেললেও প্রথম সুযোগে সেই বল বাঁচিয়ে দেন শিল্টন। কিন্তু তাঁর ফিস্ট করা বল আবার পেয়ে যান লালথাথাঙ্গা। এ বার আর ভুল করেননি আইজলের এই ফুটবলার। ৭৩ মিনিটে গোল হজম করে ৭৬ মিনিটে পেনাল্টি আদায় করে নেয় মোহনবাগান। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি মননদীপ। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন আলফ্রেড কেমা জারিয়ান। ১০ জন হয়ে গেলেও আক্রমণ চালিয়ে যায় আইজল।



মোহনবাগান-আইজল ম্যাচের একটি মুহূর্ত।

কিন্তু তত ক্ষণে ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ হতে শুরু করেছে গ্যালারিতে। আর ম্যাচ শেষে তা উসকে দেন স্বয়ং আইজল কোচ আর গোল কিপার। মাঠের মধ্যেই তাঁরা রেফারির দিকে তেড়ে যান। কেন তাঁদের বিরুদ্ধে লাল কার্ড দেওয়া হল? এর প্রভাব গিয়ে পড়ে গ্যালারি। এর পরই উড়ে আসতে শুরু করে জলের বোতল, চেয়ার। শেষ পর্যন্ত পুলিশ প্রহরায় মাঠ ছাড়েন রেফারিরা। ম্যাচ ড্র করে মোহনবাগান কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী বলছিলেন, ‘‘আইজল থেকে এক পয়েন্ট পেয়ে আমরা খুশি। যেখানে পয়েন্ট পাওয়াটাই কঠিন। সেখান থেকে আমরা এক পয়েন্ট নিয়ে ফিরছি। এটাই অনেক।’’

আরও পড়ুন

Advertisement