Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ফাইনালে দলের আচরণের জন্য ক্ষমা চাইলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৪:২৯
বিশ্বকাপ ফাইনালের পর দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

বিশ্বকাপ ফাইনালের পর দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ শেষ হয়েও যেন শেষ হচ্ছে না। থেকে গিয়েছে বাংলাদেশ জিতে যাওয়ার পর দুই দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে হাতাহাতির তিক্ততা। যা বিতর্কের জন্ম দিয়েছে ইতিমধ্যেই।

দুই দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে ফাইনাল জুড়েই চলছিল স্লেজিং, উত্তপ্ত বাদানুবাদ। সেটাই চরমে উঠেছিল ম্যাচ শেষের পর। দুই দলের ক্রিকেটারদের ধাক্কাধাক্কির সেই ছবি ও ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল চর্চিত হচ্ছে। যা আবার ক্রিকেটমহলে ধিক্কৃত হচ্ছে। এই ব্যাপারে টুইট করেছেন বিষেণ সিংহ বেদির মতো প্রাক্তন ক্রিকেটারও।

আরও পড়ুন: ‘বেশ কয়েক বছর ধরেই মনে হচ্ছিল বিশ্বকাপ জিততে পারি’

Advertisement

আরও পড়ুন: বিশ্বজয়ী আকবরদের অভিনন্দন বন্যায় ভাসিয়ে দিচ্ছেন মাশরাফি-মুশফিকুররা

বাংলাদেশের অধিনায়ক আকবর আলিকে এই ব্যাপারে প্রশ্নের মুখোমুখিও হতে হল। প্রচারমাধ্যমকে আকবর বললেন, “যা ঘটেছে, তা হওয়া উচিত ছিল না। অবশ্য ঠিক কী হয়েছে তা আমি জানি না। কী ঘটছে, তা জানতেও চাইনি। তবে ফাইনালে আবেগের বহিঃপ্রকাশ তো হতেই পারে। উত্তেজিত থাকলে তার প্রকাশও এ ভাবে হতে পারে। তবে একজন উঠতি ক্রিকেটার হিসেবে বলতে পারি যে, এমন না হলেই ভাল হত। যে কোনও পরিস্থিতিতে, যে কোনও ভাবেই আমাদের বিপক্ষকে শ্রদ্ধা জানাতে হয়। আমাদের খেলাটাকেও শ্রদ্ধা জানানো উচিত। ক্রিকেট হল ভদ্রলোকের খেলা। আমি তাই আমার দলের আচরণের জন্য দুঃখিত।”


ভারতের অধিনায়ক প্রিয়ম গর্গ আবার পরিষ্কার করে দিয়েছেন যে এই ঘটনার জন্য দায়ী করা উচিত বাংলাদেশকেই। তিনি বলেছেন, “ওদের আচরণ খুবই খারাপ ছিল। আমার মনে হয় এমনটা হওয়া উচিত ছিল না।”


আরও পড়ুন

Advertisement