×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ মে ২০২১ ই-পেপার

সমর্থকদের সংঘর্ষে উত্তেজনা

নিজস্ব প্রতিবেদন
৩০ জুন ২০১৯ ০৩:৪১
পাকিস্তান বনাম আফগানিস্তান সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ।—ছবি টুইটার।

পাকিস্তান বনাম আফগানিস্তান সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ।—ছবি টুইটার।

হেডিংলেতে শনিবার বিশ্বকাপে পাকিস্তান বনাম আফগানিস্তান ম্যাচের আগেই অশান্তি! সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লেন দুই দেশের সমর্থকেরা। স্টেডিয়ামের বাইরে লোহার রড, গার্ড রেল নিয়ে এক দল আর এক দলের উপর চড়াও হয়। এই ঘটনায় জখম হয়েছেন দুই দেশের বেশ কয়েকজন সমর্থক।

কী ভাবে এই সংঘর্ষ? উঠে আসছে দু’রকম ব্যাখ্যা। একটি মহলের দাবি, ম্যাচের আগে স্টেডিয়ামের উপর দিয়ে একটি বিমান উড়ে যায়। তার পরেই আকাশে ফুটে ওঠে একটি রাজনৈতিক স্লোগান— জাস্টিস ফর বালুচিস্তান। দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ায় ইরান, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের সীমান্ত ঘেঁষা একটি অঞ্চল হল বালুচিস্তান। দীর্ঘদিন ধরেই সেখানকার মানুষ স্বাধীনতার জন্য আন্দোলন করছে পাক সরকারের বিরুদ্ধে। যদিও অন্য একটি মহলের দাবি, স্টেডিয়ামের প্রবেশদ্বারে খেলা দেখতে আসা দুই আফগান সমর্থককে নাকি আটকানো হয়, যাঁদের কাছে টিকিট ছিল না। সেখান থেকেই নাকি সংঘর্ষের উৎপত্তি।

সিসিটিভি-তে দেখা গিয়েছে, দু’দলের সমর্থকরাই হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েছেন। এক জায়গায় দেখা যায়, এক পাক সমর্থককে ঘিরে ঘরে কয়েকজন আফগান সমর্থক বোতল, লোহার রড নিয়ে তেড়ে যাচ্ছেন মারতে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে শেষ পর্যন্ত মারমুখী দুই পক্ষকে সামলাতে আসরে নামেন স্টেডিয়ামের নিরাপত্তারক্ষীরা। ছুটে আসে পুলিশও। সোশ্যাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে পড়ে দুই দলের সমর্থকদের কয়েকটি ভিডিয়ো।

Advertisement

গোটা ঘটনায় ক্ষুব্ধ আইসিসি। এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছে তারা। সংস্থার এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘‘ঘটনার খবর পেতেই স্টেডিয়ামের নিরাপত্তারক্ষী ও পশ্চিম ইয়র্কশায়ার পুলিশকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। আইসিসি কখনও এই ধরনের আচরণ বরদাস্ত করবে না। জড়িতদের কড়া শাস্তি দেওয়া হবে। তাদের চিহ্নিত করতেই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।’’

Advertisement