×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

কোহালি, রাহানেদের ফিটনেস প্রোগ্রামকে গোর্খা রেজিমেন্টের সঙ্গে তুলনা ইয়ান চ্যাপেলের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৪ জানুয়ারি ২০২১ ১৬:৪১
সময় পেলেন জিমে সময় কাটান কোহালি। ফাইল ছবি

সময় পেলেন জিমে সময় কাটান কোহালি। ফাইল ছবি

একদিন আগেই অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের টেস্ট সিরিজ জয়ের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছিলেন গ্রেগ চ্যাপেল। এবার তাঁর দাদা ইয়ান চ্যাপেলও দরাজ গলার প্রশংসা করলেন অজিঙ্ক রাহানের নেতৃত্বাধীন দলের কীর্তির। পাশাপাশি ভারতীয় দলের ফিটনেস প্রোগ্রামকে তুলনা করলেন গোর্খা রেজিমেন্টের সঙ্গে।

গ্রেগের মতো ইয়ান কোনওদিনই সে ভাবে ভারত-বিদ্বেষী নন। ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম সেরা পণ্ডিতও বলা হয় তাঁকে। তবে গ্রেগের সঙ্গে অনেক ব্যাপারেই মিল খুঁজে পাওয়া গিয়েছে তাঁর। তিনিও ভারতের তরুণ ক্রিকেটারদের একগুচ্ছ ঘরোয়া ম্যাচ খেলাকেই বেশি কৃতিত্ব দিয়েছেন।

এক সংবাদপত্রের কলামে ইয়ান লিখেছেন, “অনেকেই ভারতের জয়ে অবাক হয়েছে! কিন্তু আমার কাছে প্রশ্ন, এখন কি এমন কোনও দল রয়েছে যারা ভারতের বিরুদ্ধে জিততে পারে? একটা অনভিজ্ঞ দলের কাছে উড়ে গিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। যদি ওরা জানতে পারত ভারতীয় দলে সুযোগ পেতে তরুণ ক্রিকেটারদের কতটা পথ পেরোতে হয়েছে, তাহলে হয়তো আমাদের খেলোয়াড়দের উপর একটু দয়া দেখাতে পারত।”

Advertisement

এরপরেই ভারতীয় দলের ফিটনেস প্রোগ্রামকে সেনাবাহিনীর গোর্খা রেজিমেন্টের সঙ্গে তুলনা করেছেন তিনি। লিখেছেন, “ভারতীয় ক্রিকেটের তরুণ তারকাদের অনেকটা গোর্খা মিলিটারি ট্রেনিং প্রোগ্রামের মধ্যে দিয়ে আসতে হয়, যা পৃথিবীর কঠিনতম শারীরিক এবং মানসিক পরীক্ষা। সেখানে আমাদের ক্রিকেটাররা সপ্তাহান্তের যোদ্ধা। যেহেতু ক্রিকেট ভারতের প্রধান খেলা, তাই ছোট থেকেই ক্রিকেটাররা চ্যালেঞ্জে অভ্যস্ত হয়ে যায়। রাজ্যগুলির মধ্যে কঠিন লড়াই চলে।”

ইয়ান মনে করেন, চারজন একই পেসারকে প্রতিটা ম্যাচে খেলিয়ে ভুল করেছে অস্ট্রেলিয়া। তাঁর ব্যাখ্যা, “পাঁচ সপ্তাহে চারটি টেস্ট খেলা মানে চার সপ্তাহে চারটি ম্যারাথনে দৌড়নো। সিডনিতে মিচেল স্টার্কের বিধ্বস্ত অবস্থা দেখেই সেটা বোঝা গিয়েছিল।”

Advertisement