Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

অস্ট্রেলিয়া দলে স্মিথ-ওয়ার্নার থাকলেও বড় প্রভাব পড়বে না, বললেন পূজারা

পূজারা মনে করছেন, ভারতের পেস-ত্রয়ী জশপ্রীত বুমরা, ইশান্ত শর্মা এবং মহম্মদ সামি আবার গতবারের মতো ম্যাজিক দেখাতে পারবেন।

সংবাদ সংস্থা
সিডনি ১৬ নভেম্বর ২০২০ ১৮:৪১
Save
Something isn't right! Please refresh.
অনুশীলনে ভারতীয় দল। ছবি-টুইটার।

অনুশীলনে ভারতীয় দল। ছবি-টুইটার।

Popup Close

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রথম টেস্টের আর একমাসও বাকি নেই। কোভিড-পরীক্ষায় পাশ করে টিম ইন্ডিয়া জোরদার প্র্যাক্টিস শুরু করেছে সে দেশে। প্রথম টেস্টের আগে বিরাট কোহালির দলের নির্ভরযোগ্য সদস্য চেতেশ্বর পূজারা মনে করছেন, ফর্মে থাকা স্টিভ স্মিথ বা ডেভিড ওয়ার্নার অস্ট্রেলিয়াকে শক্তিশালী করবেন ঠিকই। তবে ভারতীয় বোলাররা ২০১৮-’১৯ সালের টেস্ট সিরিজ জয়ের পুনরাবৃত্তি করার মতো পারফর্ম করতে পারবেন।

প্রসঙ্গত, সেই সিরিজে পূজারা ৫০০-র বেশি রান করেছিলেন। যার মধ্যে তিনটি সেঞ্চুরি ছিল। যার সৌজন্যে ভারত ২-১ সিরিজ জেতে। ৭১ বছরের ইতিহাসে ভারত সেই প্রথম অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সিরিজ জিতেছিল। তবে সেই সিরিজে স্মিথ এবং ওয়ার্নার খেলেননি। পূজারা বলছেন, ‘‘সন্দেহ নেই, ২০১৮-’১৯ সালের থেকে এ বার ওদের ব্যাটিং লাইন-আপ শক্তিশালী থাকবে। কিন্তু, এটাও মনে রাখতে হবে, সে সময় জয় সহজে আসেনি। বিদেশের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জিততে গেলে সবসময়েই কঠিন লড়াই করতে হয়।’’

একই সঙ্গে পূজারা মনে করছেন, ভারতের পেস-ত্রয়ী জশপ্রীত বুমরা, ইশান্ত শর্মা এবং মহম্মদ সামি আবার গতবারের মতো ম্যাজিক দেখাতে পারবেন। তাঁর বক্তব্য, এই ত্রয়ী এ বারও ভোগাবে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের। পূজারার কথায়, ‘‘স্মিথ-ওয়ার্নার-লাবুসানে বড় ব্যাটসম্যান মানছি। কিন্তু বড় কথা হল, আমাদের এই বোলাররাই কিন্তু আগের সিরিজে খেলেছে। ফলে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে খেলার অভিজ্ঞতা ওদের রয়েছে। তাই স্মিথ, ওয়ার্নার বা লাবুসানে-র উইকেট দ্রুত নেওয়ার ক্ষমতা ওদের রয়েছে।’’

Advertisement


সঙ্গে তাঁর সংযোজন, ‘‘আমাদের বোলাররা এই কাজটা আগেও করেছে। অস্ট্রেলিয়ার উইকেটে কী ভাবে সাফল্য পেতে হয়, ওরা সেটা জানে। ফলে আমি আত্মবিশ্বাসী, আমরা আগেরবারের মতো এ বারও সিরিজ জিতব।’’

আরও পড়ুন: পাওয়ার সার্জ, এক্স ফ্যাক্টর, ব্যাশ বুস্ট! বিগ ব্যাশ মাতাতে আসছে নতুন ৩ নিয়ম

বস্তুত, ১৭ ডিসেম্বর অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টই দিন-রাতের। গোলাপি বলে খেলা হবে এই টেস্ট। গোধূলিলগ্নে গোলাপি কোকাবুরা বলের বিরুদ্ধে ব্যাটিং করা এমনিতেই অনেক বেশি চ্যালেঞ্জের। পূজারার বক্তব্য, ‘‘গোলাপি বলে খেলার চ্যালেঞ্জ হল, এর পেস এবং বাউন্স সম্পূর্ণ অন্যরকম। আমরা অস্ট্রেলিয়ায় গোলাপি কোকাবুরা বলে খেলব (এর আগে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ইডেনে এসজি বলে খেলা হয়েছিল)। তাই সেই অভিজ্ঞতা কিছুটা আলাদা। এর জন্য আলাদাভাবে প্রস্তুতির প্রয়োজন হয়। একটু সময়ও লাগে।’’


নিজের প্রস্তুতি নিয়ে আত্মবিশ্বাসী পূজারা বলছেন, ‘‘গত চার মাস ধরে এই সিরিজের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি। মনে হয়, গতবারের মতোই এ বারও অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে পারফর্ম করতে পারব। নিজেকে যথেষ্ট ফিট রেখেছি। প্র্যাক্টিসে ত্রুটি রাখিনি। ফলে আমি আশাবাদী।’’ সবশেষে পূজারার বক্তব্য, ‘‘দিনের শেষে আমাদের তো দরকার ২০টা উইকেট। আমাদের বোলাররা সেটা নিতে পারবে বলেই আমার দৃঢ় বিশ্বাস।’’




Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement