×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

মোতেরায় ৩ দিনেই টেস্ট জয় কোহালিদের, স্পিনের বিরুদ্ধে অসহায় আত্মসমর্পণ রুটদের

সংবাদ সংস্থা
আমদাবাদ ০৬ মার্চ ২০২১ ০৯:২৭
আজই সিরিজ জিতে নিতে পারবে ভারত?

আজই সিরিজ জিতে নিতে পারবে ভারত?
ছবি: বিসিসিআই

চতুর্থ টেস্ট জয় ভারতের। ৫৪.৫ ওভার | ইংল্যান্ড ১৩৫/১০ | শেষ ইংল্যান্ডের ইনিংস। ৩-১ ব্যবধানে সিরিজ জয় ভারতের। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে পৌঁছে গেল ভারত। জুন মাসে লর্ডসে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবেন বিরাট কোহালিরা।

উইকেট | আউট লরেন্স। ৫ উইকেট অশ্বিনের।

উইকেট | আউট লিচ। ৪ উইকেট নিলেন অশ্বিন। স্লিপে ক্যাচ নিলেন রাহানে।

Advertisement

লরেন্স ৫০* | ইংল্যান্ড দলের হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সফল তিনি। টেস্টে দ্বিতীয় শতরান লরেন্সের।

৫৩ ওভার | ইংল্যান্ড ১৩২/৮ | রুট ফিরলেও লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন লরেন্স। ২৮ রানের মধ্যে ২ উইকেট ফেলতে পারলেই জয় নিশ্চিত ভারতের।

উইকেট | আউট বেস। পঞ্চম উইকেট অক্ষরের। ৩ ম্যাচে চতুর্থ বার এক ইনিংসে ৫ উইকেট নিলেন তিনি।

উইকেট | আউট ফোকস। অক্ষরের বলে ক্যাচ নিলেন রাহানে। নিজেই বুঝতে পারেননি ক্যাচ হয়েছে কি না। তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে আউট হলেন ফোকস।

চা বিরতি। ৩৩ ওভার | ইংল্যান্ড ৯১/৬ | ভারতের থেকে এখনও ৬৯ রানে পিছিয়ে ইংল্যান্ড। আজকেই শেষ হয়ে যেতে পারে চতুর্থ টেস্ট। অশ্বিন এবং অক্ষর নিলেন ৩টি করে উইকেট।

৩০ ওভার | ইংল্যান্ড ৭৮/৬ | ভারতীয় স্পিনারদের সামনে বেশ অস্বস্তিতে ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা। এক দিক আটকে রেখেছিলেন রুট। তাঁকে ফিরিয়ে দিয়েছেন অশ্বিন। দ্বিতীয় সেশনেও ভারতের দাপট।

উইকেট | আউট রুট। ইংল্যান্ডের সব চেয়ে দামি উইকেটটি তুলে নিলেন অশ্বিন। জেতার জন্য ভারতের প্রয়োজন ৪ উইকেট।

উইকেট | আউট পোপ। স্পিনারদের পাল্টা মারের রাস্তা নিতে চেয়েছিলেন তিনি। অক্ষরের বলে স্টাম্প করেন পন্থ। উইকেটের পিছনেও পরিণত হয়ে উঠছেন তিনি।

২০ ওভার | ইংল্যান্ড ৪৮/৪ | ইংরেজ দলের ভরসা অধিনায়ক রুট (২৮ রানে অপরাজিত)। অশ্বিনদের স্পিন সামলাতে অন্য ব্যাটসম্যানরা সমস্যায় পড়লেও ক্রিজে টিকে থাকার চেষ্টা করছেন তিনি। পোপ, রুটের জুটির দিকে তাকিয়ে ইংল্যান্ড।

উইকেট | আউট স্টোকস। ইংল্যান্ডের আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যানকে ফেরালেন অক্ষর।

১০ ওভার | ইংল্যান্ড ২০/৩ | চাপে ইংল্যান্ড। ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা যে পিচে রান করে গেলেন, সেই পিচে ফের স্পিনের আতঙ্ক ইংল্যান্ড শিবিরে।

উইকেট | আউট সিবলি। এ বার উইকেট পেলেন অক্ষর। ভারতীয় স্পিনারদের দাপট মোতেরায়।

উইকেট | আউট বেয়ারস্টো। পর পর ২ বলে ২ উইকেট নিলেন অশ্বিন।

উইকেট | আউট ক্রলি। মধ্যাহ্নভোজ থেকে ফিরেই উইকেট পেল ভারত। ঘাতক অশ্বিন। রাহানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন ইংরেজ ওপেনার।

মধ্যাহ্নভোজ | ৩ ওভার | ইংল্যান্ড ৬/০ | বড় রানের লিড পেল ভারত। ব্যাট করতে নেমে এখনও উইকেট হারায়নি ইংল্যান্ড। শুরুতেই আক্রমণে নিয়ে আসা হল সিরাজ এবং অক্ষরকে।


শেষ ভারতের প্রথম ইনিংস।

১১৪.৪ ওভার | ভারত ৩৬৫/১০ | শতরান পেলেন না ওয়াশিংটন। ৯৬ রানে অপরাজিত থাকতে হল তাঁকে। ভারত এগিয়ে রইল ১৬০ রানে।


উইকেট | আউট সিরাজ। বোল্ড হলেন তিনি।

উইকেট | আউট ইশান্ত। প্রথম বলেই আউট হলেন তিনি। স্টোকসের বলে এলবিডবলু হলেন ইশান্ত। শতরান থেকে ৪ রান দূরে ওয়াশিংটন।

উইকেট | আউট অক্ষর। জুটি ভাঙল ভারতের। রান আউট হলেন অক্ষর। অর্ধ শতরান থেকে মাত্র ৭ রান দূরে থামতে হল তাঁকে। ইংরেজ বোলাররা পারছিলেন না, রান আউট হয়ে উইকেট দিয়ে এল ভারত।

জুটিতে শতরান পার করলেন ওয়াশিংটন এবং অক্ষর।

১১২ ওভার | ভারত ৩৫৭/৭ | ভারতের লিড দেড়শো পার করলেন অক্ষর (৪০ রানে অপরাজিত), ওয়াশিংটন (৯১ রানে অপরাজিত)। তৃতীয় দিন সকালে ইংরেজ বোলাররা কোনও রকম ভাবেই বিপদ তরী করতে পারেননি তাঁদের জন্য। অবলীলায় খেলে চলেছেন ২ তরুণ অলরাউন্ডার।

১০৭ ওভার | ভারত ৩৪২/৭ | ইংরেজ বোলারদের থিতু হতে দিচ্ছেন না ওয়াশিংটন (৮৫ রানে অপরাজিত) এবং অক্ষর (৩৩ রানে অপরাজিত)। ইতিমধ্যেই ১৩৭ রানে লিড পেয়ে গিয়েছে ভারত। ভারতের ২ অলরাউন্ডার গড়ে ফেলেছেন ৫০ রানের জুটিও।

৯৮ ওভার | ভারত ৩০৯/৭ | অ্যান্ডারসনকে দেখে খেললেও, ডোম বেসকে মারতে শুরু করেছেন ওয়াশিংটনরা। বেসকে ছয়ও হাঁকান তিনি।

শুরু তৃতীয় দিনের খেলা।

ইংল্যান্ডের থেকে ইতিমধ্যেই ৮৯ রানে এগিয়ে গিয়েছে ভারত। শনিবার সেই লিড আরও কিছুটা বাড়িয়ে নিতে চাইবেন বিরাট কোহালিরা। সেই আশা নিয়েই ওয়াশিংটন সুন্দর এবং অক্ষর পটেলের দিকে তাকিয়ে থাকবেন সমর্থকরা।

নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে শুক্রবারটা ছিল ঋষভ পন্থের। শুধু ছয় মেরে শতরান করাই নয়, জেমস অ্যান্ডারসনকে রিভার্স সুইপও মারেন পন্থ। ভারতীয় উইকেটরক্ষক দলকে লড়াইয়ের মঞ্চ তৈরি করে দিয়েছেন। এখন সেই মঞ্চ আরও শক্ত করার দায়িত্ব ওয়াশিংটনদের।

ইংল্যান্ডের লক্ষ্য থাকবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভারতের শেষ ৩ উইকেট নেওয়া। প্রথম বল থেকেই অ্যান্ডারসন, বেন স্টোকসরা সেই চেষ্টা করবেন। ব্যাটিং পিচে প্রথম ইনিংসে খুব বেশি দাপট দেখাতে পারেননি জো রুটরা। দ্বিতীয় ইনিংসে কি পারবেন প্রতিরোধ গড়ে তুলতে?


Advertisement