Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ললিতের প্রশংসা ঋষভের মুখে, সতর্ক চেন্নাই পিচ নিয়েও

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২২ এপ্রিল ২০২১ ০৬:৪৩
সাবধানি: এক একটা ম্যাচ ধরে এগোতে চান ঋষভ।

সাবধানি: এক একটা ম্যাচ ধরে এগোতে চান ঋষভ।
ফাইল চিত্র

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের রান তাড়া করতে মঙ্গলবার তাঁর আগে ব্যাট করতে পাঠানো হয়েছিল ললিত যাদবকে। কেন এ রকম সিদ্ধান্ত দিল্লি ক্যাপিটালসের? জবাবটা ম্যাচের পরে দিয়েছেন অধিনায়ক ঋষভ পন্থ।

চেন্নাইয়ে লক্ষ্যটা ছিল ১৩৮ রানের। কায়রন পোলার্ডের বলে স্টিভ স্মিথ এলবিডব্লিউ হওয়ার পরে সকলে ভেবেছিলেন, নামবেন দিল্লির অধিনায়কই। কিন্তু নামেন ললিত। এবং ২৫ বলে ২২ রান করে অপরাজিত থেকে যান। তাঁর দলই জেতে ১৯.১ ওভারে চার উইকেটে জয়ের রান তুলে ফেলে। মুম্বইকে হারিয়ে উঠে ললিতকে ‘অসাধারণ ভারতীয় প্রতিভা’ হিসেবে চিহ্নিত করেন ঋষভ। বলেন, ‘‘আমার মনে হয়েছে ললিত দেশের দুরন্ত এক প্রতিভা। ওকে পুরোপুরি তৈরি করে দেওয়ারই আমরা চেষ্টা করছি। এই ধরনের উইকেটে ও কিন্তু অনেক বিস্ময়কর ইনিংসও খেলতে পারে।’’

ব্যাটের মতোই বল হাতেও সফল দিল্লির অলরাউন্ডার ললিত। তিনি অফস্পিনার। চার ওভারে ১৭ রান দিয়ে একটি উইকেট পেয়েছেন মু্ম্বইয়ের বিরুদ্ধে। শুধু ললিত নন, ঋষভ তাঁর বোলারদের পারফরম্যান্সে খুবই খুশি। বিশেষ করে লেগস্পিনার অমিত মিশ্রের বোলিংয়ে। তাঁর বক্তব্য, অমিতের জন্যই হারানো গিয়েছে শক্তিশালী মুম্বইকে। প্রবীণ এই লেগস্পিনার চার উইকেট নেন। পোলার্ডরা ১৩৭ রানের বেশি তুলতেও পরেননি। অথচ একটা সময় স্কোর ছিল সাত ওভারে দুই উইকেটে ৬৭।

Advertisement

ঋষভের মন্তব্য, ‘‘আসলে শুরুতে আমরা একটু চাপেই ছিলাম। মিশি ভাই (অমিত মিশ্র) আমাদের ম্যাচে ফেরায়। মুম্বইয়ের মতো দলকে আমাদের বোলাররা ১৩৭ রানের বেশি করতে দেয়নি। এমনিতে ম্যাচে রান খুব বেশি ওঠেনি। এই পিচে ব্যাট করা সত্যিই কঠিন ছিল।’’ বোলিংয়ে অমিতকে দারুণ ভাবে সাহায্য করেন ললিত যাদবরাও। আবেশ খান ১৫ রানে দু’উইকেট নেন। ললিত ছাড়া একটি করে উইকেট পান মার্কাস স্টয়নিস ও কাগিসো রাবাডা। পন্থ জানিয়েছেন, তাঁদের লক্ষ্যই ছিল রোহিত শর্মাদের ১৪০ থেকে ১৫০ রানের মধ্যে আটকে রাখা। কারণ তাঁর মনে হয়েছিল, চেন্নাইয়ের উইকেটে একমাত্র ওই রানটাই তাড়া করা সম্ভব ছিল।

ঋষভের কথায়, ‘‘আমার দল সবকিছু সহজ ভাবে করায় বিশ্বাসী। একটা করে ম্যাচ নিয়েই ভাবা হচ্ছে। এই ম্যাচেও ওদের ১৪০ থেকে ১৫০-এর মধ্যে আটকে রাখার চেষ্টা করা হবে আগে থেকেই ঠিক ছিল। জানতাম, একমাত্র সেটা পারলেই এই উইকেটে ওদের রান তাড়া করা যাবে।’’ মুম্বইয়ের রান তাড়া করতে নেমে ব্যাটে আবার সফল শিখর ধওয়ন। তিনি করেন ৪২ বলে ৪৫। স্মিথের (৩৩) সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তোলেন ৫৩ রান। বাকি কাজটা সারেন ললিত, সিমরন হেটমায়াররা। ‘‘প্রথম ম্যাচ থেকে শিখেছি হাতে উইকেট থাকা কতটা দরকার। উইকেট হাতে থাকলে এই পিচেও রান তাড়া করা সম্ভব,’’ বলেছেন ঋষভ।

এ দিকে চেন্নাইয়ে মঙ্গলবার মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ‘সফ্ট সিগনাল’ না থাকার সুবিধেটা পেয়ে গেলেন শিখর ধওয়ন।

আরও পড়ুন

Advertisement