Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

নেহরায় ভরসা রাখছেন যুবরাজ

দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের কাছে ম্যাচ হারলেও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ একটা ব্যাপারে স্বস্তি পেতে পারে। সেটা হল, যুবরাজ সিংহের ফর্মে ফেরা। ৪১ বলে অপরা

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৪ মে ২০১৭ ০৪:০২
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের কাছে ম্যাচ হারলেও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ একটা ব্যাপারে স্বস্তি পেতে পারে। সেটা হল, যুবরাজ সিংহের ফর্মে ফেরা। ৪১ বলে অপরাজিত ৭০ রানের ইনিংস খেলে দলকে জেতাতে না পারলেও সানরাইজার্সের মিডল অর্ডারে ভরসা যোগাচ্ছেন যুবি। নিজের রান পাওয়া নিয়ে এই বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান বলেছেন, ‘‘আমি ক্রিজে বেশি সময় কাটাতে পারছিলাম না। যার জন্য সমস্যায় পড়ে যাচ্ছিলাম।’’

মঙ্গলবার রাতে যুবরাজের ব্যাটিং যতটা দর্শকদের মন কেড়েছে, ততটাই আলোচনায় উঠে এসেছে যুবরাজের স্পোর্টিং স্পিরিট। যখন দেখা যায় ভারতের বিশ্বকাপজয়ী ব্যাটসম্যান মাটিতে বসে তরুণ ঋষভ পন্থের জুতোর ফিতে বেঁধে দিচ্ছেন। যে ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পরে চারদিকে শুধু যুবি-স্তুতি।

নিজের ব্যাটিং নিয়ে যুবরাজ বলেছেন, ‘‘এই ইনিংসটা আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ ছিল। আসলে ক্রিজে সময় কাটানোটা খুব দরকার। তবে কোটলায় প্রথমে ব্যাট করাটা কিন্তু খুব সহজ ছিল না। বল গ্রিপ করছিল, থমকে থমকে আসছিল। আমি তাই ঠিক করে নিয়েছিলাম, শেষ পর্যন্ত খেলব। ১৬ ওভারের পর থেকে বড় শট নেওয়া শুরু করি।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: ট্রায়ালে পাশ করে নয়া সুপারজায়ান্ট

টিম ভাল রান তুললেও দিল্লি ব্যাটিংকে থামাতে পারেনি সানরাইজার্স। কারণ হিসেবে যুবরাজ বলছেন, ‘‘আমার মনে হয়, আমরা প্রথম ৬ ওভারে খুব বেশি রান দিয়ে ফেলেছিলাম। করুণ নায়ারের ক্যাচটাও ফেলে দিই। প্রথম দিকে উইকেট তুলতে পারিনি। এমনকী মাঝের ওভারগুলোতেও উইকেট আসেনি। ওদের ব্যাটসম্যানরা সবাই ৩০-৪০ রান করে গিয়েছে।’’

আশিস নেহরার না থাকাটাও যে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে গিয়েছে, সেটা বলছিলেন যুবরাজ। তাঁর কথায়, ‘‘আমরা ভুবনেশ্বর এবং রশিদ খানের ওপর খুব বেশি নির্ভর করে আছি। এটা সমস্যা হয়ে যাচ্ছে। আশিস নেহরা পুরো ফিট অবস্থায় দলে ফিরলে আমাদের বোলিং আরও শক্তিশালী হয়ে যাবে।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement