Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
ISL 2020

খারাপ সময় কাটছে না ইস্টবেঙ্গলের, এ বার হার হায়দরাবাদের কাছে

৫ ম্যাচ পরেও জয়ের মুখ দেখলেন না রবি ফাওলারের ছেলেরা। 


গোল করলেন কিন্তু ইস্টবেঙ্গলকে জেতাতে পারলেন না মাঘোমা। ছবি-টুইটার।

গোল করলেন কিন্তু ইস্টবেঙ্গলকে জেতাতে পারলেন না মাঘোমা। ছবি-টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৫ ডিসেম্বর ২০২০ ২০:২৫
Share: Save:

হায়দরাবাদ- ৩ ইস্টবেঙ্গল -২

Advertisement

(স্যান্টানা ২, হলিচরণ) (মাঘোমা ২)

খারাপ সময় আর কাটছে না ইস্টবেঙ্গলের। মঙ্গলবার হায়দরাবাদের কাছে ৩-২ গোলে হারল লাল-হলুদ ব্রিগেড। খেলার ২৬ মিনিটে জাক মাঘোমা এগিয়ে দিয়েছিলেন ইস্টবেঙ্গলকে। বিরতির ঠিক আগে পেনাল্টি থেকে সমতা ফেরানোর সুযোগ নষ্ট করেন হায়দরাবাদের স্যান্টানা। বিরতির পরে জ্বলে ওঠেন তিনি। ৫৬ মিনিটে সমতা ফেরান স্যান্টানা। সেই গোলের ৩৫ সেকেন্ডের মধ্যেই নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন হায়দরাবাদের স্ট্রাইকার। ৬৮ মিনিটে হলিচরণ ৩-১ করেন। ৮১ মিনিটে মাঘোমা নিজের দ্বিতীয় গোলটি করে ব্যবধান কমালেও ম্যাচ জেতা সম্ভব হয়নি ইস্টবেঙ্গলের পক্ষে। ৫ ম্যাচ পরেও জয়ের মুখ দেখল না রবি ফাওলারের দল।

টানা ৩ ম্যাচ হারের পরে জামশেদপুরকে থামিয়ে দিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল। ১০ জন নিয়ে সেই ম্যাচ ড্র করে প্রথম পয়েন্ট ঘরে তুলেছিলেন মাঘোমা-পিলকিংটনরা। হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে নামার আগে আত্মবিশ্বাসও বেড়ে গিয়েছিল লাল-হলুদ শিবিরের। মঙ্গলবার এগিয়ে গিয়েও নিজামের শহরের ক্লাবের কাছে শোচনীয় ভাবে হারল ইস্টবেঙ্গল।

Advertisement

খেলার ২৬ মিনিটে মাঘোমা গোল করে এগিয়ে দিয়েছিলেন দলকে। এই মুহূর্তের অপেক্ষাতেই ছিলেন লাল-হলুদ সমর্থকরা। বাঁ দিক থেকে পিলকিংটন বল ধরে পাস বাড়ান ম্যাটি স্টেইনম্যানকে। তাঁর কাছ থেকে বল পেয়ে মাঘোমা বাঁ পায়ে পুশ করেন। সুব্রত পাল তা ধরতে পারেননি। বল জড়ায় হায়দরাবাদের জালে। এ বারের আইএসএলে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে প্রথম গোল করেন মাঘোমা।

আরও পড়ুন: হাবাস পুরো গোয়া দলকেই গুরুত্ব দিচ্ছেন

মাঘোমা দলকে এগি্য়ে দেওয়ার আগে এবং পরে একাধিক বার গোল করার মতো পরিস্থিতি তৈরি করেছিল হায়দরাবাদও। কখনও দেবজিৎ মজুমদার, কখনও অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় সেই সব প্রচেষ্টা। বিরতির ঠিক আগে পেনাল্টি পায় হায়দরাবাদ। মহম্মদ ইয়াসিরকে নিজেদের পেনাল্টি বক্সে ফেলে দেন শেহনাজ সিংহ। স্যান্টানার পেনাল্টি শরীর ছুড়ে বাঁচান দেবজিৎ।

বিরতির পরেই খেলার ছবি বদলে যায়। পেনাল্টি থেকে গোল করতে না পারার প্রায়শ্চিত্ত করেন স্যান্টানা।৫৫ মিনিটে মহম্মদ ইয়াসিরের ফ্রি কিক থেকে মাথা ছুঁইয়ে সমতা ফেরান তিনি। এই গোলের ৩৫ সেকেন্ডের মধ্যেই নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন হায়দরাবাদের স্ট্রাইকার।

গোল হজম করার পরে ইস্টবেঙ্গল ফুটবলারদের দেখে মনে হচ্ছিল কাঁধ ঝুলে গিয়েছে তাঁদের। মাঘোমার পা থেকে বল কেড়ে মহম্মদ ইয়াসির তা বাড়ান লিস্টন কোলাসোকে। লিস্টনের ফাইনাল পাস থেকে ২-১ করে যান স্যান্টানা। ৬৮ মিনিটে ইস্টবেঙ্গলের রক্ষণভাগকে লজ্জায় ফেলে হলিচরণকে দিয়ে গোল করান লিস্টন কোলাসো।

লাল-হলুদের রাইট ব্যাক স্কট নেভিলকে ঠকিয়ে লিস্টন বল বাড়ান হলিচরণকে। ফাঁকা গোলে কেবল বল ঠেলেন তিনি। ৮১ মিনিটে মাঘোমা ব্যবধান কমান। কিন্তু দিনটা যে তাঁর ছিল না। মাথা নীচু করেই মাঠ ছাড়তে হয় তাঁকে এবং তাঁর দলকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.