Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

আইএসএলের ফাইনাল সরছে কলকাতা থেকে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ০৪:০৫
যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন থেকে ফাইনাল সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল আইএসএল কর্তৃপক্ষ।

যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন থেকে ফাইনাল সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল আইএসএল কর্তৃপক্ষ।

অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ ফুটবলে কলকাতার ক্রীড়াপ্রেমীদের উন্মাদনা দেখে ইন্ডিয়ান সুপার লিগ (আইএসএল)-র ফাইনাল যুবভারতীতে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আয়োজকরা। কিন্তু হঠাৎ করেই বদলে গিয়েছে পরিস্থিতি। কলকাতার পরিবর্তে ১৮ মার্চ আইএসএলের ফাইনাল হতে পারে কোচি, বেঙ্গালুরু অথবা চেন্নাইয়ের মধ্যে কোনও একটি শহরে।

কলকাতা থেকে আইএসএলের ফাইনাল সরে যাওয়ার নেপথ্যে দায়ী এটিকে-র ব্যর্থতাও। দু’বারের চ্যাম্পিয়ন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দল এই মরসুমে একেবারেই ছন্দে নেই। দশ দলের আইএসএলে আট নম্বরে কলকাতা। টানা ছ’টি ম্যাচে জয় নেই। দলের এই অবস্থায় মুখ ফিরিয়েছেন সমর্থকরাও। রবিবার মুম্বই সিটি এফসি বনাম এটিকে ম্যাচ দেখতে যুবভারতীর গ্যালারিতে হাজির ছিলেন মাত্র হাজার চারেক দর্শক। যা উদ্বেগ বাড়িয়েছে আইএসএলের কর্তাদের। ইতিমধ্যেই ফাইনালের কেন্দ্র পরিবর্তনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন শীর্ষ কর্তারা।

ফাইনালের নতুন কেন্দ্র হিসেবে কেন দক্ষিণ ভারতেরই তিনটি শহরকে প্রাথমিক ভাবে বেছে নেওয়া হল? আইএসএলের শীর্ষকর্তাদের যুক্তি, এই মুহূর্তে খেতাবি দৌড়ে রয়েছে বেঙ্গালুরু এফসি ও চেন্নাইয়িন সিটি এফসি। লিগ টেবলের পাঁচ নম্বরে থাকলেও শেষ চারে ওঠার সম্ভাবনা যথেষ্ট উজ্জ্বল কেরল ব্লাস্টার্স এফসি-র। শুধু তাই নয়। আত্মবিশ্বাসী আইএসএল কর্তাদের মতে, শেষ পর্যন্ত কেরল খেতাবি দৌড়ে থেকে ছিটকে গেলেও চিন্তিত হওয়ার কারণ নেই। কারণ, ফাইনালে প্রিয় দল না খেললেও কোচির জওহরলাল নেহরু স্টেডিয়াম ভরিয়ে দেবেন কেরলের ফুটবলপ্রেমী জনতা।

Advertisement

এই মরসুমে আইএসএল উদ্বোধন হওয়ার কথা ছিল কলকাতায়। কারণ, গত বছর চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল এটিকে। আইএসএলের নিয়ম অনুযায়ী চ্যাম্পিয়ন দলই পরের মরসুমে উদ্বোধনের দায়িত্ব পায়। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেন আইএমজিআর কর্তারা। কলকাতার পরিবর্তে বেছে নেন কোচিকে। তাঁরা জানিয়েছিলেন, অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ ফুটবলে কলকাতার সাফল্যে তাঁরা অভিভূত। তাই আইএসএলের ফাইনালও কলকাতায় করতে চান। মাত্র কয়েক মাসের মধ্যে যে ছবিটা সম্পূর্ণ বদলে যাবে, সেটা সম্ভবত কল্পনাও করতে পারেননি তাঁরা। কেউ কেউ তো বলেই ফেললেন, ‘‘এই মরসুমে এটিকের যা পারফরম্যান্স, তাতে কলকাতার দর্শকদের হতাশ হয়ে পড়া স্বাভাবিক। শেষ কয়েকটি ম্যাচে গড়ে মাত্র হাজার পাঁচেক দর্শক হয়েছে যুবভারতীতে। এই পরিস্থিতিতে কলকাতায় ফাইনালের আয়োজন করা অত্যন্ত ঝুঁকির। তাই ফাইনালের কেন্দ্র পরিবর্তনের ব্যাপারে ভাবনা-চিন্তা চলছে।’’ যদিও সূত্রের খবর কলকাতা থেকে ফাইনাল স্থানান্তরিত করার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। সপ্তাহখানেকের মধ্যেই সরকারি ভাবে ঘোষণা করা ফাইনালের নতুন কেন্দ্রের নাম।

আরও পড়ুন

Advertisement