Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২

কলঙ্ক মুছে টেনিসে ফের ‘ও মারিয়া’

ডোপ কলঙ্কের ছায়া থেকে মুক্ত হয়ে ফিরে আসার ফের টেনিস দুনিয়ায় যেন ধ্বনি উঠেছে ‘ও মারিয়া’! গ্ল্যামারের কোর্টে এমনিতেই তাঁর কাছাকাছি কেউ নেই। এখন টেনিসের কোর্টেও দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন মারিয়া শারাপোভা।

তৃপ্ত: তৃতীয় রাউন্ডে ওঠার পরে মারিয়া শারাপোভা। ছবি: এএফপি।

তৃপ্ত: তৃতীয় রাউন্ডে ওঠার পরে মারিয়া শারাপোভা। ছবি: এএফপি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ০৩:২৬
Share: Save:

এ বার আর তিনি কাঁদেননি। প্রথম ম্যাচ জিতে খেতাব মুঠোয় নেওয়ার মতো প্রতিক্রিয়া দেখিয়ে কোর্টে শুয়ে পড়েননি। তিনি শুধু হাসলেন, হাত নাড়লেন, পরের রাউন্ডে পৌঁছে গেলেন।

Advertisement

ডোপ কলঙ্কের ছায়া থেকে মুক্ত হয়ে ফিরে আসার ফের টেনিস দুনিয়ায় যেন ধ্বনি উঠেছে ‘ও মারিয়া’! গ্ল্যামারের কোর্টে এমনিতেই তাঁর কাছাকাছি কেউ নেই। এখন টেনিসের কোর্টেও দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন মারিয়া শারাপোভা। কলঙ্কিত অ্যাথলিট কি না, সে সব ভুলে এখন সকলে আবার মারিয়া ম্যানিয়ায় আক্রান্ত। দিনের বেলায় খেলা পড়লে যাঁকে দেখা যাচ্ছে সাদা পোশাকে। রাতে হলে কালো। বিশেষ ধরনের এই কালো পোশাকটি আবার তৈরি করেছেন ইতালির বিখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার রিকার্ডো টিসকি। ক্রিস্টাল এবং লেসের তৈরি বিশেষ এই কালো পোশাক এখন যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের সব চেয়ে আলোচ্য বিষয়। অন্যতম আকর্ষণ।

দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য দিনের খেলা ছিল বলে কালো নয়, সাদা পরে নামলেন শারাপোভা। তাতে অবশ্য তাঁর আত্মবিশ্বাস বা ফর্মে কোনও পরিবর্তন হয়নি। যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে তাঁর ওয়াইল্ড কার্ড পাওয়া নিয়ে যথেষ্ট বিতর্ক হয়েছে। কিন্তু শারাপোভা প্রথম ম্যাচেই দ্বিতীয় বাছাই এবং অন্যতম ফেভারিট সিমোনা হালেপকে উড়িয়ে দিয়ে সমালোচকদের যোগ্য জবাব দিয়েছেন। দ্বিতীয় রাউন্ডে হাঙ্গেরির তিমেয়ো বাবোস-কে হারিয়ে দিলেন ৬-৭ (৪), ৬-৪, ৬-১।

আরও পড়ুন: ব্যাডমিন্টনের দুনিয়াকে শাসন করবে ভারত, মত সিন্ধুর

Advertisement

‘‘প্রথম রাউন্ডে ও রকম একটা ম্যাচ খেলার পরেই ফিরে এসে আবার ভাল খেলাটা বেশ কঠিন। আমার লক্ষ্য ছিল, কাজটা কোনও রকমে সেরে ফেলা,’’ তৃতীয় রাউন্ডে ওঠার পরে বলেছেন শারাপোভা। তাঁর পরের প্রতিপক্ষ সফিয়া কেনিন। যিনি কি না শারাপোভাকে তাঁর প্রিয় খেলোয়াড়দের এক জন বলে বর্ণনা করেছেন। মাশার মতোই রাশিয়ায় জন্ম হওয়ার পরে মার্কিন মুলুকে বসবাসের জন্য পাড়ি দেন কেনিন।

টেনিস দুনিয়ায় অনেকে যখন শারাপোভাকে ওয়াইল্ড কার্ড দেওয়া নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন, তখন কেনিন বলছেন, ‘‘আমি ওঁর দিকে তাকিয়েই বড় হয়েছি, ওঁকে আদর্শ মেনেছি। মাশার সঙ্গে খেলতে পারব ভেবেই আমি রোমাঞ্চিত।’’ মাশার কোন জিনিসটা সব চেয়ে ভাল লাগে? কেনিন বলে দিচ্ছেন, শারাপোভার আক্রমণাত্মক খেলার ভঙ্গি এবং হার-না-মানা মনোভাবের ভক্ত তিনি।

সেরিনা উইলিয়ামস এবং ভিক্টোয়িরা আজারেঙ্কার অনুপস্থিতিতে শারাপোভাই যে যুক্তরাষ্ট্র ওপেনে সেরা আকর্ষণ, তা প্রথম দুই রাউন্ড থেকেই পরিষ্কার। উইম্বলডন বিজয়িনী গারবিনে মুগুরুজা এবং ফাইনালিস্ট ভিনাস উইলিয়ামসও তৃতীয় রাউন্ডে পৌঁছেছেন। ভিনাস এবং মারিয়া মুখোমুখি হতে পারেন সেমিফাইনালে। শারাপোভা বনাম উইলিয়ামস বোনেদের লড়াই— গত এক দশকের উপর মহিলা টেনিসে এটাই সব চেয়ে উপভোগ্য লড়াই!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.