Advertisement
১৮ এপ্রিল ২০২৪
চ্যাম্পিয়নদের উত্‌সব

গ্যালারির মার্টিনা আমার কাছে বাড়তি অনুপ্রেরণা ছিল

প্রশ্ন: এক মার্টিনার (হিঙ্গিস) সঙ্গে খেলে জিতে গ্যালারিতে অন্য মার্টিনার (নাভ্রাতিলোভা) দিকে ‘ফ্লাইং কিস’ দেওয়ার মধ্যে কি কোনও স্পেশ্যাল তাত্‌পর্য আছে? লিয়েন্ডার: মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা আমার প্রেরণা। উনি আজ গ্যালারিতে থাকায়, ফাইনালে বাড়তি অনুপ্রাণিত হয়ে খেলেছি। চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্টটা জেতার পরই দেখলাম, উনি চেয়ার ছেড়ে দাঁড়িয়ে উঠে হাততালি দিচ্ছেন। আমার দিকে ফ্লাইং কিস দিলেন একটা। এত আমাকে স্নেহ করেন! আমিও সঙ্গে সঙ্গে পাল্টা ফ্লাইং কিস দিয়ে ওনাকে সশ্রদ্ধ প্রত্যুত্তর দিলাম। এটা আমার প্রেরণার প্রতি আমার ভালবাসা, শ্রদ্ধা, কৃতজ্ঞতা— যা ইচ্ছে সেটাই বলতে পারেন।

কোর্টে লিয়েন্ডার-মার্টিনা। ছবি: এএফপি

কোর্টে লিয়েন্ডার-মার্টিনা। ছবি: এএফপি

সুপ্রিয় মুখোপাধ্যায়
কলকাতা শেষ আপডেট: ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ ০২:১৬
Share: Save:

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতেই পরবর্তী লক্ষ্য স্থির করে ফেললেন। রবিবার কেরিয়ারের পনেরোতম গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতার পরে মেলবোর্ন থেকে আনন্দবাজারকে একান্ত সাক্ষাত্‌কার দিলেন ৪১ বছরের ‘যুবক’ লিয়েন্ডার পেজ।


প্রশ্ন: এক মার্টিনার (হিঙ্গিস) সঙ্গে খেলে জিতে গ্যালারিতে অন্য মার্টিনার (নাভ্রাতিলোভা) দিকে ‘ফ্লাইং কিস’ দেওয়ার মধ্যে কি কোনও স্পেশ্যাল তাত্‌পর্য আছে?
লিয়েন্ডার: মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা আমার প্রেরণা। উনি আজ গ্যালারিতে থাকায়, ফাইনালে বাড়তি অনুপ্রাণিত হয়ে খেলেছি। চ্যাম্পিয়নশিপ পয়েন্টটা জেতার পরই দেখলাম, উনি চেয়ার ছেড়ে দাঁড়িয়ে উঠে হাততালি দিচ্ছেন। আমার দিকে ফ্লাইং কিস দিলেন একটা। এত আমাকে স্নেহ করেন! আমিও সঙ্গে সঙ্গে পাল্টা ফ্লাইং কিস দিয়ে ওনাকে সশ্রদ্ধ প্রত্যুত্তর দিলাম। এটা আমার প্রেরণার প্রতি আমার ভালবাসা, শ্রদ্ধা, কৃতজ্ঞতা— যা ইচ্ছে সেটাই বলতে পারেন।

প্র: নতুন বছরের প্রথম চার-পাঁচ সপ্তাহের মধ্যেই একটা গ্র্যান্ড স্ল্যাম, একটা এটিপি ডাবলস খেতাব, অন্যটায় ফাইনালিস্ট। একচল্লিশের লিয়েন্ডার পেজের বয়সকে উড়িয়ে দিয়ে এই দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের রহস্য কী?
লিয়েন্ডার: আমি আগে বহু বার বলেছি, আবার আজ বলছি, বয়স একটা সংখ্যা মাত্র। আপনি যদি বুড়ো হয়ে গিয়েছি ভাবেন, তা হলে সেটা একচল্লিশে কেন, একত্রিশেও ভাবতে পারেন। আবার না ভাবলে, হয়তো একান্নতেও ভাববেন না।


উচ্ছ্বসিত। গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের পরে লিয়েন্ডার-মার্টিনা। ছবি: গেটি ইমেজেস

প্র: তা হলে কি একান্নতেও খেলে হয়তো বা জিতে নাভ্রাতিলোভার উনপঞ্চাশে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতার রেকর্ড ভাঙতে চাইছেন?
লিয়েন্ডার: একান্ন অনেক দূর। আপাতত এটুকু বলতে পারি, ২০১৬ রিও অলিম্পিক খেলব। ওটা আমার সাত নম্বর অলিম্পিক হবে। যা আমাদের দেশে কোনও খেলায় কোনও খেলোয়াড়ের নেই। তবে শুধু সংখ্যা বাড়ানোর জন্য রিওতে অলিম্পিক খেলব না। পদক জেতার জন্যও খেলব। সেটাই আমার পরের লক্ষ্য।

প্র: বছরের শুরুতেই গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতাটা কি বাড়তি মোটিভেশন দেবে অলিম্পিকের আগে?
লিয়েন্ডার: মোটিভেশনের আরও অনেকগুলো কারণ আছে। গত বছর প্রায় ছ’মাস নানা সমস্যায় কোর্টের বাইরে ছিলাম। ফলে এ বার খিদেটা নতুন করে বেড়েছে। তা ছাড়া আমি বরাবরের প্রচণ্ড লড়াকু। ছাড়ার পাত্র নই। তাই পারিবারিক সমস্যাকে এই মুহূর্তে মন থেকে সরিয়ে রেখে আবার সম্পূর্ণ একমনা হয়ে খেলতে পারছি। আর সেটা করার জন্য গত বছরের শেষের দিক থেকে আমার ট্রেনিং শিডিউল, যোগ ব্যায়াম, ডায়েটিং— সবেতেই কিছু পরিবর্তন এসেছে। তবে কোর্টে মনঃসংযোগ বাড়ানোর জন্য দাবা খেলছি। আমার কোচ-ম্যানেজার-সাপোর্ট টিমের সবাইকে এর জন্য ধন্যবাদ। হিঙ্গিসের সঙ্গে আমার জুটিকে ওরাই তৈরি করেছে। ওয়ার্ল্ড টিম টেনিসে ওয়াশিংটন ক্যাসলস টিমের হয়ে খেলার থেকে।

প্র: ফাইনাল শেষে ডোপিং সেন্টারে পরীক্ষা দেওয়ার ডাক পড়েছিল নাকি?
লিয়েন্ডার: না। মুম্বই থেকে বাবাও (ভেস পেজ) ফোনে এটা জিজ্ঞেস করছিলেন। আসলে একচল্লিশেও গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতছি তো!


লকার রুমে ট্রফি নিয়ে টিম জকোভিচ। ছবি: এএফপি

প্র: সিনিয়র পেজ কী বললেন?
লিয়েন্ডার: বাবা একটা খুব সুন্দর কথা বলেছে— পরের পয়েন্টটা জেতার চেষ্টা শুরু করে দাও। আসলে গত বছর নানা কারণে আমার ডাবলস র্যাঙ্কিংটা অনেক নেমে গিয়েছে। এটিপি ডাবলসে সেটা আবার অনেক উপরের দিকে তোলার চেষ্টাও এখন খুব গুরুত্বপূর্ণ। কাল রাতে (মঙ্গলবার ভোর রাত) মুম্বই ফিরছি। দু’এক দিন কাটিয়ে ইউরোপের দু’টো টুর্নামেন্ট খেলতে বেরিয়ে যাব। হয়তো পরের সোমবারই আমাকে মার্সেই-এ দেখবেন, তারপর আমেরিকান হার্ড কোর্ট সার্কিটে তিনটে টুর্নামেন্ট খেলব।

প্র: আপাতত আজ রাতে সেলিব্রেশনটা কীভাবে করবেন?
লিয়েন্ডার: খুব সিম্পল। হিঙ্গিস আর ওর বয়ফ্রেন্ডকে নিয়ে কোনও ভাল জায়গায় ডিনার করব। আমার সাপোর্ট স্টাফও থাকবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE