×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ জুন ২০২১ ই-পেপার

ফেড কাপ এ বার দশ দলের

ইস্টবেঙ্গলের তুলনায় কঠিন গ্রুপে বাগান

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০৩:২৩

ফেড কাপে কি আবার মুখোমুখি হবেন সুভাষ ভৌমিক-আর্মান্দো কোলাসো?

সোনি নর্দি বনাম ডুডু ওমাগবেমি, র‌্যান্টি মার্টিন্স বনাম পিয়ের বোয়াদের ডুয়েল কি দেখা যাবে গোয়ায়?

কলকাতার দুই প্রধান ইস্টবেঙ্গল এবং মোহনবাগান গ্রুপ লিগের গণ্ডি টপকালেই এই ‘যুদ্ধ’গুলো হয়তো দেখা যাবে। শেষ চারের লড়াইতে অথবা ফাইনালে।

Advertisement

ফেড কাপের যে সূচি বৃহস্পতিবার প্রকাশ করেছে ফেডারেশন, তাতে কলকাতার দু’প্রধান আলাদা আলাদা গ্রুপে রয়েছে। র‌্যান্টি-ডুডুরা রয়েছেন ‘এ’ গ্রুপে। আর কাতসুমিরা খেলবেন গ্রুপ- ‘বি’-তে। ফলে দু’দল যদি নক আউট পর্বে ওঠে তা হলেই আরও একটা ডার্বি হওয়ার সম্ভবনা থেকে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার দিল্লির ফুটবল হাউসে ফেড কাপের ড্র হয়। সেই ড্র-এর পর দেখা যাচ্ছে ইস্টবেঙ্গলের গ্রুপে ডেম্পো ছাড়াও রয়েছে মুম্বই এফসি, স্পোর্টিং ক্লুব, রয়্যাল ওয়াহিংডো। গ্রুপ-এ-র সব খেলা হবে মারগাওয়ের নেহরু স্টেডিয়ামে। ইস্টবেঙ্গলের তুলনায় শক্ত গ্রুপে রয়েছেন কাতসুমিরা। গত বারের আই লিগ চ্যাম্পিয়ন সুনীল ছেত্রীদের বেঙ্গালুরু এফসি, সালগাওকর, পুণে এফসি, শিলং লাজং এফসিরা রয়েছে মোহনবাগানের গ্রুপে। গ্রুপ-‘বি’র খেলাগুলো হবে ভাস্কোর তিলক ময়দানে। দু’টি সেমিফাইনাল ৮ জানুয়ারি। ফাইনাল ১০ জানুয়ারি। সেমিফাইনাল ও ফাইনাল হবে মারগাওতেই।

ফেড কাপের আগে মোহনবাগানের মতো ইস্টবেঙ্গল অবশ্য মাঝে সিকিম গোল্ড কাপে অংশ নিচ্ছে না। র‌্যান্টিরা তাই আবার প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ খেলতে নামবেন ডিসেম্বরের শেষে। ফেড কাপে ইস্টবেঙ্গলের প্রথম ম্যাচ ২৯ ডিসেম্বর। প্রতিপক্ষ গোয়ার ডেম্পো। মোহনবাগান নামবে লাল-হলুদের ঠিক এক দিন পর। ৩০ ডিসেম্বর। বেঙ্গালুরু এফসির বিরুদ্ধে।



কলকাতা লিগের পর আর্মান্দো কোলাসো পুরো টিমকে এক মাসের ছুটি দিয়েছেন। ফের প্র‌্যাকটিস শুরু হবে ১৬ অক্টোবর। ফেড কাপের প্রস্তুতির জন্য অনেকটা সময় পাওয়া যাবে বলেই মনে করছেন লাল-হলুদের গোয়ান কোচ। এ দিন সূচি প্রকাশিত হওয়ার পর তাঁর সঙ্গে গোয়ায় যোগাযোগ করা হলে বললেন, “ফেড কাপের সূচি কী হয়েছে এখনও ঠিক জানি না। তবে আইএসএলের পর এত কম সময়ের মধ্যে ফেড কাপ হলে সব দলেরই সমস্যা হবে। আমার দলের অধিকাংশ ফুটবলারই বিভিন্ন দলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। জানি না তারা কী অবস্থায় থাকবে!” মোহনবাগানের টিডি সুভাষ ভৌমিক কথা বলছেন না। কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী বললেন, “যে গ্রুপেই পড়ি না কেন, সেরাটা দিয়েই খেলতে হবে। সহজ-কঠিন গ্রুপ ভেবে লাভ নেই। এই দলগুলোর সঙ্গেই তো আই লিগে খেলব। তবে এখন সিকিম গোল্ড কাপেই আমরা ফোকাস করে আছি।”

আইএসএলের জন্য প্রতিবারের মতো এ বার আর ফেড কাপের প্রাথমিক পর্ব হচ্ছে না। বরাবরই যোগ্যতানির্ণায়ক পর্ব থেকে দু’টি দল ফেড কাপের মূল পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। এ বার সেটা না হওয়ার কারণ সময়। তাই আই লিগে খেলা দলগুলি নিয়েই এ বার ‘সংক্ষিপ্ত’ ফেড কাপ হচ্ছে। তাও আবার পুণের নতুন ফ্রাঞ্চাইজি দল ফেড কাপে অংশ নেবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। কারণ তাদের টিম তৈরি করতে আরও কিছু দিন সময় লাগবে। তাই ফেড কাপ দশ দলের হচ্ছে। ফেড কাপের দায়িত্বে থাকা ফেডারেশন কর্তা অনিল কামাথ দিল্লি থেকে ফোনে বললেন, “আইএসএলের জন্য সময় কম। তাই আমাদের সূচি ছোট করতে হয়েছে। সে জন্যই প্রাথমিক পর্বের খেলা বাদ দিতে হয়েছে।”

Advertisement