Advertisement
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সোনার মার্কির হ্যাটট্রিকে উড়ে গেল সচিনের দল

হ্যাটট্রিক করার পরই দৌড়ে গেলেন গ্যালারির দিকে, যেখানে বসেছিলেন তাঁর স্ত্রী পাজ। সঙ্গে ছিল দশ মাসের ছেলে মার্টিন। হাতে সেই পরিচিত ‘পি’ সাইন। এই হ্যাটট্রিক যে তিনি স্ত্রীকেই উৎসর্গ করলেন, সেটাই বুঝিয়ে দিলেন উরুগুয়ের তারকা ফুটবলার দিয়েগো ফোরলান।

হ্যাটট্রিকের নায়ক দিয়েগো ফোরলান। শনিবার। ছবি:আইএসএল।

হ্যাটট্রিকের নায়ক দিয়েগো ফোরলান। শনিবার। ছবি:আইএসএল।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৬ ০৩:২০
Share: Save:

হ্যাটট্রিক করার পরই দৌড়ে গেলেন গ্যালারির দিকে, যেখানে বসেছিলেন তাঁর স্ত্রী পাজ। সঙ্গে ছিল দশ মাসের ছেলে মার্টিন। হাতে সেই পরিচিত ‘পি’ সাইন। এই হ্যাটট্রিক যে তিনি স্ত্রীকেই উৎসর্গ করলেন, সেটাই বুঝিয়ে দিলেন উরুগুয়ের তারকা ফুটবলার দিয়েগো ফোরলান।

Advertisement

ফোরলানের হ্যাটট্রিকের সৌজন্যে মুম্বইও প্রায় শেষ চারে পৌঁছে গেল। ১২ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট এখন ১৯। দিল্লিকে টপকে এ দিন শীর্ষে উঠে গেল রণবীর কপূরের টিম।

আসলে তারকাদের জার্সি বদলালেও জাত বদলায় না। ভারতে আইএসএল খেলতে এসে সেটাই যেন প্রমাণ করে দিলেন বিশ্বকাপে সোনার বল জয়ী ফোরলান। টুর্নামেন্টের শুরুর দিকে চোট নিয়ে কিছুটা সমস্যায় পড়েছিলেন। কিন্তু আইএসএল যত গড়াচ্ছে, ফোরলানও যেন তত নিজের খোলস ছেড়ে বেরোচ্ছেন। আইএসএলে বয়স্ক মার্কিদের ফর্ম নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে। ৩৭ বছরের ফুটবলার যেন একাই তার জবাব দিয়ে গেলেন এ দিন।

ম্যাচের একেবারে শুরু থেকে কেরলের ডিফেন্ডারদের কার্যত দাঁড় করিয়ে রেখে একের পর এক গোল করে গেলেন। দর্শক হয়ে কপাল চাপড়ানো ছাড়া আর কোনও সুযোগই ছিল না সন্দেশ ঝিঙ্গানদের।

Advertisement

বিরতির আগেই ২-০ মুম্বইকে এগিয়ে দেন ফোরলান। ফ্রি-কিক থেকে দ্বিতীয় গোলটি তো চোখ ধাঁধানো। দুই বনাম তিন নম্বর দলের ম্যাচকে একেবারে একপেশে করে দেন ফোরলান একাই। কারণ তৃতীয় গোলটিও যে তাঁরই করা। যদিও এই গোলটির জন্য দায়ী কেরলের ভাঙাচোরা রক্ষণ। তবে ম্যাচের শুরু থেকে এ দিন ফোরলান যে ভাবে কেরলে কাঁপুনি ধরিয়ে দেন, তাতে দক্ষিণ ভারতীয় টিমের ডিফেন্ডারদের খুব বেশি কিছু করার ছিল না। আইএসএল-‘থ্রি’-র প্রথম হ্যাটট্রিক আসল একেবারে যোগ্য লোকের হাত ধরেই। ফোরলান অবশ্য তাঁর এই হ্যাটট্রিককে গুরুত্ব দেওয়ার বদলে নিজের টিমের পারফরম্যান্স নিয়ে বেশি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন। ম্যাচের পর তিনি বলে দেন, ‘‘আমার হ্যাটট্রিকটা বড় কথা নয়। বরং টিম জিতেছে এটাই আসল। সবাই নিজেদের সেরাটা দিয়েছে বলেই এই জয় এসেছে। আগের দু’টো ম্যাচে আমরা পয়েন্ট নষ্ট করেছি। তাই এই জয়টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল আমাদের কাছে।’’ এর আগের দু’টি ম্যাচের মধ্যে পুণের কাছে হেরেছিল এবং গোয়ার সঙ্গে ড্র করে মুম্বই।

এ দিন হ্যাটট্রিকের পরই ফোরলানকে তুলে নেন কোচ অলেক্সজান্দ্রে গুইমারেস। না হলে উরুগুয়ের স্ট্রাইকার যে কোথায় শেষ করতেন কে জানে! চলতি আইএসএলে ফোরলান মোট পাঁচ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় ঢুকে পড়লেন এ দিন। যেখানে আগে থেকেই রয়েছে ইয়ান হিউম, এমিলিয়ানো আলফারো, মার্সেলো পেরেইরা। সবারই এখন পাঁচ গোল। এ দিন এত সাফল্যের পরেও ফোরলান অবশ্য কেরল ম্যাচ নিয়ে আর ভাবতে রাজি নন। বরং তাঁর দাবি, ‘‘আমরা এখনও সেমিফাইনালে উঠিনি। টিমগুলোর যা অবস্থা তাতে যে কোনও সময়ে যে কোনও অঘটন ঘটতে পারে। তাই এর পরের চেন্নাই ম্যাচ নিয়ে আমরা ভাবতে চাই। সেই ম্যাচেও জিততে হবে আমাদের। তাই হালকা দেওয়ার কোনও জায়গা নেই।’’

এ দিন ফোরলানের পাশে নজর কেড়েছেন মুম্বইয়ের ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার কাফু। তিনি এ দিন শুধু চতুর্থ গোলটি করেননি, ফোরলানের হ্যাটট্রিকের গোলটি করিয়েছেনও। মুম্বইয়ের শেষ গোলটি করেছেন রোমানিয়ার ডিফেন্ডার লুসিয়ান। এ দিনের ম্যাচ হেরে কেরল তিন থেকে চারে নেমে গেল। আর তিনে উঠে এল আন্তোনিও হাবাসের পুণে। দুই দলেরই ১১ ম্যাচ খেলে ১৫ পয়েন্ট। গোল পার্থক্যে পিছিয়ে গেল সচিন তেন্ডুলকরের টিম। তবে টিমের ব্যর্থতার দিনে কিন্তু একেবারেই ভেঙে পড়েননি মাস্টার ব্লাস্টার। বরং দলকে উজ্জীবিত করতে তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘‘চিন্তা করো না। এ রকম ওঠা-পড়া জীবনেরই অঙ্গ। এখন আমাদের সব ভুলে সামনে দিকে তাকাতে হবে। ওয়েল প্লেড।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.