Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

কিছু করার নেই, সবুজ উইকেটেই খেলতে হবে

রাজীব ঘোষ
কলকাতা ১১ নভেম্বর ২০১৪ ০২:৫৭

বঙ্গ ক্রিকেটে এখন তুমুল বিতর্কের বিষয় বিজয় হাজারে ট্রফির গ্রিন টপ উইকেট। যা নিয়ে ক্ষুব্ধ বাংলা টিমও। এই সবুজ পিচ যাঁর মস্তিষ্কপ্রসূত, সেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় কী বলছেন? সোমবার হায়দরাবাদ থেকে কলকাতা ফেরার বিমানে পাওয়া গেল খোলামেলা সিএবি যুগ্মসচিবকে।

প্রশ্ন: বাংলা তো শুরু করল জয় দিয়ে। সারা মরসুম এই সাফল্য ধরে রাখতে পারবে তো?
সৌরভ: কেন নয়? টিমটা তো ভাল। তা হলে খারাপ হবে কেন?

প্র: কিন্তু শুরু থেকেই তো সবুজ উইকেট নিয়ে আপত্তি বাংলার ক্রিকেটারদের।
সৌরভ: কিচ্ছু করার নেই। আপত্তি থাকলেও ওদের গ্রিনটপেই খেলতে হবে। এই ব্যাপারে কোনও আপস করা যাবে না। না হলে ওরা অন্য জায়গায় গিয়ে ভাল খেলতে পারবে না। মুম্বই, বেঙ্গালুরুতে গিয়ে ওদের এই ধরনের উইকেটেই খেলতে হবে। তখন তো বিপদে পড়ে যাবে। সে জন্যই ঘরের মাঠেই সবুজ উইকেটে খেলা অভ্যাস করা দরকার। রঞ্জি ট্রফিতেও একই রকম উইকেটে খেলতে হবে আমাদের ছেলেদের।

প্র: কিন্তু অনভ্যস্ত সবুজ উইকেটে নামলে যদি ফল খুব খারাপ হয়?
সৌরভ: মনে হয় না। প্রথম ম্যাচেই তো দেখলেন কেমন জিতল দলটা। আমি বলছি, এ রকম উইকেটে ওরা সব ম্যাচে জিতবে। কয়েকটা ম্যাচে খেলে অভ্যাসটা শুধু হয়ে যেতে দিন। একটু সময় তো দিতেই হবে।

প্র: কিন্তু এমন উইকেটে ব্যর্থ হলে ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাস তলানিতে চলে যাবে না তো?
সৌরভ: শ্রীবত্‌স তো এই উইকেটেই সেঞ্চুরি করল। ম্যাচের পর আমাকে ফোন করেছিল ধন্যবাদ দেওয়ার জন্য। ওকে বললাম, এই খেলাটা খেলে যা। দেখবি এতে আত্মবিশ্বাসও চড়চড় করে বাড়বে। এ রকম উইকেটে ব্যাট করে অভ্যাস হয়ে গেলে পরে যে কোনও উইকেটে খেলতে পারবে। কিন্তু পাটা উইকেটে খেলার অভ্যাস হয়ে গেলে গ্রিনটপে খেলা কঠিন হয়ে যাবে। তখনই বরং ফল খারাপ হবে। অজিঙ্ক রাহানে কেন এত ভাল ব্যাটসম্যান জানেন? ওয়াংখেড়েতে সকালে বল প্রচণ্ড নড়াচড়া করে। এমন উইকেটে ওপেন করে ওর ব্যাটিং স্কিল এত ভাল হয়েছে। আমাদের ব্যাটসম্যানরাই বা পারবে না কেন?

প্র: কিন্তু সিএবি-তে আপনার এই সিদ্ধান্ত নিয়ে অনেকের আপত্তি আছে।
সৌরভ: সে থাক। প্রথম প্রথম এ রকম হয়। যখন দেখবেন সব ঠিক হয়ে গিয়েছে, ভাল ফল পাওয়া যাচ্ছে, তখন সবার মুখ বন্ধ হয়ে যাবে। আমি তো জানি এতে ভাল হবেই। তাই কে কী বলছে, তা নিয়ে ভাবছি না।

প্র: ম্যাটিং উইকেটে এ এন ঘোষ ট্রফি হওয়া নিয়েও অনেক আলোচনা হয়েছে।
সৌরভ: কর্নাটক, মুম্বইয়ে গিয়ে দেখুন ম্যাটিং উইকেটে কত টুর্নামেন্ট হয়। এতে ব্যাটসম্যানদের ব্যাকফুট মুভমেন্ট খুব ভাল হয়। আমাদের ব্যাটসম্যানদেরও হবে। সেই ভেবেই এটা করা। তা ছাড়া স্লিপ ফিল্ডার বাধ্যতামূলক এবং ওভারে লেগ স্টাম্পের বাইরে দুটোর বেশি বল করলে পেনাল্টি হবে। এতে বোলারদের অফ স্টাম্পে বল করার প্রবণতাও বাড়বে। এর পর ইন্ডোরটা ঠিক করে নিলে আমাদের ছেলেরা আরও ভাল প্র্যাকটিস পাবে। এটাও খুব দরকার।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement