Advertisement
২৫ মে ২০২৪
Novak Djokovic

রাশিয়ার পতাকা হাতে জোকোভিচের বাবা, পুতিনকে সমর্থন! খেসারত দিতে হতে পারে জোকারকে

বাবার জন্য শাস্তির মুখে পড়তে পারেন নোভাক জোকোভিচ। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন চলাকালীন রাশিয়া ও পুতিনের সমর্থনে মিছিলে করেছেন জোকোভিচের বাবা। সেটা নিয়েই বিতর্ক ছড়িয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সেমিফাইনালে উঠেছেন জোকোভিচ। কিন্তু তার পরেও শাস্তির মুখে পড়তে পারেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সেমিফাইনালে উঠেছেন জোকোভিচ। কিন্তু তার পরেও শাস্তির মুখে পড়তে পারেন তিনি। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৬ জানুয়ারি ২০২৩ ২২:৪৪
Share: Save:

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সেমিফাইনালে উঠেছেন নোভাক জোকোভিড। আরও একটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয় থেকে মাত্র দু’কদম দূরে। কিন্তু এর মধ্যেই আবার বিতর্কে তিনি। এ বার অবশ্য বিতর্কের জন্য জোকোভিচ দায়ী নন। দায়ী তাঁর বাবা স্যরজন। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন চলাকালীন ‘নিষিদ্ধ’ রাশিয়ার পতাকা নিয়ে মিছিল করেছেন তিনি। সমর্থন করেছেন ভ্রাদিমির পুতিনকে। তার খেসারত দিতে হতে পারে জোকোভিচকে। কড়া শাস্তির মুখে পড়তে পারেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে কোয়ার্টার ফাইনালে আন্দ্রে রুবলেভের বিরুদ্ধে জোকোভিচের খেলার পরে। রুবলেভ নিজেও রাশিয়ার খেলোয়াড়। কিন্তু ইউক্রেনের উপর হামলার জন্য অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে নির্বাসিত রাশিয়া। সে দেশের টেনিস খেলোয়াড়রা কোনও দেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন না। রুবলেভকে হারিয়ে জোকোভিচ সেমিফাইনালে ওঠার পরে রড লেভার এরিনার বাইরে স্যরজনকে দেখা গিয়েছে পুতিনের সমর্থনে স্লোগান দিতে।

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, রড লেভার এরিনার বাইরে কয়েক জনকে মিছিল করতে দেখা গিয়েছে। তাঁদের হাতে রাশিয়ার পতাকা ছিল। তাতে পুতিনরও ছবি ছিল। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কর্তৃপক্ষ কারও নাম না নিলেও স্যরজনকে একাধিক ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে। জোকোভিচের বাবা হিসাবে পরিচিত মুখ তিনি। মিছিলে তাঁর থাকার কথা স্বীকার করে নিয়েছে সার্বিয়ার টেনিস সংস্থা। এমনকি তিনি যে পুতিনের সমর্থনে স্লোগান দিচ্ছিলেন, সে কথাও স্বীকার করেছে তারা।

রাশিয়া ও বেলারুশের পতাকা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের কোনও খেলায় ঢোকা নিষিদ্ধ। তার মধ্যেই এই মিছিলে যথেষ্ট অস্বস্তিতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কর্তৃপক্ষ। তখনকার মতো প্রতিযোগিতার দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তারক্ষীরা বিষয়টি সামলেছেন। কিন্তু ভবিষ্যতে আবার এই ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। তাই প্রতিটি কোর্টের বাইরে নিরাপত্তা বাড়ানো হচ্ছে।

এই ঘটনার কড়া সমালোচনা করেছেন অস্ট্রেলিয়ায় থাকা ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ভ্যাসিল মিরোশনিচেঙ্কো। তিনি অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছেন, কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার। তার পরেই কিছুটা সংশয় তৈরি হয়েছে জোকোভিচকে নিয়ে। এই পরিস্থিতিতে বাবার জন্য শাস্তির মুখে পড়তে পারেন তিনি।

গত বার কোভিড টিকা না নেওয়ায় অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে পারেননি জোকোভিচ। মেলবোর্নে পা দেওয়ার পরে তাঁকে আটক করে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছিল। এ বার অবশ্য তাঁর খেলায় কোনও সমস্যা হয়নি। চোট সামলেও ভাল খেলছিলেন জোকার। একের পর এক ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে উঠেছেন তিনি। ২২তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম ও ১০ নম্বর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জেতার কাছে পৌঁছে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে বাবার কারণে চাপে জোকোভিচ। এখন দেখার অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যবস্থা নেন কি না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE