×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ মে ২০২১ ই-পেপার

কোহালি, রোহিতরা মানসিক রোগে আক্রান্ত হতে পারেন, বলছেন সৌরভদের সেই মনোবিদ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ৩০ জানুয়ারি ২০২১ ১১:৪৪
বিরাট কোহালি, রোহিত শর্মারা মানসিক রোগে আক্রান্ত হতে পারেন।

বিরাট কোহালি, রোহিত শর্মারা মানসিক রোগে আক্রান্ত হতে পারেন।
ছবি: পিটিআই

মারাত্মক আশঙ্কার কথা মনে করিয়ে দিলেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন মনোবিদ ও কন্ডিশনিং কোচ প্যাডি আপ্টন। তাঁর মতে, জৈব বলয়ের মধ্যে বেশিদিন থাকলে বিরাট কোহালি, রোহিত শর্মারা মানসিক রোগে আক্রান্ত হতে পারেন।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড এবং বিশ্বের অন্যান্য ক্রীড়া সংস্থাগুলির কাছে একটি অনুরোধ রেখেছেন এই দক্ষিণ আফ্রিকান। তিনি মনে করছেন, জৈব বলয়ের মধ্যে কীভাবে খেলোয়াড়রা জীবনযাপন করছেন সেই বিষয়ে সেই দেশের ক্রীড়া আধিকারিকদের পুরো তথ্য রাখা উচিত। কোনও ক্রীড়াবিদ অসুস্থ হয়ে পড়লে যেন দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া যায়।

করোনা পরবর্তী পর্যায়ে অনেক মাস ধরে জৈব বলয়ের মধ্যে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন খেলোয়াড়রা। আপ্টনের বক্তব্য, “জৈব বলয়ের মধ্যে থাকার সময় খেলোয়াড়রা কী কী সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে, সেটা নিয়ে যথেষ্ট মাথা ঘামানো হচ্ছে না। ফলে কেউ যদি বলয়ের মধ্যে মাসের পর মাস থাকার জন্য মানসিক রোগে আক্রান্ত হয়, তাহলে তাদের চিকিৎসার জন্য সঠিক ওষুধ দেওয়া বেশ কঠিন হয়ে যাবে।”

Advertisement

জৈব বলয়ে দীর্ঘ সময় কাটানোর জন্য ক্রীড়াবিদরা হাঁপিয়ে উঠছেন। সদ্য সমাপ্ত অস্ট্রেলিয়া সফরে বিরাট কোহালি, অজিঙ্ক রাহানেরা এই নিয়ে প্রশ্নও তুলেছিলেন। বিতর্কও হয়েছিল। সেই প্রসঙ্গে আপ্টন বলেন, “হোটেল থেকে মাঠ, মাঠ থেকে হোটেল, এটাই তো নতুন পৃথিবী। খেলোয়াড়দের এটার সঙ্গে মানিয়ে নিতে অনেকটা সময় লাগবে। মাসের পর মাস বহির্জগৎ থেকেও সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন থাকার জন্য তাদের মনে বিরক্তি আসা খুবই স্বাভাবিক। এরপর খেলোয়াড়রা মাঠে নেমে ভাল খেলতে না পারলে সমস্যাটা আরও বড় হয়ে যায়।”

তরুণ ক্রিকেটারদের রাহুল দ্রাবিড়ের মতো ব্যক্তিত্বের সান্নিধ্যে আসার পরামর্শ দিচ্ছেন তিনি। ভারতের জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির ডিরেক্টর সম্পর্কে আপ্টনের প্রতিক্রিয়া, “রাহুল খুব লড়াকু মানসিকতার ক্রিকেটার। তাই জুনিয়রদের উচিত ওঁর সঙ্গে আলোচনা করা।”

Advertisement