Advertisement
২৭ নভেম্বর ২০২২
Rafael Nadal

ঠান্ডা মাথায় জীবন নিয়ে ভাবতে চাইছেন নাদাল, ফেডেরারের পর তিনিও কি বিদায় জানাবেন টেনিসকে

পেশাগত জীবন ক্ষতি করছে ব্যক্তিগত জীবনের। পায়ের সঙ্গে যোগ হয়েছে পেটের পেশির চোট। জীবন নিয়ে ঠান্ডা মাথায় ভাবার কথা জানিয়েছেন নাদাল। তবে কি তিনিও ফেডেরারের পথই বেছে নেবেন?

ফেডেরারে পর এ বার অবসর নেবেন নাদালও?

ফেডেরারে পর এ বার অবসর নেবেন নাদালও? ছবি: রয়টার্স

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৯:৫৫
Share: Save:

হাঁটুর চোট পেশাদার টেনিসে ফিরতে দেয়নি রজার ফেডেরারকে। পায়ের চোট কি অবসর নিতে বাধ্য করবে রাফায়েল নাদালকেও? পেশাদার টেনিস-জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যেতে মানসিক শান্তি খুঁজছেন নাদাল। ঠান্ডা মাথায় ভাবার কথা জানিয়েছেন বিশ্বের প্রাক্তন এক নম্বর টেনিস খেলোয়াড়।

Advertisement

চলতি বছরে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ফরাসি ওপেন জেতার পর উইম্বলডনের সেমিফাইনালে সরে দাঁড়াতে বাধ্য হন পেটের পেশির চোটের জন্য। পায়ের অসহ্য যন্ত্রণা নিয়েই ফরাসি ওপেন চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। সেই প্রতিযোগিতার পরেই জানিয়েছিলেন, আর কত দিন খেলতে পারবেন জানেন না।

এক সাক্ষাৎকারে ২২টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক বলেছেন, ‘‘জানি না আর কত দিন খেলতে পারব। ফরাসি ওপেনের পর সিদ্ধান্ত নেওয়ার মতো জায়গায় পৌঁছে গিয়েছিলাম। মিথ্যা বলতে চাই না। ফরাসি ওপেন খেলার সময় মনে হচ্ছিল, এটাই হয়তো আমার শেষ প্রতিযোগিতা। শারীরিক কারণেই এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। দু’বার পেটের পেশিতে চোট পেয়েছি। প্রথম বার উইম্বলডনে। দ্বিতীয় বার ইউএস ওপেনের সময়। বিষয়টা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। আমার ব্যক্তিগত ক্ষতিও বটে। তবে এখনই অবসর নেওয়ার মতো জায়গায় নেই। ভাবতেও চাইছি না।’’

তা হলে কী করবেন? পরিকল্পনা কী? নাদাল বলেছেন, ‘‘এখনই যদি আবার সব কিছু আগের মতো স্বাভাবিক হয়ে যায়, তা হলে আমার ব্যক্তিগত জীবনও ভাল হবে। সেটাকেই সব থেকে গুরুত্ব দিতে চাইছি। সে ভাবেই নিজের জীবন নিয়ে পরিকল্পনা করতে চাইছি। ব্যক্তিগত এবং পেশাদারি জীবন নিয়ে শান্ত মাথায় ভাবতে চাই।’’

Advertisement

আলোচনায় উঠে এসেছে ফেডেরারে অবসরের কথাও। নাদাল প্রিয় প্রতিপক্ষকে নিয়ে বলেছেন, ‘‘ফেডেরারের অবসর নেওয়াটা আমার কাছেও গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাগুলোর সময় ও আমার পাশে বা সামনে ছিল। ওর পরিবার, দর্শকদের দেখে আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারিনি। ওই মুহূর্তটা ব্যাখ্যা করা কঠিন। একটা দুর্দান্ত অনুভূতি।’’ উল্লেখ্য, ফেডেরারের বিদায়ী ম্যাচে চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি নাদালও।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.