×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

পরীক্ষা জ়িদানের, চাকরি নিয়ে ভাবছেন না

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৯ ডিসেম্বর ২০২০ ০৫:৩৬
ছবি: এএফপি।

ছবি: এএফপি।

রিয়াল মাদ্রিদের ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বের্নাবাউয়ে আজ, বুধবার অগ্নিপরীক্ষা জ়িনেদিন জ়িদানের। ১৩ বারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ বিজয়ীদের নক-আউটের দৌড়ে থাকতে জার্মানির বরুসিয়া মনশেনগ্ল্যাডবাখের বিরুদ্ধে জিততেই হবে রিয়াল মাদ্রিদকে। আর যদি তা না পারেন, তা হলে প্রবল চাপের মধ্যে থাকা জ়িদানের চাকরি থাকে কি না, তা নিয়েই চলছে চর্চা।

গ্রুপ ‘বি’তে ৫ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে মনশেনগ্ল্যাডবাখ। দু’নম্বরে শাখতার দোনেস্ক, যাদের পয়েন্ট ৭। বুধবার তারাও খেলবে টেবলের চার নম্বরে থাকা ইন্টার মিলানের (৫ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট) বিরুদ্ধে। তিন নম্বরে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৫ ম্যাচে ৭। সোজাসাপ্টা অঙ্ক এটাই যে, জ়িদানের দলকে জিততে হবে। যদি রিয়ালের ম্যাচ ড্র হয় এবং শাখতার জেতে বা ম্যাচ ড্র করে ইন্টারের বিরুদ্ধে, এ বারের মতো গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেবেন সের্খিয়ো র‌্যামোসরা।

মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলনে জ়িদান জানিয়ে বলে দেন, “তিন পয়েন্ট চাই-ই। ফুটবলারদের বলেছি, শুধু এই ভাবনাটা মাথায় রেখে মাঠে নেমে নিজেদের দক্ষতার প্রমাণ দাও।” যোগ করেছেন, “হতে পারে কাজটা খুব কঠিন, তবে এটাও নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করার একটা বড় সুযোগ। আমি বিশ্বাস করি, রিয়াল মাদ্রিদ পরের রাউন্ডে যাবেই।” নিজের চাকরি নিয়ে ভাবছেন না জ়িদান। তিনি বলেছেন, ‘‘ক্লাব যা করার করবে। আমি শুধু এই ম্যাচটার কথা ভাবছি। জেতা ছাড়া আর কিছু এখন মাথায় নেই। জানি তখন আর একটা ম্যাচও চলবে (ইন্টার বনাম শাখতার)। তবে আমি শুধু নিজেদের ম্যাচটার কথাই ভাবতে চাই।’’ মনশেনগ্ল্যাডবাখ ম্যানেজার মাখো রোসে পাল্টা হুঙ্কার দিয়ে রেখেছেন, রিয়ালের যন্ত্রণা বাড়িয়ে দিতে তাঁর দল তৈরি। বলেছেন, “রিয়ালকে তাদের মাঠেই প্রবল চাপে রাখা আমাদের প্রধান লক্ষ্য। ওদের জয় সহজ হবে বলে মনে হয় না।”

Advertisement

চোট সারিয়ে ফিরছেন অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার র‌্যামোস। মঙ্গলবার দলের সঙ্গে পুরো সময় অনুশীলনও করেছেন তিনি। বুধবার রাতে নামছে ম্যাঞ্চেস্টার সিটিও। নক-আউট পর্বে (৫ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট) ওঠা নিশ্চিত হয়ে গেলেও ঘরের মাঠে মার্সেইয়ের বিরুদ্ধে খেলতে নামার আগে সতর্ক ম্যান সিটি ম্যানেজার পেপ গুয়ার্দিওলা। বলেছেন, “প্রতিপক্ষ দলের কোচের নাম আন্দ্রে ভিয়াস বোয়াস। ওঁর কোচিংকে সম্মান করি। তা ছাড়াও টানা ম্যাচ খেলে ফুটবলাররাও ক্লান্ত হয়ে পড়েছে। চোটমুক্ত থাকতে হবে ফুটবলারদেরও।” চোট নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন য়ুর্গেন ক্লপও। ৫ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে নক-আউট পর্বে যাওয়া নিশ্চিত লিভারপুলের। বুধবার অ্যাওয়ে ম্যাচে তাঁদের প্রতিপক্ষ মিটজ়িল্যান্ড। ক্লপ বলেছেন, “আমার হাতে ফিট ফুটবলারের সংখ্যা ক্রমশ কমে আসছে। তাই সকলকে বলে দিয়েছি, ঝুঁকি নিয়ে ম্যাচ জেতার চেষ্টা না করাই বাঞ্ছনীয়।”

Advertisement