Advertisement
২৭ জানুয়ারি ২০২৩
Novak Djokovic

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের আগে আবার আলোচনায় জোকোভিচ, এ বার কি খেলতে পারবেন

কোভিড টিকা না নেওয়ায় এ বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেলা হয়নি জোকোভিচের। প্রতিযোগিতা খেলতে অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছলেও তাঁকে বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয়। এ বছর কী হবে?

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে জোকোভিচের খেলার সম্ভাবনা কতটা?

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে জোকোভিচের খেলার সম্ভাবনা কতটা? —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ১৫ নভেম্বর ২০২২ ১৬:৪৫
Share: Save:

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে পারেন নোভাক জোকোভিচ। তেমনই ইঙ্গিত অস্ট্রেলিয়ার সরকারের। ২১টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক গত বার ভিসা পাননি। তিনি করোনার টিকা নেননি। সেই কারণে তাঁকে গত বার ভিসা দেওয়া হয়নি। এ বছর সেই সমস্যা হবে না। অস্ট্রেলিয়ার সরকার ঠিক করেছে জোকোভিচ টিকা না নিলেও ভিসা দেওয়া হবে তাঁকে।

Advertisement

অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসনমন্ত্রী অ্যান্ড্রু জাইলস বলেন, “এখন ভিসার প্রক্রিয়ায় বিশেষ কোনও নির্দেশ নেই। সঠিক সময়ে যে ভাবে ভিসা দেওয়া হয়, সে ভাবেই দেওয়া হবে। কারও জন্য আলাদা কোনও নিয়ম থাকবে না। সকলকে সময় মতো ভিসা দেওয়া হবে। মনে হয় না জোকোভিচের জন্য আলাদা কিছু প্রয়োজন।”

জাইলস আরও বলেন, “জোকোভিচ অস্ট্রেলিয়ায় এসে খেলতে পছন্দ করে। আমি জানি ও ফিরতে চায়। আশা করি সরকার সেটা বুঝবে। এখানে খেলে ও আবার সাফল্য পাবে সেই কামনা করি। আমি আশাবাদী যে দু’পক্ষই একটা সিদ্ধান্তে আসতে পারবে।” এ বছর জোকোভিচ অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছে গেলেও ভিসা পাননি। গ্র্যান্ড স্ল্যামেও খেলতে পারেননি।

গত মে মাসে অস্ট্রেলিয়ায় ক্ষমতায় এসেছে নতুন সরকার। প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন অ্যান্টনি অ্যালবানিজ। তার পরেই বদলেছে পরিস্থিতি। নতুন সরকার কোভিড বিধি শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশের ক্ষেত্রে কোভিড টিকা আর বাধ্যতামূলক রাখতে চাইছে না সরকার। পাশাপাশি, অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশের ক্ষেত্রে জোকোভিচের উপর তিন বছরের যে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা-ও প্রত্যাহার করে নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন নতুন অভিবাসন মন্ত্রী অ্যান্ড্রু জাইলস। জোকোভিচকে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে দেওয়ার ব্যাপারেও সম্মত হয়েছেন। তাতেই আগামী বছর ২১ গ্র্যান্ড স্ল্যাম মালিকের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেলার সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়েছে।

Advertisement

কোভিড টিকা না নেওয়ায় এ বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেলা হয়নি জোকোভিচের। প্রতিযোগিতা খেলতে অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছলেও তাঁকে বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয়। তাঁর অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক বিতর্ক তৈরি হয়ে অস্ট্রেলিয়ায়। বিষয়টি আদালতে গড়ায়। রায় জোকোভিচের পক্ষে গেলেও শেষরক্ষা হয়নি। রাজনৈতিক বিতর্ক ঠেকাতে অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসন মন্ত্রী বিশেষ ক্ষমতা ব্যবহার করে তাঁর ভিসা বাতিল করে দেন। ভিসা বাতিল হওয়ার কারণে তিন বছরের জন্য অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েন জোকোভিচ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.