Advertisement
২০ জুলাই ২০২৪

হার্দিকদের নিয়ে তোপ শ্রীসন্থের

সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শ্রীসন্থ বলেছেন, ‘‘কী এমন ভুল করেছে হার্দিকরা? এর চেয়ে অনেক বড় ভুল করে এখনও অনেকে খেলে চলেছে। তা ছাড়া এর সঙ্গে ক্রিকেটের কোনও সম্পর্কও নেই। ওদের সঙ্গে যা হল, তা অত্যন্ত দুঃখজনক।’’ শ্রীসন্থ আশাবাদী, দ্রুত তাঁরা মাঠে ফিরে আসবেন।

—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন 
শেষ আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০১৯ ০৪:১৩
Share: Save:

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের শো-কজের জবাবে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন হার্দিক পাণ্ড্য ও কে এল রাহুল। তার পরেই কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স (সিওএ) প্রধান বিনোদ রাই বলেছেন, বোর্ডের উচিত দুই ক্রিকেটারের জীবন শেষ না করে তাঁদের সংশোধন করা। ই-মেলে রাই এমন কথা জানিয়েছেন অন্য সিওএ সদস্য ডায়ানা এডুলজিকেও। প্রসঙ্গত, হার্দিকদের কড়া শাস্তির দাবি তুলে সরব হয়েছেন ডায়ানাই।

এ দিকে, হার্দিকদের শাস্তি নিয়ে মুখ খুলেছেন নির্বাসিত ভারতীয় ক্রিকেটার শান্তাকুমারন শ্রীসন্থ। সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শ্রীসন্থ বলেছেন, ‘‘কী এমন ভুল করেছে হার্দিকরা? এর চেয়ে অনেক বড় ভুল করে এখনও অনেকে খেলে চলেছে। তা ছাড়া এর সঙ্গে ক্রিকেটের কোনও সম্পর্কও নেই। ওদের সঙ্গে যা হল, তা অত্যন্ত দুঃখজনক।’’ শ্রীসন্থ আশাবাদী, দ্রুত তাঁরা মাঠে ফিরে আসবেন।

তারই মধ্যে আবার বোর্ডের অনুমোদিত দশটি রাজ্য সংস্থা লিখিত ভাবে দাবি জানিয়েছে, হার্দিকদের নিয়ে সিদ্ধান্তের জন্য বিশেষ সাধারণ সভা ডেকে একজন ওম্বাডসম্যান নিয়োগ করা হোক। তাঁকেই এই ঘটনার তদন্তের ভার দেওয়া উচিত। যদিও কর্ণ জোহরের টক শো-তে হার্দিকদের করা মন্তব্য নিয়ে তদন্ত করার কী আছে, তা পরিষ্কার নয়।

সোমবার বোর্ডের এক কর্তা সংবাদসংস্থা পিটিআইকে বলেন, ‘‘নতুন করে যে শো-কজ নোটিশ দেওয়া হয়েছিল হার্দিক ও রাহুলকে, তার জবাব ওরা দিয়েছে। নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছে। বোর্ডের নতুন গঠনতন্ত্রের ৪১(সি) ধারা অনুযায়ী সিওএ প্রধান বোর্ডের সিইও-কে এই ঘটনার তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন।’’ ডায়ানার আশঙ্কা, বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হতে পারে এই তদন্তে। তবে বিনোদ রাই তাঁকে আশ্বস্ত করে জানিয়েছেন, তা হবে না।

ডায়ানাকে পাঠানো ই-মেলে রাই লিখেছেন, ‘‘বোর্ড যে তদন্ত করতে চলেছে, তাতে কিছুই ধামাচাপা পড়ার সম্ভাবনা নেই। দেশের ক্রিকেটের স্বার্থের কথাও ভাবতে হবে। মাঠের বাইরে ওদের এই কাণ্ড মোটেই মেনে নেওয়ার মতো নয়। ওদের শুধরে মাঠে ফিরিয়ে আনাই এখন আমাদের দায়িত্ব।’’ সিওএ প্রধান মনে করেন, ‘‘বিদেশ সফর থেকে ওদের ফিরিয়ে এনে ও সাময়িক নির্বাসন দিয়ে ওদের যথেষ্ট শাস্তি দিয়েছি। অযথা দেরি করে ওদের আর ক্ষতি করা উচিত না। এই নিয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া জরুরি।’’

রাই বোর্ড সিইও-কে প্রাথমিক তদন্ত শুরু করতে বললেও কিছু বোর্ড সদস্যদের সঙ্গে ডায়ানাও অন্য পথে হাঁটার পরামর্শ দিয়েছেন। তাঁর মতে, ‘‘যেখানে সিইও-র বিরুদ্ধেই যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছিল, তাঁকেই এই তদন্তের ভার দেওয়া উচিত না।’’ যার পাল্টা ব্যাখ্যা দিয়ে রাই লিখেছেন, ‘‘নতুন গঠনতন্ত্রের ধারা অনুযায়ীই সিইও-কেই এই দায়িত্ব নিতে হবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE