Advertisement
১৬ জুলাই ২০২৪
T20 World Cup 2024

শনিবার ভারতের সামনে ‘ক্লান্ত’ বাংলাদেশ, জিতলেই বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে এক পা রোহিতদের

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার এইটের দ্বিতীয় ম্যাচে শনিবার ভারতের সামনে বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারের ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে খেলতে নামতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। ক্লান্তি কাটিয়ে ওঠাই আসল কাজ বাংলাদেশের কাছে।

cricket

ভারতীয় দল। ছবি: এক্স।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২২ জুন ২০২৪ ১০:৪৯
Share: Save:

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার এইটের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানকে সহজেই হারিয়েছে ভারত। দ্বিতীয় ম্যাচে শনিবার তাদের সামনে এশিয়ার আর এক দল বাংলাদেশ। গত কয়েক দশকে দু’দেশের লড়াই বরাবরই অন্য মাত্রা পেয়েছে। বিশ্বকাপে তা নিয়ে আরও চর্চা হয়। অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারের ৩৩ ঘণ্টার মধ্যে খেলতে নামতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় মধ্যরাত পেরিয়ে তাদের ম্যাচ শেষ হয়েছে। মাঝে মাত্র একটা দিন পেরিয়ে শনিবার স্থানীয় সময় সকালবেলাতেই খেলতে নামতে হবে তাদের। সেই ক্লান্তি কাটিয়ে ওঠাই আসল কাজ বাংলাদেশের কাছে।

মুখোমুখি সাক্ষাতে ভারত এগিয়ে। কিন্তু বড় মঞ্চে প্রায়ই জ্বলে উঠেছে বাংলাদেশ। সামনে ভারতকে পেলে তাদের ক্রিকেটারেরা বাড়তি জোর দেন। রোহিত শর্মাদের বিরুদ্ধে শনিবার সেটাই দেখা যেতে পারে। মাঠের বাইরেও দু’দেশের লড়াই লেগেই থাকে। তাই সব মিলিয়ে বিশ্বকাপে আরও একটা উপভোগ্য ম্যাচ খেলতে চলেছে ভারত।

তবে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নামার আগে ভারতের চিন্তা কম নেই। সবচেয়ে বড় চিন্তা বিরাট কোহলির ফর্ম। গ্রুপ পর্বে মাত্র ৯ রান করেছিলেন তিন ইনিংসে। আগের ম্যাচে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ভাল শুরু করেও রশিদ খানের বলে ঠকে গিয়ে আউট হন। কোহলির ব্যাট থেকে এখনও বড় ইনিংস দেখা যায়নি। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তিনি ফর্মে ফেরেন কি না, তা দেখতে উৎসাহী সকলেই।

আরও একটি চিন্তা রয়েছে শিবম দুবেকে নিয়ে। রিঙ্কু সিংহের বদলে ১৫ জনের দলে জায়গা পাওয়া ক্রিকেটার আগের ম্যাচে আবার ব্যর্থ হয়েছেন। প্রত্যাশা করা হয়েছিল, ডেথ ওভারে তিনি চালিয়ে খেলবেন। কিন্তু শিবমের ঠুক ঠুক করে খেলা বিরক্তি বাড়িয়ে তুলছে। আরও এক বার ব্যর্থ হলে হয়তো সঞ্জু স্যামসনকে সুযোগ দেওয়া হতে পারে।

বাংলাদেশ ম্যাচের আগে ভারতকে স্বস্তিতে রাখবে হার্দিক পাণ্ড্যের ফর্ম। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে তাঁর আগ্রাসী ইনিংস নজর কেড়েছে। বল হাতে নজর কাড়ার পর ব্যাট হাতেও সাবলীল দেখিয়েছে হার্দিককে। আইপিএলের ব্যর্থতা ঝেড়ে ফেলে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে যে দলে বদল হতে পারে, তার ইঙ্গিত রোহিত দিয়েছিলেন আফগানিস্তান ম্যাচের পরেই। বলেছিলেন, “আমাদের পরিস্থিতি দেখে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। প্রতিপক্ষ দেখে আমরা দলে যে কোনও পরিবর্তন করতে পারি। মনে হয়েছিল, এই ম্যাচে তিন স্পিনার খেলানো ভাল। তাই খেলিয়েছি। পরের ম্যাচে দরকার পড়লে তিন পেসারও খেলাতে পারি।”

অস্ট্রেলিয়ার কাছে ডাকওয়ার্থ-লুইস নিয়মে ২৮ রানে হারার পর বাংলাদেশের অধিনায়ক নাজমুল হাসান শান্ত বলেছেন, “পরের দুটো ম্যাচ গুরুত্বপূর্ণ। অনেক কিছু পাওয়ার রয়েছে। যদি দুটো ম্যাচে জিততে পারি, অনেক ভাল পরিস্থিতিতে থাকব। সব ম্যাচ জেতার জন্যই আমরা নামব।”

পরিস্থিতির কারণে তাঁদের অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারতে হয়েছে, এ কথা মেনে নিয়ে শান্ত বলেছেন, “আগের ম্যাচগুলোর থেকে অনেক আলাদা ছিল এই ম্যাচ। আগের পিচগুলোয় স্পিন এবং পেস দুটোই হচ্ছিল। এখানে (অ্যান্টিগা) পাটা উইকেট পেলাম। সেই পিচেও আমরা ভাল ব্যাট করতে পারিনি। সেটাই বড় পার্থক্য গড়ে দিয়েছে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE