Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
Bhaichung Bhutia

জন্মদিনে ভাইচুংয়ের ফোন পেয়ে বিজয়ন: তুমিই তো নায়ক

লকডাউনের জেরে এক জন ত্রিশূরে। আর এক জন শিলিগুড়িতে। জন্মদিনে আই এম বিজয়নকে ফোন করে শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেননি ভাইচুং ভুটিয়া। দুই কিংবদন্তির কথোপকথন কী হল? তুলে ধরছে আনন্দবাজার...

স্মৃতি: তখন একসঙ্গে কলকাতায়।  ভাইচুং-বিজয়ন জুটি। ফাইল চিত্র

স্মৃতি: তখন একসঙ্গে কলকাতায়। ভাইচুং-বিজয়ন জুটি। ফাইল চিত্র

শুভজিৎ মজুমদার
শেষ আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০২০ ০৪:২১
Share: Save:

ভাইচুং ভুটিয়া: শুভ জন্মদিন আই এম বিজয়ন। তোমার ফোন তো পাওয়াই যায় না।

Advertisement

বিজয়ন: ভাইচুং.. কেমন আছো? অসংখ্য ধন্যবাদ। তুমি ফোন করায় আমি খুব খুশি হয়েছি।

ভাইচুং: তোমার বয়স এখন কত হল? শতবর্ষের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছো কি না আগে বলো।

বিজয়ন: হা হা হা...৫১ বছর হল আমার। বাড়ির সকলে ঠিক আছে তো? আচ্ছা ভাই, তুমি কি এখন সিকিমে?

Advertisement

ভাইচুং: আমি এখন শিলিগুড়ির বাড়িতে। সবাই ভাল আছে। জন্মদিন কী ভাবে পালন করলে?

বিজয়ন: এ বার কিছুই করিনি। লকডাউন চলছে তো। বাড়িতেই নাতনির (মেয়ের মেয়ে) সঙ্গে জন্মদিন পালন করলাম।

ভাইচুং: তুমি কি এখনও কেরল পুলিশের হয়ে খেলছো?

বিজয়ন: সে রকম ভাবে নয়। তবে পুলিশ দলের সঙ্গে নিয়মিত অনুশীলন করছি। লকডাউনের কারণে এখন যদিও মাঠে নামা হচ্ছে না।

ভাইচুং: কেরল পুলিশ দলের কোচ কি তুমি?

বিজয়ন:কোচিং করাচ্ছি না। শুধুই অনুশীলন করছি।

ভাইচুং: তোমাকে কি পুলিশের দায়িত্বও পালন করতে হচ্ছে?

বিজয়ন: কেরল পুলিশে সকলকেই কাজ করতে হয়। এই কাজটা আমি দারুণ উপভোগ করি।

ভাইচুং: তোমার অভিনয়ের কী খবর? সিনেমা করছো তো?

বিজয়ন (হাসি): ফুটবল খেলা, পুলিশের দায়িত্ব সামলানো থেকে অভিনয়— সবই চালিয়ে যাচ্ছি। ভাইচুং, আমার স্ত্রী রাজ়ি তোমার সঙ্গে কথা বলতে চাইছে...

ভাইচুং: অবশ্যই... কেমন আছেন?

রাজ়ি: ভাল আছি। আপনি কেমন আছেন? শিলিগুড়িতে সব ঠিক আছে?

ভাইচুং: সব ঠিক আছে।

রাজ়ি: বাচ্চারা আপনার সঙ্গে?

ভাইচুং: না, বাচ্চারা কলকাতায়। আমি একা শিলিগুড়িতে।

আনন্দবাজার: বিজয়নের জন্য জন্মদিনে স্পেশ্যাল কী রান্না করলেন?

রাজ়ি: চিকেন আর মাছ।

ভাইচুং (হাসি): বিজয়নকে বেশি করে স্যুপ খাওয়ান রাজি।

বিজয়ন: লকডাউনে বেশি কিছু পাওয়া যায় না। বাড়িতে যা ছিল, তা দিয়েই আজ রান্না করেছে রাজি।

আনন্দবাজার: জন্মদিনে আপনাকে কী উপহার দিলেন স্ত্রী?

বিজয়ন: ভাইচুং জানে রাজি আমাকে কী উপহার দিয়েছে!

ভাইচুং (হাসি): বিজয়নের জন্য ইডলি, দোসা, সম্বর বানিয়েছেন রাজি।

আনন্দবাজার: ভবিষ্যতে সিনেমার পর্দায় কি ভাইচুং-বিজয়ন যুগলবন্দি দেখা যাবে?

বিজয়ন (হাসি): অসম্ভব কিছু নয়। তবে ভাইচুং নায়ক হবে। আমি অভিনয় করব খলনায়কের ভূমিকায়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.