Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

কোহালিকে ভুল করতে দেখে খুশি বোল্ট

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০২ মার্চ ২০২০ ০৪:৫১
উল্লাস: ১২ রানে তিন উইকেট নিয়ে ভয়ঙ্কর বোল্ট। এএফপি

উল্লাস: ১২ রানে তিন উইকেট নিয়ে ভয়ঙ্কর বোল্ট। এএফপি

ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ট্রেন্ট বোল্টের সুইংয়ের সামনে ভেঙে পড়েছে ভারতের ব্যাটিং। ন’ওভারে ১২ রান দিয়ে তিন উইকেট তুলে নিয়েছেন নিউজ়িল্যান্ডের এই বাঁ-হাতি পেসার। তাঁর শিকারের তালিকায় অবশ্য বিরাট কোহালির নাম নেই। কিন্তু কোহালিকে ভুল করতে দেখে ভীষণই তৃপ্ত বোল্ট।

রবিবার খেলার শেষে সাংবাদিক বৈঠকে এসে বোল্ট বলেন, ‘‘কোনও সন্দেহ নেই বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্রিকেটারের নাম বিরাট কোহালি। কিন্তু ওকে ভুল করতে দেখে ভাল লাগছে।’’ এই বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানকে কি করে শান্ত রাখছেন আপনারা? বোল্ট জানিয়েছেন, কোহালির বিরুদ্ধে তাঁদের কৌশল খেটে যাচ্ছে। কী সেই কৌশল? শুরুর দিকে বাউন্ডারি আটকে ভারত অধিনায়কের উপরে চাপ তৈরি করা। বোল্টের কথায়, ‘‘সবাই জানে, ভারতীয় ব্যাটিংয়ের স্তম্ভ হল কোহালি। আমাদের লক্ষ্য থাকে, ওর বাউন্ডারি বলগুলো আটকে দিয়ে চাপ তৈরি করা। দেখে ভাল লাগছে যে, কোহালি কয়েকটা ভুল করেছে। আমাদের ভাগ্য ভাল, দুটো বল ঠিক জায়গায় পড়ে কোহালির পায়ে লাগে। কোহালি প্যাভিলিয়নে ফিরে যাচ্ছে, এই দৃশ্যটা খুবই সুখকর।’’ ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে দুই ইনিংসেই এলবিডব্লিউ হয়েছেন কোহালি।

সুইং এবং সিমে পড়ে বল নড়াচড়া করলে যে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের সমস্যা হচ্ছে, সেটা এই সিরিজে বোঝা যাচ্ছে। তবে বোল্ট কিন্তু এতে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের খুব একটা দোষ দেখছেন না। নিউজ়িল্যান্ডের বাঁ-হাতি পেসার বলছেন, ‘‘ওরা ভারতের মন্থর পিচে খেলে অভ্যস্ত। যেখানে বাউন্সও বেশি থাকে না। তাই ওদের সময় লাগছে নিউজ়িল্যান্ডের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে। যেমন আমাকে যদি ভারতের পরিবেশে বল করতে হত, তা হলে সেটা আমার কাছে সেটা অন্য রকম চ্যালেঞ্জ হত।’’

Advertisement

দ্বিতীয় দিনে মোট ১৬ উইকেট পড়েছে। বোল্ট মনে করছেন, বল যথেষ্ট সুইং করছে এবং সেটাই ব্যাটসম্যানদের সমস্যার কারণ। বোল্টের কথায়, ‘‘এক দিনে ১৬টা উইকেট পড়েছে। জানি না, টেস্ট ক্রিকেটে এটা কোনও নজির কি না। তবে এটা জানি, ব্যাটের কাছাকাছি বল ফেলে ফায়দা তুলেছে বোলাররা। যে ভাবে বল নড়াচড়া করছে, তাতে মনে হচ্ছে আমরা ভাল জায়গাতেই আছি।’’ বোল্ট আরও মনে করেন, নিউজ়িল্যান্ডের সব বোলারই কিছু না কিছু করে দলকে সাহায্য করতে পেরেছেন। যে কারণে তাঁরা এই জায়গায় পৌঁছেছেন।

আরও পড়ুন

Advertisement