Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২

বৃষ্টির জন্য ধর্মশালায় ম্যাচ নিয়ে অনিশ্চয়তা

বিশ্রাম নেওয়ায় কোহালি খেলছেন না শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওয়ান ডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজে। তার আগে দিল্লিতে শেষ টেস্টের তিনি ম্যান এব দ্য ম্যাচ এবং সিরিজের সেরা হয়েছেন। কোহালির অনপস্থিতিতে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন রোহিত শর্মা।

মনোরম: ধর্মশালার পাহাড়ে ঘেরা দর্শনীয় স্টেডিয়ামে অনুশীলন ভারতীয় দলের। সবুজ পিচে বল করছেন ভারতীয় পেসাররা। সতর্ক দৃষ্টি নিয়ে জরিপ করছেন হেড কোচ রবি শাস্ত্রী।

মনোরম: ধর্মশালার পাহাড়ে ঘেরা দর্শনীয় স্টেডিয়ামে অনুশীলন ভারতীয় দলের। সবুজ পিচে বল করছেন ভারতীয় পেসাররা। সতর্ক দৃষ্টি নিয়ে জরিপ করছেন হেড কোচ রবি শাস্ত্রী।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৯ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৪:০১
Share: Save:

বিরাট কোহালিকে ছাড়া ভারতীয় দল খেলতে নামবে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে। যা হালফিলে কল্পনাই করা যায়নি। কিন্তু ধর্মশালায় প্রথম একদিনের ম্যাচে কোহালি-হীন ভারতকে দেখা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে বৃষ্টির জন্য।

Advertisement

বিশ্রাম নেওয়ায় কোহালি খেলছেন না শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওয়ান ডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজে। তার আগে দিল্লিতে শেষ টেস্টের তিনি ম্যান এব দ্য ম্যাচ এবং সিরিজের সেরা হয়েছেন। কোহালির অনপস্থিতিতে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন রোহিত শর্মা। আইপিএলে যাঁর ভালই নেতৃত্ব দেওয়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে।

ধর্মশালার দর্শনীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রবিবার প্রথম একদিনের ম্যাচ হওয়া নিয়ে যদিও ঘোর সংশয় তৈরি হয়েছে। স্থানীয় আবহাওয়া অফিস ভারী বর্ষণ এবং তুষারপাতের পূর্বাভাস করেছে। সিমলা থেকে জানানো হয়েছে, ১০ ডিসেম্বর অর্থাৎ রবিবারের আশেপাশে আবহাওয়া খারাপ হতে পারে ধর্মশালায়।

হিমাচল প্রদেশ ক্রিকেট সংস্থার কর্তারা অবশ্য আবহাওয়ার পূর্বাভাস নিয়ে খুব চিন্তিত নন। মিডিয়া ম্যানেডার মোহিত সুদ বলে দিচ্ছেন, ‘‘আমাদের মাঠের কর্মীরা তৈরি রয়েছে। বৃষ্টি হলে সেই পরিস্থিতির মোকাবিলা করে দ্রুত ম্যাচ শুরু করে দিতে পারব বলে আমরা আশাবাদী।’’

Advertisement

ফুরফুরে: বুমরার ঘাড়ে চেপে হার্দিক। ধর্মশালায়।

ভারত এবং শ্রীলঙ্কা— দু’দলের ক্রিকেটারেরাই এ দিন অনুশীলন করলেন ৪,০০০ ফিট উচ্চতায় অবস্থিত ধর্মশালার স্টেডিয়ামে। ভারত নতুনদের সুযোগ দিতে পারে আগ্রহের কেন্দ্রে এখন সিদ্ধার্থ কৌল। তিনটি একদিনের ম্যাচ রয়েছে এই সিরিজে। পঞ্জাবের পেসার সিদ্ধার্থ আশা করছেন, তিনি সুযোগ পাবেন। ধর্মশালায় পেসাররা সহায়তা পান। হাল্কা ঘাসও থাকে পিচে। এ দিন অনুশীলনের সময়েও দেখা গিয়েছে, পিচে সবুজ ভাব রয়েছে। সেটা ম্যাচের দিনও থাকলে সিদ্ধার্থ চাইবেন এখানেই যেন তাঁর অভিষেক ঘটে।

‘‘আমার কেমন অনুভূতি হচ্ছে, বলে বোঝাতে পারব না,’’ প্রথম দিন ভারতীয় দলের সঙ্গে একই ড্রেসিংরুমে কাটিয়ে বলেছেন সিদ্ধার্থ। ‘‘আমি যখন জানতে পারি ভারতীয় দলে সুযোগ পেয়েছি, চুপ হয়ে গিয়েছিলাম। বুঝতেই পারছিলাম না কী ঘটছে। কিছুক্ষণ পরে মনে আছে শুধু দৌড়ে যাচ্ছিলাম আর বল করে যাচ্ছিলাম,’’ বলেন সিদ্ধার্থ।

ছবি: টুইটার

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.