Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পৃথ্বীকে নিজের মতো থাকতে দেওয়া হোক, বললেন কোহালি

রাজকোটে অভিষেক টেস্টে শতরান করেছিলেন পৃথ্বী। অভিষেক টেস্টেই শতরান, তাও এত কম বয়সে। স্বভাবতই পৃথ্বীকে নিয়ে আগ্রহ বাড়ছে। আর কোহালি এখানেই আড়

নিজস্ব প্রতিবেদন
১১ অক্টোবর ২০১৮ ১৭:৪৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
পৃথ্বীর উপর থেকে চাপ কমাতে চাইছেন কোহালি।

পৃথ্বীর উপর থেকে চাপ কমাতে চাইছেন কোহালি।

Popup Close

পছন্দ নয় পৃথ্বী শ-র সঙ্গে কারও তুলনা। চাইছেন না প্রচারের আলো সবসময় থাকুক ১৮ বছর বয়সীর উপর। বিরাট কোহালি আসলে চাইছেন তরুণ প্রতিভাকে আগলে রাখতে, যাবতীয় চাপ থেকে আড়াল করে রাখতে।

রাজকোটে অভিষেক টেস্টে শতরান করেছিলেন পৃথ্বী। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম টেস্টে ১৫৪ বলে করেন একদা বিস্ময় বালক হিসেবে চিহ্নিত মুম্বইকর। হায়দরাবাদে শুক্রবার শুরু হতে চলা সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টেও শতরান করলে ভারতীয়দের মধ্যে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও রোহিত শর্মাকে স্পর্শ করবেন তিনি। মহম্মদ আজহারউদ্দিন আবার কেরিয়ারের প্রথম তিন টেস্টেই করেছিলেন শতরান।

অভিষেক টেস্টেই শতরান, তাও এত কম বয়সে। স্বভাবতই পৃথ্বীকে নিয়ে আগ্রহ বাড়ছে নানা মহলে। বৃহস্পতিবার প্রচারমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ভারত অধিনায়ক তাই বলেছেন, “একজন তরুণকে বড় হওয়ার জন্য সময় দিতে হবে। তাড়াহুড়ো করলে চলবে না। পৃথ্বী প্রচণ্ড প্রতিভাবান। সবাই ওর ক্ষমতার পরিচয় পেয়েওছে। আমরা নিশ্চিত যে, সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলার ক্ষমতা ওর রয়েছে। প্রথম টেস্টে ও যা করেছিল, তার পুনরাবৃত্তি করতেই পারে। ও খুব তাড়াতাড়ি শিখতে পারে। পরিস্থিতি কেমন, তা অনুধাবন করতে পারে। আমরা সবাই ওর জন্য খুশি।”

Advertisement



বৃহস্পতিবার হায়দরাবাদে অনুশীলনে পৃথ্বী। ছবি: এপি।

বীরেন্দ্র সহবাগের সঙ্গে পৃথ্বীর তুলনা শুরু হয়েছে কোনও কোনও মহলে। যার প্রতিবাদ করেছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় থেকে গৌতম গম্ভীর। কোহালি একই সুরে বলেছেন, “কারওর সঙ্গেই ওর তুলনা করা উচিত হবে না। চাপে পড়তে পারে, এমন কোনও কিছুই করা ঠিক হবে না। ও যেন উপভোগ করতে পারে ক্রিকেট, এটা দেখতে হবে।”

আইপিএল, এ দলের সফর, অনূর্ধ্ব-১৯ প্রতিযোগিতার সরাসরি সম্প্রচার তরুণদের প্রচণ্ড চাপের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে বলে মনে করছেন বিরাট। তাঁর কথায়, “এই আবহের সঙ্গে কমবয়সীরা এখন আগে থাকতেই পরিচিত হয়ে পড়ছে। তবে তা সত্ত্বেও দেশের হয়ে খেলার চাপ আলাদা। প্রথমবার ক্যাপ পাওয়ার পর টেনশন হবেই। তবে সেটা নিশ্চয়ই ১০-১৫ বছর আগের মতো হয় না। তখন এই চাপের সঙ্গে কোনও পরিচয় ছাড়াই অভিষেক হয়ে যেত। এখন অজস্র লোকের সামনে খেলার সময় আগের মতো কেউ নার্ভাস হয় না।”

(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement