×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ জুন ২০২১ ই-পেপার

দেশঁর কাছে তিনটি ম্যাচই এখন ফাইনালের মতো

রতন চক্রবর্তী
মস্কো ০৫ জুলাই ২০১৮ ০৫:৩৪

লিয়োনেল মেসিদের বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে দেওয়ার পরে দিদিয়ে দেশঁর এখন মেসির ক্লাব সতীর্থ লুইস সুয়ারেসকে একই রাস্তায় পাঠানোর অঙ্ক করতে হচ্ছে। এবং সেটা এত গোপনে করছেন তিনি যে, সাংবাদিকদের তাঁর দলের ধারে কাছে ঘেঁষতে দিচ্ছেন না।

মস্কো থেকে প্রায় পঁচাত্তর কিলোমটার দূরে যে গ্রামে পল পোগবা, কিলিয়ান এমবাপেদেরদের নিয়ে অঙ্ক কষা শুরু করেছেন দেশঁ, সেখানে পৌঁছনোর পর মাত্র পনেরো মিনিটেই বিদায় করে দেওয়া হচ্ছে সংবাদমাধ্যমকে। দেঁশ নিজে এ দিন ফ্রান্সের সংবাদমাধ্যমকে বলছেন, ‘‘আমি চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কথা এখন ভাবতে রাজি নই। আমার কাছে বাকি তিনটি ম্যাচই ফাইনাল। যাঁরা সামনে পড়বে তাদেরই হারাতে হবে।’’ নিজনি নভগরোদে শুক্রবার খেলতে নামার আগে উরুগুয়ে সম্পর্কে তাঁর মন্তব্য, ‘‘দলটা অত্যন্ত আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে। সেটা মাথায় রাখছি।’’ পাশাপাশি তাঁর মন্তব্য, ‘‘আমাদের দলও গোলের মধ্যে আছে। সেটা আরও ঝকঝকে করতে হবে। নক আউট পর্বে সবসময়ই রক্ষণ সংগঠন ভাল করে নামতে হয়।’’

রক্ষণ নিয়ে অবশ্য তেমন উদ্বেগ নেই উরুগুয়ের। গত চার ম্যাচে লুই সুয়ারেস, এদিনসন কাভানিরা গোল খেয়েছেন মাত্র একটি। তবে এমবাপে যেভাবে আর্জেন্টিনাকে জোড়া গোল দেওয়ার পর হুঙ্কার ছাড়তে শুরু করেছেন তাকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিতে চাইছেন সুয়ারেস। ‘‘এমবাপে খুব ভাল ফুটবলার সেটা সবারই জানা।। ওর খেলা অনেকটা থিয়েরি অঁরির মতো।’’ বিপক্ষের ভয়ঙ্কর অস্ত্রকে সমীহ করলেও বার্সেলোনার ফুটবলার বলে দিয়েছেন, ‘‘তবে এটাও বলছি যে আমাদের রক্ষণ যথেষ্ট শক্তিশালী। কেউ একা নয়। আমরা সবাই মিলে ওদের রুখব।’’এমবাপের পাশাপাশি আঁতোয়া গ্রিজম্যানকেও গুরুত্ব দিতে চাইছেন উরুগুয়ে স্ট্রাইকার। এদিন তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে ‘‘গ্রিজম্যান যেমন জানে বিশ্বকাপের গুরুত্ব। তেমন আমরাও জানি। সেভাবেই খেলব আমরা।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: নেমারের পাশে বড় রোনাল্ডো

সুয়ারেসের দলের রক্ষণের স্তম্ভ দিয়েগো আবার বলে দিয়েছেন, ‘‘আমরা জানি ফ্রান্সের আক্রমণ কেমন। আমরা সব সময় চেষ্টা করব ওদের খেলতে না দেওয়ার। আমাদের রক্ষণ শক্তিশালী করে নামতে হবে।’’ তবে সুয়ারেস তার সঙ্গে শেষ আটের লড়াইতে কাভানিকে পাবেন কী না তা জানেন না। পর্তুগালের বিরুদ্ধে অসাধারণ গোল করার পর পায়ের পেশিতে চোট পেয়েছেন কাভানি। এখনও অনুশীলনে নামেননি। সুয়ারেস বলছেন, ‘‘ও আমাদের অপরিহার্য ফুটবলার। একটু অপেক্ষা তো করতে হবে।’’



Tags:
FIFA World Cup 2018বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮ Didier Deschamps France Football

Advertisement