×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৩ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

সমালোচনা নিয়ে মাথা ঘামানোর ইচ্ছা নেই জ়িদানের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৬ অক্টোবর ২০২০ ০৩:২০
জ়িনেদিন জ়িদান।ছবি: রয়টার্স।

জ়িনেদিন জ়িদান।ছবি: রয়টার্স।

শনিবার এল ক্লাসিকোর প্রথম সাক্ষাতে বার্সেলোনাকে ৩-১ হারিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ ম্যানেজার জ়িনেদিন জ়িদান জানিয়ে দিলেন, সমালোচকদের মুখ বন্ধ কী ভাবে করবেন, তা নিয়ে আদৌ ভাবেন না। গত সপ্তাহে লা লিগা ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা দু’ম্যাচে হেরে রিয়াল শনিবার বার্সেলোনার বিরুদ্ধে নেমেছিল। তাই লিয়োনেল মেসিদের বিরুদ্ধে তাঁদের জয়টা আসলে সমালোচনার জবাব বলে দাবি করেছে স্পেনীয় সংবাদমাধ্যম। তবে সেই প্রশ্নে জ়িদান বলেন, ‘‘সমালোচকদের মুখ বন্ধ করতে আমরা মোটেই ক্যাম্প ন্যুতে খেলতে আসিনি। আমাদের পক্ষে যেটা করা সম্ভব, সেটা এখানে এসে দল করেছে। ছেলেরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে যে ফুটবলটা খেলেছে, তার জন্য আমি সত্যিই গর্বিত।’’

রিয়াল ম্যানেজার যখন সমালোচকদের প্রসঙ্গ উড়িয়ে দিচ্ছেন, তখন বার্সেলোনা ম্যানেজার রোনাল্ড কোমানের মুখে সমালোচনার সুর! ক্লাসিকোয় এই হার তিনি আদৌ মানতে পারছেন না। ডাচ ম্যানেজারের যাবতীয় ক্ষোভ ভিডিয়ো অ্যাসিসট্যান্ট রেফারি (ভার) প্রযুক্তির উপরে! রাখঢাক না করে তিনি বলেছেন, ‘‘ভার নিয়ে এখানে যা হচ্ছে, তার কিছুই আমার মাথায় ঢুকছে না। মনে হচ্ছে ভিডিয়ো দেখে যাবতীয় সিদ্ধান্ত নেওয়ার একটাই কারণ। বার্সেলোনাকে বিপদে ফেলা।’’ বার্সার ক্লেমঁ লংলে নিজেদের পেনাল্টি বক্সে রিয়াল অধিনায়ক সের্খিয়ো র‌্যামোসের জার্সি টেনে ছিলেন। ভার-এর সাহায্য নিয়ে রেফারি পেনাল্টি দেন। যে সিদ্ধান্ত আদৌ পছন্দ হয়নি মেসিদের নতুন গুরুর। কোমানের বক্তব্য, ‘‘ফুটবলে এ রকম জার্সি টানার ঘটনা হামেশাই ঘটে। আমার তো মনে হয় র‌্যামোসই প্রথম লংলেকে ফাউল করেছিল। হ্যাঁ, জার্সি টানা হয়েছে। কিন্তু সেটার মধ্যে এমন কিছু বাড়াবাড়ি ছিল না। কখনওই ওটা পেনাল্টি ছিল না।’’

ক্লাসিকোয় শনিবার বার্সার দু’টি পেনাল্টির আবেদনও খারিজ হয়ে যায়। একবার রাফায়েল ভারানের চ্যালেঞ্জের সামনে মেসি বক্সের মধ্যে পড়ে যান। দ্বিতীয় ক্ষেত্রে ভারান ফের বক্সের মধ্যে হাতে বল লাগিয়েছিলেন। কোনও ক্ষেত্রেই রেফারি কিন্তু ভার-এর সাহায্য নেননি। এ সব নিয়ে ক্ষিপ্ত কোমানের মন্তব্য, ‘‘কী আর করা যাবে! আমাদের সঙ্গে বারবার এ রকমই হয়ে যাচ্ছে। আমরা যে পাঁচটা ম্যাচ এ বার খেলেছি, তার প্রত্যেকটিতেই ভার-এর সিদ্ধান্ত সব সময় আমাদের বিরুদ্ধে গিয়েছে। আসলে এই ধরনের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত ফলের উপরে বিরাট প্রভাব ফেলে যায়। রিয়ালের বিরুদ্ধে ওই পেনাল্টিটার আগে পর্যন্ত আমরা সত্যিই ভাল খেলেছি। এমনকি তার পরেও গোলের সুযোগ তৈরি হয়েছে। এই হার মোটই প্রাপ্য ছিল না।’’

Advertisement

কোমান যা-ই বলুন, র‌্যামোস কিন্তু মনে করেন রেফারি পেনাল্টি দিয়ে কোনও ভুল করেননি। রিয়াল অধিনায়কের কথায়, ‘‘ওটা পরিষ্কার পেনাল্টি ছিল। আমি যখন বলের জন্য লাফাচ্ছি, তখন ও আমার জার্সি টেনে ধরেছিল। দিনের আলোর মতো পরিষ্কার একটা ঘটনা। এটার জন্য রেফারির সমালোচনা করাটা অন্যায়।’’

Advertisement