• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জামিন পেলেন আরাবুল, তবে ঢুকতে পারবেন না ভাঙড়ে

arabul islam
আরাবুল ইসলাম। ফাইল চিত্র।

ভাঙড়ের দুই যুযুধান নেতার এক জন, অলীক চক্রবর্তীর জামিন হয়েছিল গত সপ্তাহেই। সোমবার জামিন পেয়ে গেলেন আরাবুল ইসলামও। এবং অলীকের মতো, তিনিও ভাঙড়ে ঢুকতে পারবেন না আপাতত।

ভাঙড় জমি কমিটির কর্মী হাফিজুল রহমান মোল্লা খুনের মামলায় পঞ্চায়েত ভোটের মুখে গ্রেফতার হয়েছিলেন আরাবুল। ৭২ দিনের মাথায় বারুইপুর আদালত শর্ত সাপেক্ষে তাঁর জামিন মঞ্জুর করল। পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে, বিচারক তাঁকে ভাঙড় এবং কাশীপুর থানা এলাকায় ঢোকার অনুমতি দিলেন না।

কিছু দিন আগে আদালতে হলফনামা জমা দিয়ে নিহত হাফিজুলের স্ত্রী সাবিরা বিবি জানান, আরাবুল ইসলাম কোনও ভাবেই তাঁর স্বামীর খুনের ঘটনায় জড়িত নন। এই হলফনামার বিষয়টি উল্লেখ করে, এ দিন জামিনের জন্য জোরালো সওয়াল করেন অভিযুক্তের আইনজীবীরা। শেষ পর্যন্ত ২০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে মঞ্জুর হয় জামিন। যদিও এ দিন শরীরিক অসুস্থতার কারণে আদালতে হাজির হতে পারেননি আরাবুল।

আরও পড়ুন: এ বার পাল্টা মামলার ছক ভারতী-ঘনিষ্ঠদের

এ দিকে ভাঙড়ে ঢোকার অনুমতি না মেলায় আরাবুল অনুগামীরা হতাশ। গত ১১ মে ভাঙড়ের নতুনহাটে পঞ্চায়েত ভোটের প্রচারে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় মাছিভাঙা গ্রামের বাসিন্দা হাফিজুলের। সেই খুনে আরাবুল ছাড়াও তাঁর ছেলে হাকিবুল, ভাই আজিজুর ইসলাম-সহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে কাশীপুর থানায় এফআইআর হয়। অভিযোগকারী ওলিল মোল্লা হাফিজুলের প্রতিবেশী। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ওই রাতেই পুলিশ আরাবুল ইসলামকে গ্রেফতার করে।

আরও পড়ুন: ভাঙড় নিয়ে রফার প্রস্তাব, বোঝাপড়ার পথে প্রশাসন?

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন