×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

পাহাড়ে ঘুরতে গেলে শীতবস্ত্রের ভারে বোঝা বাড়ানোর দরকার নেই। বরং প্যাকিং করুন দরকার বুঝে

ওম থাকুক সাজপোশাকে

০২ এপ্রিল ২০২১ ০৭:৫০
ফাইল চিত্র

ফাইল চিত্র

বাঁধনির একটা স্কার্ফ, দুটো আইভরি পাথর বসানো কানের দুল, একটা সাদা শার্ট, হুডেড জ্যাকেট, জিনস সযত্ন ভাঁজ করে ব্যাগে ভরে নিয়ে ভাবতে বসার পালা। আর কী কী নিলে ফ্যাশনটা জম্পেশ হবে পাহাড়ের পাকদণ্ডীতে বা কুয়াশাঘেরা সবুজের মাঝে বাঁকা পথের ধারে? এই গরমে গন্তব্য বলতে পাহাড় আর পাহাড় মানেই শীতবস্ত্র। তার ভারে ভারাক্রান্ত হয়ে ফ্যাশন না চলে যায় ব্যাকসিটে! ব্যাগ ভরে একটা ছোটখাটো আলমারি নিয়ে যেতে পারলে বেশ হত। যখন যেটা ইচ্ছে বার করে পরা যেত। সে উপায় যখন নেই, খাতা পেন নিয়ে এ বার লিস্ট করার পালা...

সঙ্গী হোক সুখবস্ত্র

যেখানে যাচ্ছেন, আগে সেখানকার আবহাওয়া সম্পর্কে জানা দরকার। পাহাড় ভেবেই একগাদা গরম পোশাক ভরে নেবেন না ব্যাগে। ধরুন, দার্জিলিং যাবেন। সেখানে যে ডেটে যাচ্ছেন, সেই দিন থেকে এক সপ্তাহের ওয়েদার ফোরকাস্ট দেখে নিতে পারেন অ্যাপে। দিনের বেলায় তাপমাত্রা এপ্রিল-মে মাসে ১৭-২০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের মধ্যেই থাকে। রোদ থাকলে খুব ভারী শীতবস্ত্রের দরকার পড়বে না। সে রকমই কোথায় যাচ্ছেন, সেই বুঝে ব্যাগ গোছান। হিমাচল প্রদেশ, সিকিম বা অরুণাচল প্রদেশের দিকে আবার ঠান্ডা বেশি পাবেন।

Advertisement

ক্যাপসুল ওয়ার্ড্রোব কনসেপ্টে পোশাক বাছুন। এমন কিছু পোশাক নিন, যা কম্বিনেশন করে পরা যায়। একটা ব্লু জিনস আর খানতিনেক টপ রাখুন। একটু মোটা বা উলেন টপ বাছতে পারেন, তা হলে সেটাই গরম পোশাকের কাজ করবে। সঙ্গে দুটো ফুল আর একটা হাফ জ্যাকেট নিন। হুডেড জ্যাকেট নিলে ভাল। একসঙ্গেই কান ঢাকার কাজও হয়ে যাবে। ঠান্ডা গরম বুঝে পেয়ার করে নিন। যেখানে যাচ্ছেন, সেখান থেকে যদি শপিং করার প্ল্যান থাকে, তা হলে গরম জামা কম নিন। স্থানীয় জায়গা থেকে গরম জামা কিনলে সেটাও ট্রিপে পরতে পারবেন।

বেশ কিছু স্কার্ফ রাখুন সঙ্গে। স্কার্ফের সুবিধে হল, এটায় বেশি জায়গা লাগে না। আবার দরকারে মাথায়, কানে জড়িয়ে নেওয়া যায়। প্রয়োজনে জাস্ট গলায় কাঁধের দু’পাশে ঝুলিয়ে রাখা যায়। আবার স্টাইল করার জন্য মাথায় বান্দানার মতোও বেঁধে নিতে পারেন।

সিক্স পকেটস বা ট্রাউজ়ার্স রাখতে পারেন। এই ধরনের পোশাক একটু ঢিলেঢালা হওয়ায় হোটেলে পরার জন্যও ব্যবহার করা যায়। ঘুরতে বেরোলেও পরতে পারবেন। বেশি ঠান্ডার জায়গায় গেলে উলেন প্যান্টস নিতে পারেন কিছু। কয়েকটা লেয়ার করে পোশাক পরুন। এতে ঠান্ডা কম লাগে।
মোজা রাখবেন অন্ততপক্ষে তিন-চার জোড়া। মোজা পাল্টে পাল্টে পরলে আপনার স্টাইল কোশেন্টেও নতুন মাত্রা যোগ হবে।

অ্যাকসেসরিজ়

* কানের দুল নিন কয়েকটি আর দু’তিনটি শেডের সানগ্লাস। চোখে মেকআপ করার সময় না পেলেও রোদচশমায় তা কভার হয়ে যাবে।
* হেয়ার স্কার্ফ ও হেয়ারব্যান্ড রাখুন নানা রকমের।
* জুতো নেওয়ার সময়ে ভারী জুতো পরে নিন। আর একটা জুতো ক্যারি করতে পারেন।
* নেক পিলো আর আই মাস্ক রাখতে পারেন সঙ্গে। এতে সফর যেমন আরামদায়ক হবে, তেমন ফ্যাশনেবলও দেখাবে।
* ফার ক্যাপ বা স্কার্ফ রাখতে পারেন ফ্যাশনের ওম বাড়াতে।
* শীতের জায়গায় রোজ জল দিয়ে শ্যাম্পু করা সম্ভব হয় না। তাই ড্রাই শ্যাম্পু রাখতে পারেন সঙ্গে।

সুন্দর শীতবস্ত্র যা সংগ্রহে আছে, তার সবটাই নিয়ে যাওয়ার কথা ভেবে প্যাকিং করবেন না। বরং ছোটখাটো অ্যাকসেসরিজ় ক্যারি করুন বেশি করে। এতে ব্যাগে জায়গাও পাবেন অনেক আর লুক চেঞ্জ করাও সহজ হবে।

Advertisement