Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
Travel Tips

বাইক নিয়েই পাহাড়ে যাবেন? সফরের আগে কয়েকটি কথা না জানলে বিপদে পড়বেন

অনেকেরই শখ বাইকে চড়ে পাহাড় ভ্রমণে বেরোনোর। তবে মনে হল আর হুশ করে বেরিয়ে পড়লেন, এমনটা করলে বিপদে পড়বেন। যাত্রা শুরুর আগে শরীরের কোন কোন দিকে নজর রাখতে হবে, রইল তার হদিস।

সফর হোক নিশ্চিন্তে।

সফর হোক নিশ্চিন্তে। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৪ অগস্ট ২০২৩ ১৭:০৭
Share: Save:

সো‌মবার হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে আসবাবপত্র এবং ঘর সাজানোর জিনিসের অনলাইন সংস্থা ‘পেপারফ্রাই’-এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা অম্বরীশ মূর্তির মৃত্যু হয়। ৫১ বছর বয়সি অম্বরীশ লেহ্‌-তে বাইক ট্রেকিং করতে গিয়েছিলেন। সেখানেই ঘটে অঘটন। বাইকে চড়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরে বেড়াতে পছন্দ করত‌েন অম্বরীশ। চিকিৎসকদের মতে, উঁচু পাহা়ড়ে বাইক নিয়ে সফরে বেরোনোর বেশ কিছু ঝুঁকি রয়েছে। বিশেষত যাঁদের বেশি উচ্চতায় শ্বাসকষ্টের সমস্যা হয়, তাঁদের জন্য এই সফর একেবারেই নিরাপদ নয়। এ ছাড়া পাহাড়ে অনেকেরই ‘অ্যাকিউট মাউন্টেন সিকনেস’ হয়। অনেকেরই শখ বাইকে চড়ে পাহাড় ভ্রমণে বেরোনোর। তবে যাত্রা শুরুর আগে শরীরের কোন কোন দিকে নজর রাখতে হবে, রইল তার হদিস।

১) ট্রিপে যাওয়ার আগে হিমোগ্লোবিন, অক্সিজ়েনের মাত্রা ঠিক আছে কিনা যাচাই করতে রক্ত পরীক্ষা করানো প্রয়োজন।

২) ট্রিপে যাওয়ার আগে ফিটনেসের উপর নজর দিতে হবে। নিয়মিত শরীরচর্চা করতে হবে।

৩) শরীরে যেন জলের ঘাটতি না হয়, সে দিকে নজর রাখুন। ট্রিপে যাওয়ার আগে ক্যাফিন জাতীয় খাবার ও পানীয় এড়িয়ে চলুন। মদ্যপান বন্ধ রাখুন।

বাইক সফরে যাওয়ার আগে প্রস্তুতি নিন আগেভাগেই। জেনে নিন কোন কোন প্রস্তুতি ছাড়া বাইক চড়ে পাহাড়ে যাওয়া চলবে না।

১) মনে করুন এমন কোনও জায়গায় গিয়েছেন, যেখানে জনবসতিই প্রায় নেই, খাবার তো দূর অস্ত। সে ক্ষেত্রে পর্যাপ্ত পরিমাণে ড্রাই ফ্রুটস সঙ্গে রাখতে হবে, যাতে এক–দু’দিন চালিয়ে নিতে পারেন। পাহাড়ে উচ্চতায় শরীরে জলের ঘাটতি হলেই বিপদ। ডিহাইড্রেশন যাতে না হয়, তার জন্য দু’–তিন লিটারের জলের বোতল সঙ্গে রাখুন।

বাইক নিয়ে পাহাড়ে যাওয়ার সময় প্রয়োজনীয় প্রাথমিক চিকিৎসার সরঞ্জাম সঙ্গে রাখতে হবে।

বাইক নিয়ে পাহাড়ে যাওয়ার সময় প্রয়োজনীয় প্রাথমিক চিকিৎসার সরঞ্জাম সঙ্গে রাখতে হবে। ছবি: শাটারস্টক।

২) প্রয়োজনীয় প্রাথমিক চিকিৎসার সরঞ্জাম সঙ্গে রাখতে হবে। বিভিন্ন স্প্রে, ব্যথার ওষুধ ইত্যাদি রাখে ভুলবেন না। এর পাশাপাশি বমি, পেট খারাপ, জ্বর, গ্যাসের ওষুধের কিট বানিয়ে সঙ্গে রাখুন।

৩) ব্লু টুথ ইয়ারফোন থেকে শুরু করে অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ গ্যাজেট সঙ্গে রাখতে হবে। বাইক চালানোর সময়ে নিজের দলের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে সেগুলি খুব উপযোগী।

৪) বাইক নিয়ে যেখানেই যান, প্রথমেই চোখ থাকুক সুরক্ষার বিষয়টিতে। যত বেশি সম্ভব রাইডিংগিয়ার, রাইডিং প্যাড, হেলমেট, গ্লাভস্, হাঁটু অবধি জুতো সঙ্গে রাখবেন। এগুলি ছাড়া বাইক ট্রিপে যাওয়া উচিত নয়। লেদার স্যুট পরতেই হবে সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে।

৫) মাঝরাস্তায় বাইকের গোলমাল হলেই সফরের মাঝে আপনি বিপাকে পড়তে পারেন। তাই পোর্টেবেল এয়ার পাম্প থেকে শুরু করে পাংচার রিপেয়ার কিট্, সবই সঙ্গে নিতে হবে। ক্লাচ, ব্রেক লিভার— এই সব কিছুর সমস্যার বিষয়ে আগে থেকে শিখে নিতে হবে। বিশেষত, দুর্গম বা অচেনা পথে সফরের ক্ষেত্রে এ সব কিছু নিজে না জানলে সমস্যায় পড়বেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE