Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Heat

গরম থেকে বাঁচতে আশ্রয় এটিএম কাউন্টার! নগদের হিম-ঘরে ঘরহারাদের শান্তির ঘুম

গত কয়েকদিন ধরে পঞ্জাবে তাপমাত্রার পারদ চড়চড়িয়ে বেড়েছে। বাইরে সেই জ্বালা ধরানো গরমের মধ্যে যখন এটিএম-এর ঠান্ডা ঘরে নিশ্চিন্ত ঘুমে তিন ফুটপাথবাসী, তখন তাঁদের ঘিরে ছোট খাট ভিড় জমেছে এটিএম কাউন্টারে।

এটিএম-এর ঠান্ডা ঘরে নিশ্চিন্ত ঘুমে তিন ফুটপাথবাসী।

এটিএম-এর ঠান্ডা ঘরে নিশ্চিন্ত ঘুমে তিন ফুটপাথবাসী। ছবি: এক্স।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ জুন ২০২৪ ২৩:৪০
Share: Save:

দিনভর রোদ পেয়ে তপ্ত পিচের রাস্তা। ফুটপাথও। রাত নামলে ধীরে ধীরে ঠান্ডা হয়। সাধারণত। কিন্তু এখন তারও জো নেই। রাত দুটোর সময় ও তেতে থাকে। সারাদিন পেটের দায়ে রাস্তায় থাকা মানুষগুলো দুদণ্ড জিরোতে হিমসিম খায়। একটু ঠাণ্ডার খোঁজেই বোধ হয় শেষরাতে আশ্রয় নিয়েছিল এটিএম কাউন্টারের বাতানুকূল ঘরে। সেই ঘরে তাদের অকাতরে ঘুমোনোর ভিডিয়ো এখন ভাইরাল।

পঞ্জাবের পাতিয়ালার ঘটনা। গত কয়েকদিন ধরে সেখানে তাপমাত্রার পারদ চড়চড়িয়ে বেড়েছে। বাইরে সেই জ্বালা ধরানো গরমের মধ্যে যখন এটিএম-এর ঠান্ডা ঘরে নিশ্চিন্ত ঘুমে তিন ফুটপাথবাসী, তখন তাঁদের ঘিরে ছোট খাট ভিড় জমেছে এটিএম কাউন্টারে। তাঁদের টপকে নগদ মেশিনের সামনে পৌঁছেছেন কেউ। কেউ বা দাঁড়িয়ে স্মার্টফোনে ভিডিয়ো করেছেন তাঁদের। তেমনই একটি ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এসেছে। আর তা নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা। সমালোচনাও।

ইন্টারনেটে ভিডিয়ো দেখে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন, ফুটপাথবাসীরা এই ভাবে অবলীলায় এটিএম কাউন্টারে ঢুকে পড়েন কী ভাবে? এটিএম-এ টাকা তুলতে আসা সাধারণ নাগরিকদের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ। কেউ বা বলেছেন, "নিরাপত্তারক্ষীরা সব গেলো কোথায়, এই এটিএম কাউন্টার কি মহিলাদের জন্য নিরাপদ?" অভিযোগ শুনে এবং ভিডিয়ো দেখে ঘটনাটির জন্য সকলের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন এটিএম কর্তৃপক্ষ। তবে এই সমস্ত সমালোচনার ভিড়ে এক নেটাগরিক আবার লিখেছেন, "ওদের একটু ঘুমোতে দিন"।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Heat Punjab ATM Viral
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE