Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

অবহেলায় শিশুমৃত্যুর অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা
ক্যানিং  ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৬:২৫
উত্তেজনা: হাসপাতাল চত্বরে। সোমবার তোলা নিজস্ব চিত্র

উত্তেজনা: হাসপাতাল চত্বরে। সোমবার তোলা নিজস্ব চিত্র

গোসাবা ব্লকের পাঠানখালির বাসিন্দা বন্দনা রানা রবিবার দুপুরে প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন ক্যানিং হাসপাতালে। সেখানে বিকেল ৩টে নাগাদ একটি সন্তানের জন্ম দেন তিনি। সদ্যোজাতটি অপুষ্টিজনিত সমস্যায় ভুগছেন বলে চিকিৎসকেরা বন্দনার পরিবারকে জানান। প্রয়োজনে কলকাতায় স্থানান্তর করা হতে পারে বলেও জানানো হয়েছিল তাঁদের।

সোমবার সকালে মৃত্যু হয় শিশুর। মৌখিক ভাবে সুপারের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন তাঁরা। বন্দনার শাশুড়ি বাসন্তী রানার অভিযোগ, ‘‘আমরা বলেছিলাম অসুবিধা থাকলে রেফার করে দেওয়া হোক। কিন্তু তা হয়নি। এ দিন সকালে বাচ্চাদের ঘরে গিয়ে দেখি, ওর মুখের অক্সিজেন খোলা রয়েছে। নার্সদিদিদের সে কথা জিজ্ঞাসা করায় আমাকে গালিগালাজ করল। কিছুক্ষণ পরেই মারা যায় শিশুটি।’’

বন্দনা ও তাঁর পরিবারের লোকজন হাসপাতালের বিরুদ্ধে চিকিৎসার গাফিলতির অভিযোগ তুলেছেন। বন্দনার স্বামী অভিজিৎ বলেন, ‘‘চিকিৎসক, নার্সদের অবহেলায় আমার সন্তানের মৃত্যু হল। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্য পরিষেবার জন্য একের পর এক প্রকল্প করছেন। স্বাস্থ্যসাথীর কার্ড দিচ্ছেন। কিন্তু হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্সরা সঠিক পরিষেবা দিচ্ছেন না। এ বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানাচ্ছি।’’

Advertisement

হাসপাতালের রোগীকল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান তথা স্থানীয় বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল বলেন, ‘‘কী হয়েছে, তা খোঁজ নিয়ে দেখব। এলাকার মানুষ যাতে সঠিক পরিষেবা পান, সে বিষয়ে হাসপাতাল সুপারের সঙ্গে কথা বলে যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

হাসপাতাল সুপার অপূর্বলাল সরকার বলেন, ‘‘অভিযোগ পেয়েছি, ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে তদন্তের জন্য কমিটি তৈরি করা হয়েছে। তদন্তে যে চিকিৎসক বা নার্স দোষী প্রমাণিত হবেন, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement