Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Sundarban

COVID restriction: বকখালি, ফ্রেজারগঞ্জে যেতে দু’টি টিকা বা আরটি-পিসিআর রিপোর্ট বাধ্যতামূলক

সুন্দরবনের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে যেতে গেলে দেখাতে হবে দু’টি ভ্যাকসিন নেওয়ার শংসাপত্র বা ৪৮ ঘণ্টা আগে করা আরটি-পিসিআর পরীক্ষার শংসাপত্র।

নজরদারি পুলিশের।

নজরদারি পুলিশের। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নামখানা শেষ আপডেট: ১৯ জুলাই ২০২১ ০৮:৪১
Share: Save:

রাজ্যের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রগুলির মতো দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানা ব্লকের বকখালি, ফ্রেজারগঞ্জ এবং মৌসুনি দ্বীপের পর্যটন কেন্দ্রগুলিতে চালু হল করোনাবিধি। এ বার থেকে বকখালি-সহ সুন্দরবনের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে যেতে গেলে দেখাতে হবে দু’টি ভ্যাকসিন নেওয়ার শংসাপত্র বা ৪৮ ঘণ্টা আগে করা আরটি-পিসিআর পরীক্ষার শংসাপত্র। এ নিয়ে নামখানা ব্লক প্রশাসন ইতিমধ্যেই নির্দেশিকা জারি করেছে।

রবিবার নামখানা ঢোকার প্রবেশ পথে নজরদারি চালিয়েছে পুলিশ। নামখানা থানার আইসি অনিন্দ্য মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পুলিশকর্মীরা নামখানা সেতুর উপর নাকা তল্লাশি চালিয়েছে। বকখালি, ফ্রেজারগঞ্জ এব‌ং মৌসুনিতে বেড়াতে আসা পর্যটকদের গাড়ি থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। নিয়ম অনুযায়ী শংসাপত্র না দেখাতে পারলে ফেরতও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে পর্যটকদের। যদিও অনেক পর্যটকই এই নিয়ম জানেন না বলে অভিযোগ করেছেন। আগামী দিনে ফ্রেজারগঞ্জ পুলিশও নাকা চেকিং শুরু করবে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

অন্য দিকে সাগরের এসডিপিও দীপাঞ্জন ভট্টাচার্য বকখালি এবং ফ্রেজারগঞ্জের হোটেল এবং লজ মালিকদের নিয়ে বৈঠক করেন। সেই বৈঠকে সরকারি সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হয় হোটেল মালিকদের। কোভিডবিধি না মানলে হোটেল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। এসডিপিও নিজেও রবিবার দীর্ঘক্ষণ বকখালির সৈকতে ছিলেন। তিনি পর্যটকদের মাস্ক পরার বিষয়টি নিয়ে প্রচারও করেছেন। নামখানার বিডিও শান্তনু সিংহ ঠাকুর বলেছেন, ‘‘ইতিমধ্যেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পর্যটনকেন্দ্রের সমস্ত হোটেল এবং লজগুলিকে। ঘুরতে আসা পর্যটকদের করোনাবিধি মেনেই আসতে হবে।’’

এর আগে দীঘা, মন্দারমণি ছাড়াও দার্জিলিং এবং ডুয়ার্সের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে কড়া কোভিডবিধি চালু করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE