Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

‘জয় শ্রীরাম’ শুনতে হল মদনকেও

নিজস্ব সংবাদদাতা
০৯ মে ২০১৯ ০০:২৯

দিন দু’য়েক আগে তাঁকে দেখে ‘গো ব্যাক’ স্লোগান ওঠায় লোকজনকে তাড়া করেছিলেন ব্যারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংহ। বুধবার প্রায় তেমন ঘটনাই ঘটল ‘অর্জুনের গড়’ বলে পরিচিত ভাটপাড়ায়। অভিযোগ, এ দিন বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের ক্ষোভের মুখে পড়তে হয় তৃণমূলের মদন মিত্রকে। ভাটপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের উপ-নির্বাচনে অর্জুন-পুত্র পবন সিংহের বিরুদ্ধে মদন দাঁড়িয়েছেন তৃণমূলের টিকিটে।

এ দিন বিকেলে কাঁকিনাড়ায় রোড শো চলছিল মদনের। হাসিমুখেই এগোচ্ছিলেন প্রার্থী। হঠাৎই ভিড়ের মধ্যে থেকে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি ওঠে। ‘গো ব্যাক মদন’ বলেও চিৎকার শুরু করেন বিজেপি সমর্থকেরা। তাতে সাময়িক উত্তেজনা দেখা দেয়। র‌্যাফ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

এ দিন মদনের রোড শো-এ ছিলেন মুম্বইয়ের অভিনেতা শক্তি কাপুর, ভোজপুরী অভিনেত্রী রানি চট্টোপাধ্যায়। একটি হুডখোলা গাড়িতে ছিলেন তাঁরা। অভিযোগ, রোড শো যখন কাঁকিনাড়া বাজারের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, তখন বিজেপির জটলা থেকে ‘জয় শ্রীরাম’ এবং ‘মদন মিত্র গো ব্যাক’ স্লোগান দেওয়া শুরু হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মদনকেও উত্তেজিত হয়ে কিছু বলতে দেখা যায়। তৃণমূল সমর্থকেরা পাল্টা চেঁচামিচি শুরু করায় দু’পক্ষের মধ্যে বচসা বেধে যায়। পুলিশ ও র‌্যাফ দ্রুত মিছিলটিকে কাঁকিনাড়া বাজার পার করে দেয়।

Advertisement

মদনের অভিযোগ, “বিজেপি পরিকল্পিত ভাবে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। এলাকার বাসিন্দারা অর্জুনের বিদায় চাইছেন। সেই হতাশা থেকে উনি কিছু লোক ভাড়া করে রাস্তায় রেখে বাজে খেলা খেলছেন।” অর্জুন অবশ্য বলেন, “আমাদের দলের লোকেরা নন, সাধারণ মানুষই মদনকে পছন্দ করছেন না বলে এমন স্লোগান দিচ্ছেন।”

অন্য দিকে, এ দিন বিকেলে টিটাগড়ে তৃণমূলের একটি ছোট কার্যালয়েও ভাঙচুর হয় বলে অভিযোগ। ব্যারাকপুরের পুরপ্রধান উত্তম দাসের অভিযোগ, বিজেপির লোকেরাই এই কাজ করেছে। ঘটনার সময়ে এক তৃণমূল কর্মী ওই পার্টি অফিসে ছিলেন। বিজেপির লোকেরা তাঁকে হুমকি দেয় বলে অভিযোগ। যদিও বিজেপি নেতা অলক দাস এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।



Tags:
Madan Mitra Shakti Kapoorলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ Bhatpara

আরও পড়ুন

Advertisement