Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
TMC-BJP

ভোট লুট করতে চাইছে তৃণমূল, নালিশ বিজেপির

দেবদাসের আরও অভিযোগ, বাগদা বিধানসভার মূলত তিনটি পঞ্চায়েত এলাকাকে তৃণমূল ‘টার্গেট’ করেছে। এগুলি হল, আষাঢ়ু বয়রা এবং মালিপোতা।

—প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বাগদা শেষ আপডেট: ১০ জুলাই ২০২৪ ০৬:০২
Share: Save:

বাগদা বিধানসভার উপ নির্বাচনে ভোট লুট করতে তৃণমূল ছক কষছে বলে অভিযোগ তুলল বিজেপি। মঙ্গলবার বনগাঁ শহরে নিজের বাড়িতে সাংবাদিক বৈঠক করেন দলের বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সভাপতি দেবদাস মণ্ডল। তাঁর দাবি, ‘‘ভোটের দিন লুটপাট করতে বহিরাগতদের বাগদায় ঢোকাচ্ছে তৃণমূল। তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের বাড়ি ৩-৪ জন করে বহিরাগতদের রাখা হচ্ছে। তাঁদের পরিচয় দিচ্ছে আত্মীয়-পরিজন হিসাবে।’’ তাঁর দাবি, সোমবার থেকেই তৃণমূল বহিরাগতদের ঢোকাতে শুরু করেছে এলাকায়। অভিযোগ মানেনি তৃণমূল। তাদের দাবি, ভোটে পরাজয় নিজেদের বুঝতে পেরে বিজেপি নেতারা এমন অভিযোগ করছেন।

দেবদাসের আরও অভিযোগ, বাগদা বিধানসভার মূলত তিনটি পঞ্চায়েত এলাকাকে তৃণমূল ‘টার্গেট’ করেছে। এগুলি হল, আষাঢ়ু বয়রা এবং মালিপোতা। মৃত মানুষ, কর্মসূত্রে বাইরে থাকেন, পরিযায়ী শ্রমিক— এঁদের ভোট করাতে পরিকল্পনা করেছে তৃণমূল। দেবদাস বলেন, ‘‘জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তৃণমূল লোকজন ঢোকাচ্ছে। বিশেষ করে স্বরূপনগর থেকে বেশি লোক আনা হয়েছে।’’ বাগদার ভোটারদের কাছে দেবদাসের আবেদন, ভোটের দিন এলাকায় বহিরাগত দেখলে তাঁদের আটকে রেখে কেন্দ্রীয় বাহিনীর হাতে তুলে দিন।

২০১৮ সালের পঞ্চায়েত ভোটের দিন অবাধ সন্ত্রাসের সাক্ষী ছিলেন বাগদাবাসী। দিনভর বহিরাগতদের দাপাপাপি দেখেছিলেন তাঁরা। অভিযোগ, ছাপ্পা, রিগিং, ভোট লুট, বোমাবাজি, গাড়ি ভাঙচুর, গাড়িতে আগুন, প্রিজ়াইডিং অফিসারকে আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে ভয় দেখানোর মতো ঘটনা ঘটেছিল। পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিলেন গ্রামবাসী। তাঁরা ব্যালট বাক্স পুড়িয়ে দিয়েছিলেন, জলে ফেলে দিয়েছিলেন। বহিরাগতদের পিটিয়ে এলাকা ছাড়া করা হয়। অনেকে জখম হয়েছিলেন। দেবদাসের মতে, বহিরাগতদের ঢোকার বিষয়টি পুলিশকে জানিয়ে লাভ নেই। পুলিশ তৃণমূলকে জেতাতে মাঠে নেমে পড়েছে। বিষয়টি তাঁরা নির্বাচন কমিশনকে আগে জানিয়েছিলেন। মঙ্গলবার ফের জানানো হবে বলে মন্তব্য করেন দেবদাস।

বিজেপির অভিযোগের বিষয়ে তৃণমূলের বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সভাপতি বিশ্বজিৎ দাস বলেন, ‘‘বাগদার উপ নির্বাচনে বিজেপি বুঝতে পেরেছে, তাদের ভরাডুবি হচ্ছে। সে কারণে নেতাদের মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে। বিকৃত তথ্য ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন। বাগদায় ভোট অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই হবে।’’

বনগাঁর পুলিশ সুপার দীনেশ কুমার বলেন, ‘‘বহিরাগতদের ঢোকার নির্দিষ্ট তথ্য দিয়ে অভিযোগ করলে পদক্ষেপ করা হবে। ভোটের দিন জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরের কাউকে এলাকায় ঢুকতে দেওয়া হবে না।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

BJP Bagda
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE