Advertisement
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Anis Khan Death Mystery

‘আনিসকে মেরে ছাদ থেকে ফেলা হয়েছে, এর পর যাকে মারা হবে, তাকে খুঁজে পাওয়া যাবে না, আসত হুমকি’

আগেও হুমকির মুখে পড়তে হয়েছিল সলমনকে। এই নিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানালেও পুলিশের তরফ থেকে কোনও সহযোগিতা করা হয়নি। এমনটাই দাবি আনিস খানের আক্রান্ত ভাই সলমনের স্ত্রীর।

মৃত ছাত্রনেতা আনিস খান।

মৃত ছাত্রনেতা আনিস খান।

নিজস্ব সংবাদদাতা
আমতা শেষ আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৯:৪৩
Share: Save:

আগেও হুমকির মুখে পড়তে হয়েছিল সলমনকে। এ নিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানালেও পুলিশের তরফ থেকে কোনও সহযোগিতা করা হয়নি। এমনটাই দাবি করলেন আনিস খানের আক্রান্ত ভাই সলমনের স্ত্রী। তিনি জানান, আনিসের মৃত্যুর পর থেকেই সলমনকে হুমকি দেওয়া শুরু হয়েছিল। তিনি বলেন, ‘‘আনিসকে মেরে ছাদ থেকে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এর পর যাকে মারা হবে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না।’’ রাস্তাঘাটে দেখা হলেই হুমকি দেওয়া হত বলে দাবি সলমনের স্ত্রীর।

Advertisement

একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে সলমনের স্ত্রী জানান, আনিসের মৃত্যুর পর তাঁর স্বামী প্রতিবাদ করেছিলেন। আর সেই কারণেই সলমনকে খুন করার চেষ্টা করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘সলমনের উপর হামলা চালানোর সময় আমি বাইরে ছিলাম। ঘরের ভিতরে ঢুকে দেখি ও রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। এক জনকে দৌড়ে পালিয়ে যেতে দেখেছি।’’ যদিও তিনি তাঁকে চিনতে পারেননি। এর পরই তড়িঘড়ি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় সলমনকে। রাত দেড়টা নাগাদ এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ রাত আড়াইটে নাগাদ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। ৩টে নাগাদ পুলিশ আবার আসে। জিজ্ঞাসাবাদ সেরে ঘটনাস্থলের ছবি তুলে নিয়ে যায় বলেও সলমনের স্ত্রী জানিয়েছেন।

হাসপাতালে শুয়ে সলমন বলেন, ‘‘আমার মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়। স্ত্রী তখনই সেখানে পৌঁছন। স্ত্রী না থাকলে আমাকে খুন করে পালাত।’’

প্রসঙ্গত, শুক্রবার রাতে সলমনের বাড়িতে ঢুকে পড়ে একদল দুষ্কৃতী। রাতের অন্ধকারে তাঁর ওপর টাঙি দিয়ে আক্রমণ করা হয় বলেও অভিযোগ। মাথার পিছনের দিকে একাধিক অস্ত্রের কোপ মারা হয়। রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে যান তিনি। স্ত্রী এসে সবাইকে ডাকাডাকি করেন। পরে সলমনকে আক্রান্ত অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন তিনি।

Advertisement

সলমনের পরিবারের অভিযোগ, আনিস হত্যাকাণ্ডের অন্যতম সাক্ষী হওয়ায় সলমনকে আগেও হুমকির মুখে পড়তে হয়েছিল। এই নিয়ে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগও জানানো হয়। সলমনের ওপর আক্রমণের পর আবার এক বার সিবিআই তদন্তের দাবি নিয়ে সরব হয়েছে আনিসের পরিবার।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বাড়ির ছাদ থেকে পড়ে রহস্যজনক ভাবে মৃত্যু হয় আনিসের। আনিসের মৃত্যু স্বাভাবিক না কি খুন, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। আঙুল ওঠে পুলিশের দিকেও। রাজ্য সরকারের তরফে সিট গঠন করে তদন্ত শুরু করা হলেও সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছিল তাঁর পরিবার। সেই নিয়ে জট কাটতে না কাটতেই এ বার আক্রান্ত আনিসের ভাই সলমন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.