Advertisement
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
burnpur

ক্রিকেট খেলা শিখতে গিয়ে ক্লাবকর্তার কাছে যৌন হেনস্থার শিকার নাবালিকা! গ্রেফতার অভিযুক্ত

অভিযোগ, ১৭ সেপ্টেম্বর ওই নাবালিকাকে ক্রিকেট খেলার কিছু সরঞ্জাম কিনে দেওয়ার নাম করে নিজের গাড়িতে বসতে বলেন ক্লাবকর্তা তথা প্রশিক্ষক। এর পর ওই গাড়িতে তার শ্লীলতাহানি করেন।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বার্নপুর শেষ আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২০:৫০
Share: Save:

ক্রিকেটের ট্রেনিং নিতে স্থানীয় একটি ক্রিকেট ক্লাবের শীর্ষকর্তা তথা প্রশিক্ষকের লালসার শিকার হল এক নাবালিকা। স্টিল অথরিটি অব ইন্ডিয়া (সেল)-র আইএসপির অধীনস্থ বার্নপুরের একটি ক্রিকেট ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক তথা প্রশিক্ষকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। দিন কয়েক আগে ওই নাবালিকাকে তিনি যৌন হেনস্থা করেন বলে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ। নাবালিকার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে আসানসোলের হিরাপুর থানার পুলিশ। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন ক্লাব সদস্যেরা।

পুলিশ সূত্রে খবর, ১৭ সেপ্টেম্বর স্থানীয় এক নাবালিকাকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠেছে বার্নপুরের ক্রিকেট ক্লাবের এক কর্তা তথা প্রশিক্ষকের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, সে দিন ওই নাবালিকাকে ক্রিকেট খেলার কিছু সরঞ্জাম কিনে দেওয়ার নাম করে নিজের গাড়িতে বসতে বলেন তিনি। এর পর ওই গাড়িতে তার শ্লীলতাহানি করেন।

পরিবারের দাবি, লজ্জায় কয়েক দিন কাউকে কিছু বলতে পারেনি মেয়েটি। শেষ পর্যন্ত পরিবারের সদস্যদের সব কথা জানায় সে। তার পর ওই ক্লাবে গিয়ে পুরো ঘটনাটি জানান পরিবারের সদস্যেরা। পাশাপাশি, আসানসোলের হিরাপুর থানায় গিয়ে ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক তথা প্রশিক্ষকের নামে অভিযোগ দায়ের করেন।

পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪ এবং ৩৫৪এ-সহ পকসো (প্রোটেকশন অফ চিলড্রেন ফ্রম সেক্সুয়াল অফেন্সেস) আইনে যৌন হেনস্থার অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ধৃতকে শুক্রবার আসানসোল আদালতে তোলে পুলিশ। সেখানে তাঁকে জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে ২৮ সেপ্টেম্বর।

ক্লাব সূত্রে জানানো হয়েছে, নাবালিকাকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ ওঠার পর নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন ওই কর্তা। বার্নপুর ক্রিকেট ক্লাবের পক্ষ থেকে অজয়কুমার ঝা বলেন, ‘‘ক্লাবের প্রত্যেকটি সদস্য এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন। ইতিমধ্যেই একটি কমিটি গঠন করে ক্লাবের পক্ষ থেকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। পাশাপাশি, সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন অভিযুক্ত।’’ ক্লাবের আর এক সদস্য মৃণাল চক্রবর্তী বলেন, ‘‘পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে। আমরা সকলেই এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.