Advertisement
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২
Death

‘আমার মরা মুখ দেখে যেয়ো, পরজন্মে আমরা এক হব’, প্রেমিকাকে বার্তা দিয়ে নিজেকে গুলি করলেন যুবক?

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নিহতের নাম আনন্দ আরিন্দা। আসানসোলের সালানপুর থানার দেন্দুয়া এলাকায় একটি বেসরকারি ইস্পাত কারখানার নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন তিনি। কর্মস্থলেই তাঁর গুলিবিদ্ধ দেহ উদ্ধার হয়।

আত্মঘাতী নিরাপত্তারক্ষী।

আত্মঘাতী নিরাপত্তারক্ষী। প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
আসানসোল শেষ আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:৫৭
Share: Save:

সহকর্মীর বন্দুকের গুলিতে মৃত্যু হল এক নিরাপত্তাকর্মীর। শুক্রবার এই ঘটনা ঘটেছে পশ্চিম বর্ধমানের আসানসোলে। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে, ওই নিরাপত্তারক্ষী আত্মহত্যা করেছেন। কারণ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি সুইসাইড নোট। যদিও পুলিশ সমস্ত দিক খতিয়ে দেখছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নিহতের নাম আনন্দ আরিন্দা। আসানসোলের সালানপুর থানার দেন্দুয়া এলাকায় একটি বেসরকারি ইস্পাত কারখানার নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন তিনি। পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, রোজকার মতো শুক্রবার সকালে আনন্দের হাতে নিজের আগ্নেয়াস্ত্রটি দিয়ে জলখাবার খেতে গিয়েছিলেন আশিস দাস নামে তাঁর এক সহকর্মী। আচমকা আশিস গুলির শব্দ শুনতে পান। তিনি ঘটনাস্থলে এসে দেখতে পান, আনন্দের বুকে লেগেছে গুলি। খবর পেয়ে কারখানায় পৌঁছয় সালানপুর থানার পুলিশ। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আনন্দকে আসানসোল জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পুলিশ বন্দুকটি বাজেয়াপ্ত করেছে। আনন্দের মৃত্যুর পর ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান বন্দুকের মালিক আশিস।

উদ্ধার হওয়া সেই সুইসাইড নোট।

উদ্ধার হওয়া সেই সুইসাইড নোট। — নিজস্ব চিত্র।

আনন্দের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি, ঘটনাস্থল থেকে মিলেছে একটি সুইসাইড নোটও। তার বয়ান দেখে মনে করা হচ্ছে, প্রেমঘটিত কারণে আত্মঘাতী হয়েছেন ওই যুবক। ওই সুইসাইড নোটে এক তরুণীর কথা লেখা হয়েছে। এই সব সূত্র ধরেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.