Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

সুস্থ হওয়ার পরেও সঙ্কট, বাড়ছে চিন্তা

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান ২৪ নভেম্বর ২০২০ ০৩:৩৮
—প্রতীকী ছবি।

—প্রতীকী ছবি।

কোভিড-হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেই নিশ্চিন্ত, ধারণা ছিল এমনটাই। কিন্তু সেই আশায় জল ঢেলে দিচ্ছে বেশ কিছু ঘটনা, মনে করছে পূর্ব বর্ধমান জেলা স্বাস্থ্য দফতর। করোনা-সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার পরেও রোগীদের শারীরিক অবস্থার অবনতি, ফের হাসপাতালে ভর্তির ঘটনা চিন্তায় রাখছে বলে জানাচ্ছেন স্বাস্থ্য-কর্তারা।

পূর্ব বর্ধমানের ডেপুটি সিএমওএইচ (২) তথা জেলার করোনা-সংক্রান্ত নোডাল অফিসার সুনেত্রা মজুমদারের কথায়, ‘‘করোনা পরবর্তী শারীরিক সমস্যা হচ্ছে অনেকেরই। আমাদের বিষয়টি ভাবাচ্ছে। সে জন্য করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ পাওয়ার পরেও, সংক্রমিতদের সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে। কোনও অসুবিধে হলে, আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলছি। আমরাও ফোন করে খোঁজ নিচ্ছি।’’

স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা থেকে সুস্থ হয়ে যাওয়ার বেশ কিছু দিন পরে নানা জটিল শারীরিক সমস্যায় আক্রান্ত হচ্ছেন কেউ-কেউ। কী-কী ধরনের সমস্যা দেখা দিচ্ছে, সে বিষয়ে বিশদ তথ্য সংগ্রহ করছে জেলা স্বাস্থ্য দফতর। এ বিষয় ও জেলায় করোনা ভ্যাকসিন বিতরণের বিষয়ে প্রাথমিক পর্যায়ের আলোচনার জন্য সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য দফতর ও পুলিশের একটি বৈঠক হয়। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্ব বর্ধমান জেলায় ৩০ হাজার করোনা-যোদ্ধার নাম ভ্যাকসিনের জন্য নথিভুক্ত করেছে স্বাস্থ্য দফতর।

Advertisement

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা যায়, সংক্রমিতদের মধ্যে যাঁদের ভেন্টিলেশনে রাখতে হয়েছে বা অক্সিজেন দিতে হয়েছে, পরে তাঁদের অনেকের ফুসফুসে ক্ষতচিহ্ন দেখা যাচ্ছে। অনেকের ফুসফুসে ‘ফাইব্রোসিস’ ধরা পড়ে। যার ফলে ফুসফুসে দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতি, শ্বাসকষ্টের সমস্যা থেকে যাচ্ছে। আবার যাঁদের ডায়াবিটিস রয়েছে, তাঁদের শরীরে সুগারের মাত্রা ওঠানামা করছে। ডায়াবিটিস না থাকা আক্রান্তদের কারও-কারও সুগার বেশি হচ্ছে। করোনার প্রভাব ফেলছে কিডনি থেকে হৃদযন্ত্রে।

বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তারাশঙ্কর মালিক বলেন, ‘‘সুস্থ হয়ে যাওয়ার পরেও করোনা আক্রান্তদের মধ্যে আমরা বিভিন্ন ধরনের উপসর্গ পাচ্ছি। কখনও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা, কখনও হৃদযন্ত্রের সমস্যা ধরা পড়ছে।’’ অনাময় হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগের চিকিৎসক উত্তম মুখোপাধ্যায়ও বলেন, ‘‘হৃদযন্ত্রের সমস্যা নিয়ে অনেকেই আসছেন।’’

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, সাত দিনের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি চলে যাওয়া আক্রান্তকে ফের কোভিড-হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে, এমন ঘটনা ঘটছে। ১২-১৩ দিন পরে সুস্থ হয়ে কোভিড হাসপাতাল থেকে ‘সেফ হোমে’ যাওয়া রোগীর হঠাৎ শ্বাসকষ্ট হওয়ায়, ফের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করানোর ঘটনাও ঘটছে। ভুক্তভোগীরা জানাচ্ছেন, করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরে, শরীর দুর্বল হয়ে পড়ছে। অনেক ক্ষেত্রে স্বাদ-গন্ধ ফিরতেও দু’সপ্তাহের বেশি সময় লাগছে।

ডেপুটি সিএমওএইচ (২) সুনেত্রাদেবী বলেন, ‘‘১৭ দিন পরে কোনও সংক্রমিত ফের অসুস্থ হয়ে পড়লে, তাঁদের নিকটবর্তী হাসপাতালে যোগাযোগের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement