Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

TMC-BJP: তৃণমূলের মিছিলে ‘বিজেপি’, দাবিতে উত্তেজনা দুর্গাপুরে

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, বুধবার বিকেলে সেই মিছিল শুরু হয় ভিড়িঙ্গি মোড় থেকে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
দুর্গাপুর ০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ০৮:৫৮
দুর্গাপুরে বেনাচিতি বাজার এলাকায়।

দুর্গাপুরে বেনাচিতি বাজার এলাকায়।
নিজস্ব চিত্র।

বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষের ২৩ নভেম্বরের পদযাত্রার ‘পাল্টা’ পদযাত্রা, দুর্গাপুরের বেনাচিতিতে। বুধবার সেখানে বিজেপি কর্মীদের উপস্থিতির অভিযোগ তুলে ক্ষোভে ফেটে পড়লেন তৃণমূল কর্মীদের একাংশ। এর জেরে, বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়।

পেট্রল-ডিজ়েলের উপর থেকে রাজ্য সরকারকে ‘ভ্যাট’ কমাতে হবে — এই দাবিতে বেনাচিতির পাঁচমাথার মোড় থেকে ভিড়িঙ্গির মোড় পর্যন্ত গত ২৩ নভেম্বর পদযাত্রা করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ। গত ৩ ডিসেম্বর দুর্গাপুরের সিধো-কানহো ইন্ডোর স্টেডিয়ামে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে বৈঠক শেষে তৃণমূল নেতৃত্ব জানান, পেট্রল-ডিজ়েলের মূল্যবৃদ্ধি এবং কেন্দ্র সরকারের বিভিন্ন নীতির বিরুদ্ধে ৮ ডিসেম্বর ওই রুটে ‘মহামিছিল’ হবে।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, বুধবার বিকেলে সেই মিছিল শুরু হয় ভিড়িঙ্গি মোড় থেকে। মিছিলে যোগ দিয়েছিলেন জেলা সভাপতি বিধান উপাধ্যায়, তৃণমূলের দুর্গাপুরের আহ্বায়ক মৃগেন্দ্রনাথ পাল-সহ অন্যেরা।

Advertisement

মিছিল চলাকালীন হঠাৎ শুরু হয় দু’পক্ষের মধ্যে অশান্তি। এক পক্ষের দাবি, বিধানসভা নির্বাচনের আগে অন্য পক্ষ বিজেপিতে ‘নাম লিখিয়েছিল’। এ দিন ‘হাওয়া বুঝে’ ফের তৃণমূলের মিছিলে যোগ দিয়েছে। তাঁদের মিছিল থেকে বার করে দিতে হবে, এই দাবিতে তুমুল বচসা শুরু হয়। পুরসভার কাউন্সিলর দেবব্রত সাঁই, মেয়র পারিষদ (জল সরবরাহ) দীপঙ্কর লাহা-সহ অন্যদের পরিস্থিতি সামাল দিতে দেখা যায়। বেশ কিছুক্ষণ পরে শান্ত হয় দু’পক্ষ।

তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন বিজেপি থেকে ফের তৃণমূলে যোগ দিতে অনেকেই এসেছিলেন। তবে এ দিন কোনও যোগদানের কর্মসূচি ছিল না। জেলা সভাপতি বিধান বলেন, “কোনও যোগদান হয়নি। মিছিল ছিল। অনেকেই বিভিন্ন জায়গা থেকে চলে আসেন। তৃণমূলের কর্মীরা তেমন কাউকে কাউকে চিনতে পেরে সামান্য উত্তেজিত হয়ে পড়েন। তবে যাঁরা এসেছিলেন, তাঁরা সবাই আমাদের মিছিলে হেঁটেছেন। তাই বিশৃঙ্খলার কোনও প্রশ্নই নেই।”

যদিও বিজেপির আসানসোল সাংগঠনিক জেলার অন্যতম সম্পাদক অভিজিৎ দত্ত বলেন, “পুরভোট যত এগিয়ে আসছে, তত তৃণমূলের কোন্দল বাড়ছে। যত দিন যাবে, গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব চরম আকার নেবে।” পাল্টা তৃণমূলের দুর্গাপুরের আহ্বায়ক মৃগেন্দ্রনাথ বলেন, “দুর্গাপুরের বিভিন্ন জায়গা থেকে শয়ে-শয়ে তৃণমূল কর্মী-সমর্থক যোগ দিয়েছিলেন মিছিলে। বিজেপির পায়ের তলায় যে মাটি নেই, বিধানসভা ভোটে প্রমাণ হয়ে গিয়েছে। তাই আমাদের মিছিলে ভিড় দেখে বিজেপি নেতাদের গাত্রদাহ হচ্ছে।”

আরও পড়ুন

Advertisement