Advertisement
০২ ডিসেম্বর ২০২২
Youth Congress

পরিষেবার বেহাল দশা, অভিযোগে বর্ধমান পুরসভায় তালা ঝোলাল যুব কংগ্রেস

শুক্রবার দুপুরে যুব কংগ্রেসের তরফে বর্ধমান পুরসভার কার্যনির্বাহী আধিকারিককে স্মারকলিপি দেওয়া হয়। এর পর নাগরিক পরিষেবার বেহাল দশার অভিযোগে তালা ঝোলানো হয় পুরসভার দরজায়।

তালাবন্ধ বর্ধমান পুরসভার সদর দরজা।

তালাবন্ধ বর্ধমান পুরসভার সদর দরজা। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান শেষ আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২০:৩২
Share: Save:

বর্ধমান শহরে অমিল পুর পরিষেবা। তা নিয়ে শহরের বাসিন্দারা রীতিমতো নাজেহাল। শুক্রবার এ ধরনের একগুচ্ছ অভিযোগে বর্ধমান পুরসভার সদর দরজায় তালা ঝুলিয়ে দিলেন যুব কংগ্রেস কর্মীরা। একই সঙ্গে পুরসভার কার্যনির্বাহী আধিকারিককে স্মারকলিপিও দিলেন তাঁরা। যদিও যুব কংগ্রেসের অভিযোগ মানতে নারাজ পুর কর্তৃপক্ষ।

Advertisement

শুক্রবার দুপুরে যুব কংগ্রেসের তরফে বর্ধমান পুরসভার কার্যনির্বাহী আধিকারিককে স্মারকলিপি দেওয়া হয়। এর পর নাগরিক পরিষেবার বেহাল দশার অভিযোগে তালা ঝোলানো হয় পুরসভার দরজায়। গত এক সপ্তাহ ধরে রাজ্য সরকারের ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির মতোই শহরের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ঘুরছেন যুব কংগ্রেস সদস্যেরা। দলের ওই কর্মসূচির পোশাকি নাম, ‘আপনার সমস্যা শুনব আমরা’। শুক্রবার ছিল সেই কর্মসূচির শেষ দিন। যুব কংগ্রেসের দাবি, গত তিন বছর ধরে পুরসভার হাঁড়ির হাল। শহর জুড়ে কান পাতলেই পুরসভার নানা পরিষেবা নিয়ে বিস্তর অভিযোগ শোনা যায়। তাই শহরের মোট ৩৫টি ওয়ার্ডে ঘুরে নাগরিকদের নানা সমস্যার কথা শুনছেন যুব কংগ্রেস কর্মীরা।

যুব কংগ্রেসের অভিযোগ, বর্ধমান শহরের নাগরিকরা নিকাশি ব্যবস্থা, পানীয় জল-সহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পরিষেবা পাচ্ছেন না। সেই সঙ্গে পুরসভার কোষাগারও প্রায় শূন্য। এমনকি, পুরসভার বিভিন্ন বিভাগে দুর্নীতির অভিযোগও করা হয়েছে।

এই আবহে গত কয়েক দিন ধরে যুব কংগ্রেসের উদ্যোগে শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে চলছিল ‘আপনাদের সমস্যা তুলে ধরব আমরা’ কর্মসূচি। শহরের সব ক’টি ওয়ার্ডের মানুষের কাছে পৌঁছে তাঁদের সমস্যার কথা শুনে সেগুলি সমাধানের উদ্দেশে এই কর্মসূচি বলে জানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ ভট্টাচার্য। অভিজিতের দাবি, “রাজ্যের বিভিন্ন পুরসভার মতো দীর্ঘ দিন ধরে বর্ধমান পুরসভায় প্রসাশক মোতায়েন রয়েছে। পানীয় জল, নিকাশি ব্যবস্থা, রাস্তা-সহ একাধিক পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন শহরের নাগরিকরা।” তবে মানুষের সমস্যা দ্রুত মেটানোর লক্ষ্যে যুব কংগ্রেসের এই ধরনের আন্দোলন চলবে বলে দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

Advertisement

যুব কংগ্রেসের তরফে পরিষেবা নিয়ে অভিযোগ করা হলেও তা স্বীকার করেননি বর্ধমান পুরসভার কার্যনির্বাহী আধিকারিক অমিত গুহ। তিনি বলেন, “ডেপুটেশন পেয়েছি। কিন্তু বেশির ভাগ সমস্যার সমাধান হয়ে গিয়েছে। যেটুকু হয়নি, সেটাও করার চেষ্টা চলছে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.