Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বামকর্মীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ কালনায়

নিজস্ব সংবাদদাতা
কালনা ০১ জুন ২০১৬ ০১:২১

ফল ঘোষণার পরেই গোলমাল, অশান্তি না করার বার্তা দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। জেলা সভাপতি স্বপন দেবনাথও বারেবারে হিংসা বন্ধ করার কথা বলেছেন। তবুও শাসকদলের বিরুদ্ধে হিংসার অভিযোগ থামছে না বর্ধমানে। এ বার কালনা শহরের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের নেপপাড়ায় এক সিপিএম সমর্থকের বাড়িতে ঘণ্টাখানেক ধরে ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সঙ্গে ছিল হুমকি, গালিগালাজও। মঙ্গলবার কালনা থানায় অভিযোগও দায়ের করেছে ওই পরিবার।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, নেপপাড়া এলাকার পান্থনীড় ভবনের উল্টো দিকেই বাড়ি ৮২ বছরের বৃদ্ধ বিশ্বভূষণ স্বর্ণকারের। তাঁর দুই ছেলে প্রদীপ এবং গৌতম দীর্ঘদিন ধরে বাম রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। এলাকায় সিপিএম নেতা হিসেবেও পরিচিত তাঁরা। প্রদীপবাবু আবার কালনা পুরসভারও কর্মী। বিশ্বভূষণবাবুর অভিযোগ, রবিবার পৌনে ১১টা নাগাদ একদল উন্মত্ত লোকজন সদর দরজার লোহার গেটের সামনে দুই ছেলের নাম ধরে ডাকাডাকি শুরু করে। দরজা না খুললে তারা জোর করে বাড়ির ভিতরে ঢুকে পরে বলে তাঁর অভিযোগ। ছেলেদের সাড়া না পেয়ে বৌমাদের উদ্দেশ্য হামলাকারীরা অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। পরে দরজা ভাঙতে না পেরে বাইরে থেকেই নির্বিচারে কাচের জানাল ভাঙচুর করা হয়। বাঁশ, লাঠি দিয়ে ভাঙচুর চালানো হয় গাড়িতেও। প্রদীপবাবু বলেন, ‘‘এক বার হুমকি দিয়ে চলে যাওয়ার পরে ফের ওরা আসে। দ্বিতীয়বার গোটা বাড়ি তছনছ করে দেয়।’’ হামলার মধ্যেই দেড় বছরের ভাইঝিকে প্রাণে মারারও হুমকি দেওয়া হয় বলে তাঁর অভিযোগ। গৌতমবাবুও জানান, ওই ঘটনায় অসুস্থ হয়ে পড়েন বিশ্বভূষণবাবু। যাঁরা এসেছিল, তাঁরা তৃণমূলের লোক এবং বেশির ভাগই ১৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে এসেছিল বলেও তাঁদের অভিযোগ। অভিযোগপত্রে পাঁচ জনের নামও দিয়েছেন তাঁরা।

মঙ্গলবার স্বর্ণকার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করেন কালনার পুরপ্রধান দেবপ্রসাদ বাগ। তিনি বলেন, ‘‘আমি বিশ্বাস করি না দলের কোনও লোকজন এমন কাজ করতে পারে। যদি কেউ করে থাকে তাহলে দলের কাছে তাদের শাস্তির সুপারিশ করব।’’ অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশও।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement