Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

৩০ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

সকালে ফাঁকা, বেলা গড়াতেই ভিড় বাড়ল বর্ধমান স্টেশনে

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান ১১ নভেম্বর ২০২০ ১৩:২৭
বর্ধমান স্টেশনে ঢোকার আগে থার্মাল স্ক্রিনিং। নিজস্ব চিত্র।

বর্ধমান স্টেশনে ঢোকার আগে থার্মাল স্ক্রিনিং। নিজস্ব চিত্র।

দীর্ঘ সাড়ে ৭ মাসের বিরতির পর বুধবার ভোরে চালু হল বর্ধমান-হাওড়া লোকাল ট্রেন পরিষেবা। খুশির হাওয়া যাত্রীদের মধ্যে। হাওড়া ডিভিশনের অন্যতম ব্যস্ত এবং গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন বর্ধমান। সেখানে ঢোকার মুখে থার্মাল স্ক্রিনিং করা হচ্ছে যাত্রীদের। মাস্কও বিলি করছে রেল পুলিশ। ট্রেনের মধ্যে চলছে নজরদারি। কিন্তু ভিড় বাড়লে এই সচেতনতা কতটা বজায় থাকবে তা নিয়ে সংশয়ে যাত্রীদের একাংশই।

কর্ড ও মেইন লাইনে নিয়ে বর্ধমান এবং হাওড়ার মধ্যে চলবে ৩৮টি ট্রেন। মেইন লাইনে হাওড়া থেকে বর্ধমান প্রথম ট্রেন সকাল ৬টা ২০ মিনিটে এবং কর্ড লাইনে ৬টা ১০মিনিটে। শেষ ট্রেন রাত ১০টা ১০ মিনিটে। অন্যদিকে বর্ধমান থেকে মেইন লাইনে হাওড়া আসার প্রথম ট্রেন ভোর ৩টে ৫-এ। কর্ড লাইনে ভোর ৩টেয়। মেন লাইনে শেষ ট্রেন সন্ধ্যা ৭টা ৫৫ এবং কর্ড লাইনে ৭টা ২০ মিনিটে।

এ দিন সকাল থেকেই দেখা গিয়েছে ট্রেনে যাত্রীরা কোভিড বিধি মেনেই ট্রেনের আসনে বসছেন। ট্রেন যাত্রী সুরজিৎ বিট বলেন, ‘‘লোকাল চালু হওয়ায় খুবই খুশি। এতদিন বেআইনি ভাবে স্টাফ স্পেশাল ট্রেনে যাতায়াত করছিলাম। ভয় ছিল, কখন রেলপুলিশ ধরবে। কিন্তু জীবিকার জন্য ঝুঁকি নিয়েই যেতে হয়েছে। আর এখন সেই ভয় নেই। পকেটে মান্থলি টিকিট আছে।’’

Advertisement

আজ সকালে বর্ধমান স্টেশন ছিল ফাঁকা। হাতেগোনা কয়েকজন যাত্রী। কিন্তু চিত্রটা পাল্টে গেল বেলা বাড়তেই। একের পর এক কর্ড ও মেইন শাখার ট্রেন স্টেশনে ঢুকতেই ভিড় বাড়ে। যাত্রীদের অভিযোগ, যাত্রা পথে ট্রেনের মধ্যে কোভিড বিধি মানা হচ্ছে না। বাইরে থার্মাল স্কিনিং করা হচ্ছে। মাস্ক পরার জন্য রেল পুলিশের কড়াকড়ি করছে। কিন্তু ট্রেনের মধ্যে সে সব উধাও। গা ঘেঁষাঘেঁষি করেই যাত্রীরা যাতায়াত করছেন ট্রেনে।

আরও পড়ুন

Advertisement